মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাহুলকে ছিটকে দিল অসুস্থতা

প্রকাশিত : ৮ জুন ২০১৫
  • ভারতের বাংলাদেশ সফর, ফতুল্লায় একমাত্র টেস্টে ওপেনিংয়ে মুরলি বিজয়ের সঙ্গী হবেন শিখর ধাওয়ান

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অসুস্থতার জন্য বাংলাদেশ সফরের দল থেকে ছিটকে গেলেন প্রতিভাবান ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল। কর্নাটকে জন্ম নেয়া ক্রিকেটার মূলত উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। কিন্তু লাইনআপে ঋদ্ধিমান সাহার মতো উইকেটরক্ষক থাকায় কেবল ব্যাটসম্যান হিসেবে জায়গা পেয়েছিলেন। গত অস্ট্রেলিয়া সফরের কথা অনেকের মনে আছে। সাদা পোশাকে অভিষেক সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে চমক দেখিয়েছিলেন রাহুল। বাংলাদেশ সফরে কোন রকম ঝুঁকি নিতে চাইছেন না ভারতীয় কর্তারা, একই কারণে তাই রাখা হয়নি তারকা পেসার মোহাম্মদ শামিকেও।

ইন্ডিয়ান ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সেক্রেটারি অনুরাগ ঠাকুর বলেন, ‘বাংলাদেশের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে কলকাতায় সবাই প্রস্তুত হচ্ছে। যেখানে ফিটনেসকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। রাহুল ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত। ডাক্তারের পরামর্শে ওকে দ্রুত ক্যাম্প ত্যাগের অনুমতি দেয়া হয়েছে। সফরটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই সুস্থতা প্রশ্নে এতটুকু ছাড় নয়। একই কারণে ফিট হয়ে ওঠার পথে থাকা শামিকেও রাখা হয়নি। এখনই রাহুলের বিকল্প নিয়ে ভাবছি না। কারণ নিয়মিত ওপেনার হিসেবে মুরলি বিজয় ও শিখর ধাওয়ান রয়েছে।’

২৩ বছর বয়সী প্রতিভাবান রাহুল ভারতের হয়ে অস্ট্রেলিয়া সফরে কেবল দুটি টেস্ট ম্যাচই খেলেছেন। মেলবোর্নে তৃতীয় টেস্টে অভিষেকে ৩ ও ১ রান করে ফিরলেও সিডনিতে শেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে দারুণ এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে চমক সৃষ্টি করেন। ওপেনিংয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ পজিশনে খেলেন ১১০ রানের চমৎকার ইনিংস। ম্যাচটি ড্র করে তার দল। ৩৪ প্রথম শ্রেণীর ম্যাচে ৯ সেঞ্চুরি ও ১১ হাফ সেঞ্চুরি করে ভারতীয় নির্বাচকদের নজর কাড়েন তিনি। মূলত ওপেনিংয়ে বিজয় ও ধায়ানের ‘ব্যাকআপ’ হিসেবে রাখা হয়েছিল রাহুলকে। কেউ খারাপ করলে, অথবা ইনজুরিতে পড়লে সুযোগ হতো। পাশাপাশি উইকেটকিপিংটা তার বাড়তি যোগ্যতা।

দারুণ অভিষেকের পর ঘরোয়া রঞ্জি ট্রফিতেও সাফল্যের ধারা অব্যাহত থাকে কর্নাটক তরুণের। ৯৩ গড়ে করেন ৮৩৮ রান। যার মধ্যে উত্তরপদেশের বিপক্ষে ফাইনালে ১৮৮ ছাড়া রয়েছে একটি ট্রিপল সেঞ্চুরির ইনিংসও। দুর্ভাগ্য ডেঙ্গু ছিটকে দিল তাকে। প্রথমে রবিবার আসার কথা থাকলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরে থাকায় একদিন পিছিয়ে আজ বাংলাদেশে আসছে ভারত ক্রিকেট দল। তার আগে কলকাতায় দিন তিনেক প্রস্তুতি ও ফিটনেস ট্রেনিংয়ে ঘাম ঝড়ায় বিরাট কোহলিরা। ইনজুরি থেকে অনেকটা সেরে ওঠা শামি পরশু সেখানে সতীর্থদের সঙ্গে দেখা করে গেছেন।

তবে আচমকাই বাংলাদেশ সফরে অস্থায়ী কোচের দায়িত্ব পাওয়া রবি শাস্ত্রী বলেছেন, সফরটি তাদের জন্য মহাগুরুত্বপূর্ণ তাই ‘শতভাগ ফিট নয়’ এমন কাউকেই দলের সঙ্গী করা হবে না। সুতরাং মোড়ল দেশটির বিশ্বকাপ-তারকাকে দেখার সুযোগ পাচ্ছেন না বাংলাদেশী ক্রিকেটপ্রেমীরা। বিরেন্দর শেবাগ-গৌতম গাম্ভীর উত্তর সময়ে ওপেনিংয়ে নিজের জায়গা অনেকটাই পোক্ত করে ফেলেছেন বিজয়। কিন্তু ওয়ানডেতে ধুরন্ধর ধাওয়ান টেস্টে এখনও নিজের সঙ্গে ঝুঝছেন। অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথম দুই টেস্টে চরম ব্যর্থতার পরই লোকেশকে সুযোগ করে দেয়া হয়েছিল। ব্রিসবেনে ৮১ রান ছাড়া বলার মতো স্কোর গড়তে পারেননি ধাওয়ান। সর্বশেষ হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছেন গত বছর ফেব্রুয়ারিতে, নিউজিল্যান্ড সফরে। তবু বাংলাদেশ সফরে বিজয়ের সঙ্গে ধাওয়ানও জ্বলে উঠবেন বলে আশাবাদী ভারতীয়রা। কারণ টেস্টে খারাপ করলেও বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ান এই হার্ডহিটার। অপ্রত্যাশিতভাবে ভারত যে সেমিতে জায়গা করে নেয়, সেখানে রাখেন গুরুত্বপূর্ণ অবদান। ৫১.৫০ গড়ে ৪১২ রান সংগ্রহ করেন ২৯ বছরের দিল্লী তারকা। যার মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি। চিরশত্রু পাকিস্তানকে হারানোর দিনে করেছিলেন ৭৩ রান। যদিও আইপিএলটা খুব একটা ভাল কাটেনি। তবে বাংলাদেশ সফরে বিশ্বকাপের ধারাবাহিকতা ধরে রাখবেন ধাওয়ান, এমন বিশ্বাস বস শাস্ত্রীর। আশাবাদী ধাওয়ান নিজেও।

প্রকাশিত : ৮ জুন ২০১৫

০৮/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: