রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাউফলে সংখ্যালঘুর বাড়িতে হামলা,ভাংচুর ও লুটপাট

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫, ০৪:১৪ পি. এম.

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল ॥ বাউফলের নওমালা ইউনিয়নের নিজ বট কাজল গ্রামে শনিবার রাতে একটি সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় ৪ টি বাড়ির ১৭ টি ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৪ মহিলাসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে।

জানা গেছে, ঘটনার দিন সন্ধ্যায় স্থানীয় আশুরীরর হাটে একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সুরেন মাঝির সাথে একই গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে উজ্জল, বাবুল মীরের ছেলে আল-আমিন, নুরু মীরের ছেলে আবুল মীর ও সোবাহান মীরের ছেলে সবুজের তর্ক বিতর্ক হয়। এর জের ধরে রাত সারে ৯টার দিকে উজ্জল, আল-আমিন, আবুর মীর ও সবুজের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন ধারালো অস্ত্রসস্ত্র ও লাঠি সোঠা নিয়ে সংখ্যালঘু অধ্যুষিত সুরেন মাঝি, কালা চান মাঝি, শ্যামলহালদারও জগলুল হালদার বাড়িতে হামলা করে। এসময় তারা ওই ৪টি বাড়ির ১৭টি ঘরে (শ্যামল, বিপুল, নির্মল, গোপাল, সুরেন, জুগল, দিলিপ, অরুনী, লেদু নেপাল, কালাচান, নিত্য, সত্য শৈলেন, ভব রঞ্জন, গৌতম ও বিলাস) ভাংচুৃর করে এবং নগদ ৫ হাজার টাকা, দুই টি মোবাইলসহ মালামাল লুট করে।

এ সময় এলাপাতারি হামলায় আলো রানী (৪৫) রেনু বালা (৩৫) অঞ্জলী রানী (৩০), আলপনা রানী (১৮), ভব রঞ্জন (৫৫), সুন চন্দ্র (২৫), সবুজ চন্দ্র (২৮), গোপাল মাঝি (৫৪), সজল ভদ্র (২২) সহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত আলো রানী, ভব রঞ্জন ও সুমন চন্দ্রকে বাউফল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বাউফল থানার পুলিশ আজ রবিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বর্তমানে ওই সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলকায় আতংক বিরাজ করছে।

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫, ০৪:১৪ পি. এম.

০৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: