রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সংক্ষিপ্ত সংবাদ

প্রকাশিত : ৯ জুন ২০১৫

উৎসবে রঙিন বার্সিলোনা

ইউরোপের প্রথম ও একমাত্র দল হিসেবে দ্বিতীয়বার ঐতিহাসিক ‘ট্রেবল’ জয়ের কৃতিত্ব দেখিয়েছে বার্সিলোনা। গত শনিবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে জুভেন্টাসকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ইউরোপ সেরার মুকুট পুনরুদ্ধার করেছে কাতালানরা। এর আগে দলটি জয় করে স্প্যানিশ লা লিগা ও কোপা ডেলরের শিরোপা। দারুণ এই সাফল্যের পর রবিবার নিজেদের মাঠ ন্যুক্যাম্পে উৎসব করেছে বার্সিলোনা। ২০১৪-১৫ মৌসুমে জেতা তিনটি শিরোপা নিয়ে ছবি ওঠা বিজয়ী বীরেরা। এরপর খোলা বাসে করে হাজার হাজার ভক্ত-সমর্থকের ভালবাসার জবাব দেন লিওনেল মেসি, নেইমার, লুইস সুয়ারেজরা।

জাতীয় কাবাডির শিরোপা ঢাকা জেলার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘মিজান ফর্টিফাইড পাম অলিন আন্তঃজেলা ও জাতীয় কাবাডি প্রতিযোগিতা’র ঢাকা ভেন্যুর আঞ্চলিক পর্বের ফাইনাল খেলা সোমবার কাবাডি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনালে ঢাকা জেলা ৩টি লোনাসহ ৪০-২৪ পয়েন্টে কুমিল্লা জেলাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় এবং চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। এর আগে প্রথম সেমিফাইনালে ঢাকা জেলা ৪টি লোনাসহ ৬১-২৪ পয়েন্টে বরিশাল জেলাকে এবং দ্বিতীয় সেমিফাইনানে খেলায় কুমিল্লা জেলা ৪টি লোনাসহ ৫৩-৩৫ পয়েন্টে মুন্সীগঞ্জ জেলাকে হারিয়ে ফাইনালে উন্নীত হয়।

খেলা শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও বিজিত দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি এবং টুর্নামেন্ট কমিটির কো-চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন চৌধুরী পারভেজ । আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আন্তঃজেলার ৬ আঞ্চলিক পর্বের ৬ চ্যাম্পিয়ন দল এবং ঢাকা ভেন্যুর চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলসহ মোট ৮ দলকে নিয়ে আন্তঃজেলা চূড়ান্ত পর্বের খেলা কাবাডি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। দলগুলো যথাক্রমে : রাজশাহী, সিলেট, দিনাজপুর, টাঙ্গাইল, সাতক্ষীরা, যশোর, কুমিল্লা এবং ঢাকা জেলা ।

তবু পা মাটিতে রাখছেন ওয়ারিঙ্কা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জিতলেন স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা। রবিবার ফাইনালে টেনিস র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ তারকা নোভাক জোকোভিচকে হারিয়ে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা নিজের শোকেসে তোলেন তিনি। তিন ঘণ্টারও বেশি সময় লড়াইয়ের পর সার্বিয়ার জোকোভিচকে হারান সুইজারল্যান্ডের প্রতিভাবান এই খেলোয়াড়। এর ফলে বিশ্ব টেনিস র‌্যাংকিংয়েও উন্নতি ঘটে তার। মৌসুমের দ্বিতীয় গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের শিরোপা জেতায় র‌্যাংকিংয়ের সেরা চারে উঠে এলেন ৩০ বছর বয়সী ওয়ারিঙ্কা। মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের চ্যাম্পিয়ন নোভাক জোকোভিচ। যে কারণে ফেবারিটের তকমাটা গায়ে মেখেই ফ্রেঞ্চ ওপেনে কোর্টে নামেন সার্বিয়ান এই টেনিস তারকা। খেলেনও দুর্দান্ত। কোয়ার্টার ফাইনালে ক্লে কোর্টের রাজা রাফায়েল নাদালকে বিদায় করেন তিনি। সেমির লড়াইয়ে উড়িয়ে দেন ব্রিটিশ তারকা এ্যান্ডি মারেকে। কিন্তু ফাইনালের মঞ্চেই থেমে যায় তার জয়রথ। প্রথম সেট জিতে লড়াই দারুণভাবে শুরু করলেও শেষ পর্যন্ত পরাজয়কে সঙ্গী করে কোর্ট ছাড়তে হয় জোকোভিচকে। সেই সঙ্গে ক্যারিয়ার সøাম পূর্ণ করার দারুণ সুযোগও হাতছাড়া হয় তার। নোভাক জোকোভিচকে হারানোর পরই টেনিস বিশ্বে এখন আলোচিত নাম ওয়ারিঙ্কা। টেনিসের ‘বিগ ফোর’দের সঙ্গেও তুলনা করা হচ্ছে তাকে। টেনিস বিশ্বের ‘বিগ ফোর’ বলতেই কিংবদন্তি রজার ফেদেরার (১৭ গ্র্যান্ডসøাম), রাফায়েল নাদাল (১৪), নোভাক জোকোভিচ (৮) এবং এ্যান্ডি মারেকে (২) বোঝানো হয়। আর টেনিস বিশ্বের সেরা এই চার তারকার সঙ্গে তুলনা করা শুরু হয়ে গেছে স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কাকে। কিন্তু রোঁলা গ্যারোঁর চ্যাম্পিয়ন ওয়ারিঙ্কা তার পা মাটিতেই রাখছেন। এই জোয়াড়ে গা না ভাসিয়ে সুইস তারকা নিজেকে আরও উচ্চতায় নিয়ে যেতে চান। এ বিষয়ে দুটি গ্র্যান্ডসøামের মালিক ওয়ারিঙ্কা বলেন, তাদের মতো আমি তেমন ভাল খেলোয়াড় নই। তবে গ্র্যান্ডসøাম জেতার মতো যোগ্যতা আমার রয়েছে। আমি তাদের মেজর টুর্নামেন্টে পরাজিত করতে পারব। তাদেরকে সেমিফাইনালে কিংবা ফাইনালের মঞ্চেও পরাজয়ের স্বাদ উপহার দিতে পারব। কিন্তু এই কথাটা আবারও বলতে চাই যে, বিগ ফোর সব সময়ই বিগ ফোর। আমি তাদের সঙ্গে তুলনায় যেতে চাই না। আমি চাই নিজের আরও উন্নতি করতে। চাই পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে। আমি তাদের পরাজিত করতে চাই। এই স্বপ্নটা সবারই থাকে। আমি মনে করি তাদের হারানোর স্বপ্নটাই স্বাভাবিক। ক্যারিয়ারে ৮টি গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন নোভাক জোকোভিচ। যার পাঁচটিই আবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে। এছাড়া দুটি উইম্বল্ডন ও একটি ইউএস ওপেনে।

জুডোতে বাংলাদেশের জয়জয়কার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের জিমন্যাশিয়ামে চলছে বেগম ফজিলাতুন নেসা মুজিব আন্তর্জাতিক মার্শাল আর্ট। মিরপুর ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত জুডো ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ ১৯ স্বর্ণ, ১৯ রৌপ্য ও ২৩ তাম্রপদক পেয়ে। ১২-১৩ বছর বয়সী বালক কারাতে ইভেন্টে ব্যক্তিগত কাতায় স্বর্ণ জেতেন শ্রীলঙ্কার থিরু। রৌপ্য পান বাংলাদেশের তাসদিক। তাম্রপদক পান যুক্তরাষ্ট্রের প্রোটিয়া ডিএস ও ইমতিয়াজ।

বালিকা ৩০ কেজি প্লাস ওজন শ্রেণী কাতায় শ্রীলঙ্কার কালাথমি স্বর্ণ, যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ালিয়াত আর সিরাজ রৌপ্য, ভারতের সানজাল ও বাংলাদেশের ব্ল্যাক বেল্ট একাডেমি তাম্রপদক, বালক ১২-১৩ বছর বয়সী কারাতে কুমিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যায়া ডিএস চৌধুরী স্বর্ণ, বাংলাদেশের আফিফ রৌপ্য, যুক্তরাষ্ট্রের নিলে তাম্র, ভিয়েতনামের মার্শাল আর্ট ভবিনাম ইভেন্টে পুরুষ মাইনাস ৪৮ কেজি ওজন শ্রেণীতে সেনসাম উদ্দিন স্বর্ণ, বাংলাদেশের হেলাল উদ্দিন রৌপ্য ও হাবিবুল্লাহ এবং মোহাম্মদ বাবু তাম্রপদক লাভ করেন।

প্রকাশিত : ৯ জুন ২০১৫

০৯/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: