রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বরিশাল হাসপাতালে ভাংচুর

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫, ১২:৪৫ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ সড়ক দূর্ঘটনায় আহত যুবককে ডিজিটাল এক্সরে করানোর পরামর্শ দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে রোগীর স্বজনেরা হাসপাতালে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুরসহ আবাসিক মেডিকেল অফিসারকে রক্তাক্ত জখম করেছে। এ ঘটনায় শনিবার দিবাগত রাতে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

হামলায় আহত হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. বখতিয়ার আল মামুন জানান, শনিবার বিকেলে তিনি ডিউটিরত থাকাকালীন সময় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মানিক হাওলাদারকে ভর্তি করেন। চিকিৎসার সুবাধে রোগীকে ডিজিটাল এক্সরে করানোর জন্য তার স্বজনদের পরামর্শ দেন। স্বজনেরা সাধারন এক্সরে করার পর তিনি জানান, এক্সরে তেমন ভাল হয়নি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওইদিন সন্ধ্যায় রোগীর স্বজনেরা ডাক্তারের কক্ষে ঢুকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। একপর্যায়ে তারা ডা. বখতিয়ার আল মাকুনকে এলোপাথারী ভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এসময় হামলাকারীরা তার কক্ষের দরজা-জানালা, টেবিল-চেয়ার ও চিকিৎসা যন্ত্রপাতিসহ অন্যান্য আসবাবপত্র ব্যাপক ভাংচুর করে তাকে (ডাক্তারকে) তার কক্ষে দীর্ঘসময় অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম মিয়াসহ অন্যান্য কর্মচারীরা অবরুদ্ধ চিকিৎসককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে আহত ডা. মামুন বাদি হয়ে আগৈলঝাড়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে আগৈলঝাড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, পূর্ণরায় সন্ত্রাসী হামলার আশংকায় হাসপাতাল চত্বরে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান শুরু করেছেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫, ১২:৪৫ পি. এম.

০৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: