মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাংলাদেশ চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে সক্ষম ॥ কোহলি

প্রকাশিত : ১০ জুন ২০১৫

মোঃ মামুন রশীদ ॥ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টে এবার পূর্ণ মেয়াদের অধিনায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু হবে বিরাট কোহলির। যদিও গত বছরের শেষদিকে অস্ট্রেলিয়া সফরে চতুর্থ টেস্ট থেকেই স্থায়ী অধিনায়ক হয়েছেন, কিন্তু এবারই প্রথম তিনি অধিনায়ক হিসেবে দলকে কোন সফরে নেতৃত্ব দিচ্ছেন টেস্ট ক্রিকেটে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আগের টেস্টগুলো সহজেই জিতে গেলেও এবার কোহলি মনে করছেন তীব্র লড়াই করবে বাংলাদেশ। বিশেষ করে সম্প্রতি ওয়ানডে ক্রিকেটে যে দারুণ উন্নয়ন করেছে বাংলাদেশ দল সেই আত্মবিশ্বাসে বলীয়ান হয়েই ভারতকে টেস্টে মোকাবেলা করবে বলে মনে করেন তিনি। সে কারণে কোনভাবেই স্বাগতিকদের হালকাভাবে নিচ্ছেন না তিনি। প্রথমবার বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলতে নামার আগে নিজের নৈপুণ্যের চেয়ে দলকে বিজয়ী করার জন্য যা প্রয়োজন সেটাই করতে চান কোহলি। মঙ্গলবার ফতুল্লায় ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

বর্তমান ভারতীয় দলের ১১ ক্রিকেটারই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলেনি। তবে গত জুনে বাংলাদেশ সফরে তিন ওয়ানডে খেলেছেন দলের অনেক ক্রিকেটারই। তাছাড়া বাংলাদেশের উইকেট ও কন্ডিশন সম্পর্কে দলের সবাই ওয়াকিবহাল। এ বিষয়ে কোহলি বলেন, ‘আমি তাদের বিরুদ্ধে মোটেও খেলিনি। বিভিন্ন পরিস্থিতিতে তারা কেমন মনোভাব দেখাবে সেটা জানা সম্ভব নয় একটুও না খেললে। তারা ওয়ানডে ক্রিকেটে অনেক উন্নতি করেছে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে, অনেক মেলে ধরার মাধ্যমে এবং বেশি বেশি টেস্ট খেলার মাধ্যমে এ ফরমেটেও তারা ভাল দলে পরিণত হবে। আমরা প্রতি প্রতিপক্ষকে সমানভাবে বিবেচনা করি। কোন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে এটি আমাদের আরেকটি টেস্ট। কাজেই এটা কোন বিষয় নয় প্রতিপক্ষ কে। বাংলাদেশের সবখানেই উইকেট প্রায় একই রকম। অধিকাংশই গত বছর এখানে খেলেছেন। এখানকার উইকেটে কিভাবে খেলতে হবে আমরা ভালভাবেই জানি। যেখানে প্রচুর খেলেছেন সেখানে বার বার এত অনুশীলন করার প্রয়োজন নেই।’ বাংলাদেশ দল স্বাগতিক হিসেবে অনেক আত্মবিশ্বাসী থাকবে বলে মনে করেন কোহলি। তিনি বলেন, ‘তারা যেভাবে খেলছে সেক্ষেত্রে এই মুহূর্তে অনেক আত্মবিশ্বাসী থাকবে। এছাড়া পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তারা অনেক ভাল করেছে। আমি আগেও বলেছি আমরা কোন দলকে হালকাভাবে নেই না। বাংলাদেশের উন্নতিটা সত্যিই চমৎকার। বিশ্বকাপে তারা বড় দলগুলোকে হারিয়েছে। আর যেভাবে তারা অস্ট্রেলিয়াতে খেলেছে সেটা সত্যিই দারুণ ছিল। কন্ডিশনটা পরিচিত ছিল না। এরপরও তারা আস্থা তৈরি করেছিল।’

বাংলাদেশের কিছু ক্রিকেটার এখন দুর্দান্ত ফর্মে আছেন। সে কারণে প্রতি ক্রিকেটারের জন্যই পরিকল্পনা নিয়েছে কোহলিবাহিনী। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘নির্দিষ্ট ব্যাটসম্যানদের জন্য পরিকল্পনা আছে আমাদের। অতীতে আমরা তামিম, মুমিনুল ও সাকিবের বিরুদ্ধে অনেক খেলেছি। তবে তাদের অনেকের বিরুদ্ধে প্রথমবার টেস্ট খেলা অবশ্যই কিছুটা ভিন্ন হবে। আমি আগেই বলেছি তারা ওয়ানডেতে অনেক ভাল করেছে। আর সে কারণে আত্মবিশ্বাসটা টেস্ট ম্যাচেও কার্যকর ভূমিকা রাখবে। সুতরাং আমাদের কিছু পরিকল্পনা আছে। তবে সেটা কার্যকর করা প্রয়োজন এবং এই পরিকল্পনাগুলো কাজে লাগিয়ে ম্যাচ জেতার চেষ্টা করা।’ কিন্তু জয় পাওয়াটা সহজ হবে না। ফতুল্লায় বিগ স্কোরিং ম্যাচ আশা করছেন কোহলি। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমি বিশ্বাস করি তারা লড়াই ছুড়ে দেবে। পাকিস্তান অনেক ভাল দল ছিল। তারা অনেক রান করেছে এবং উইকেট নিয়েছে। টেস্ট ক্রিকেটেও ভাল অবদান রেখেছে। আমাদের চিন্তা করতে হবে আমরা কি করব। ডি ভিলিয়ার্স হোক কিংবা সাকিব আল হাসান অবশ্যই আমাদের প্রতি ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে ভাল বোলিং করতে হবে। সবাইকে নিজের কাজটাই করতে হবে। উইকেটে কোন ঘাস নেই এবং দেখে ভালই মনে হচ্ছে। হাইস্কোরিং একটা ম্যাচ প্রত্যাশা করতে পারেন আপনারা। আমি শুধু জানি যে ২০ উইকেট নিতে হবে টেস্ট ম্যাচ জেতার জন্য। ৫০০ রান পেতে হলে অন্তত ২-৩ ব্যাটসম্যানকে ভাল করতে হবে। তবে আমার পছন্দ ৬ ব্যাটসম্যান ও ৫ বোলার খেলানোর।’ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অতীতে দারুণ কিছু ইনিংস খেলেছেন কোহলি। তবে এবার অধিনায়ক হিসেবে তার মূল লক্ষ্য দলকে জয়ী করার জন্য বিশেষ কোন অবদান রাখা। এ বিষয়ে কোহলি বলেন, ‘বাংলাদেশে আমার কিছু বিশেষ ইনিংস আছে। ব্যাটিং কন্ডিশন এখানে বেশ ভাল। একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে সেটা অর্জন করতে হবে। এবার আমার দায়িত্বটা একটু ভিন্ন। ব্যক্তিগত পারফর্মেন্সের চেয়ে এখন আমাদের মাইন্ডসেট ম্যাচ জেতার। আমি দলের জন্য অবদান রাখতে চাই। কিন্তু আমার বেশি মনোযোগ থাকবে দলকে জয়ের পথে নেয়ার।’

প্রকাশিত : ১০ জুন ২০১৫

১০/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: