কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিএফএফইএ‘র দাবি ॥ বিদ্যমান উৎসে কর বহাল রাখা

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫, ০৭:১৮ পি. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ প্রস্তাবিত বাজেটে উৎসে কর ১ শতাংশ নির্ধারনের ফলে দেশের চিংড়ি উৎপাদন ও রফতানিতে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড্স এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিএফএফইএ)। শতভাগ কৃষিভিত্তিক রফতানিখাত হওয়ায় এই শিল্পখাতের উন্নয়নের স্বার্থে প্রস্তাবিত বাজেটে বিদ্যমান শূন্য দশমিক ৬০ শতাংশ বহাল রাখার অনুরোধ করে সংগঠনটি।

রবিবার বিএফএফইএ‘র প্রেসিডেন্ট এস. এম. আমজাদ হোসেন এক বিবৃতিতে এসব দাবি করা হয়।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক মুদ্রা বাজারে ডলারের বিপরীতে ইউরো ও রুবল-এর অবমুল্যায়ন এবং চিংড়ি উৎপাদনকারী বিভিন্ন দেশ কম দামে বেনামী চিংড়ি বাজারজাত করায় আন্তর্জাতিক বাজারে বাংলাদেশের চিংড়ির রফতানি মূল্য ৫০ ভাগ হ্রাস পেয়েছে। এতে রফতানিকারকগণ মারাত্মক আর্থিক লোকসানে পড়েছে।

এই সংকট উত্তরনে সরকারের কাছে নগদ সহায়তা বৃদ্ধি, ব্যাংক প্রদত্ত চলতি মূলধন ঋণ ব্লক একাউন্টে স্থানান্তর এবং কর বৃদ্ধি না করারও অনুরোধ করেন তিনি।

আমজাদ হোসেন বলেন, এমন পরিস্থিতিতে ১ শতাংশ উৎসে করারোপ করলে হিমায়িত চিংড়ি ও মাছ রফতানিকারকদের অর্থনৈতিক সংকট আরও বৃদ্ধি পাবে। যা আগামীতে রফতানিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

তবে, বিবৃতিতে ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট বিনিয়োগ ও শিল্পবান্ধব এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতার প্রতীক বলে অভিহিত করেছে বিএফএফইএ। এ বাজেটের জন্য অর্থমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে এস. এম. আমজাদ হোসেন বলেন, প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়িত হলে দেশে ব্যাপক কর্মসংস্থান এবং উন্নয়নের মাধ্যমে অভ্যন্তরীন অর্থনীতির ভিত্তি আরও মজবুত হবে, যা ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্য আয়ের দেশ হতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে।

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫, ০৭:১৮ পি. এম.

০৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: