কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঢাকার সরকারী হাসপাতালের পরিচালকদের চিকিৎসা সেবা সন্তোষজনক রাখার নির্দেশ

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারী হাসপাতালের পরিচালকদের যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে চিকিৎসাসেবা সন্তোষজনক পর্যায়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, দায়িত্ব পালনে কোন অবহেলা ও অজুহাত সহ্য করা হবে না। সম্প্রতি রাজধানীর কয়েকটি সরকারী হাসপাতালে তাৎক্ষণিক পরিদর্শনে গিয়ে কিছু অব্যবস্থাপনার চিত্র লক্ষ্য করা গেছে।

চিকিৎসাসেবার মান বাড়াতে এবং সাধারণ মানুষের যথাযথ চিকিৎসাসেবা প্রাপ্তি নিশ্চিতকরণে বদ্ধপরিকর বর্তমান সরকার। সন্তোষজনক চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ রয়েছে। সেই লক্ষ্য পূরণ করতেই আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। শনিবার ঢাকা শহরে অবস্থিত সরকারী হাসপাতালের পরিচালক, সরকারী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ এবং সরকারী বিশেষায়িত হাসপাতালের পরিচালকদের সঙ্গে জরুরী মতবিনিময় সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ মাহমুদ হাসান ও মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ ইকবাল আর্সলান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ দীন মোঃ নুরুল হক প্রমুখ।

সম্প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বেশ কয়েকটি সরকারী হাসপাতাল তাৎক্ষণিক পরিদর্শন করেন। হাসপাতালসমূহের অব্যবস্থাপনা দেখে তিনি তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তারই প্রেক্ষিতে শনিবার সরকারী হাসপাতালের পরিচালকদের সঙ্গে জরুরী ভিত্তিতে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয় বলে মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে।

মতবিনিময় সভায় সরকারী হাসপাতালের পরিচালকদের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সীমিত সম্পদ দিয়ে বিপুল জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। তাই জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কোন ধরনের অনিয়ম ও অবহেলা মেনে নেয়া যায় না। দায়িত্ব পালনে অবহেলাকারীদের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে বিভিন্ন ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, যা সব সময় অব্যাহত থাকবে। চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ সব সময় পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। টয়লেট পরিষ্কার রাখার এবং রোগীর সঙ্গে থাকা স্বজনদের সংখ্যা কমিয়ে আনার উপায়সমূহ বের করতে হবে। হাসপাতাল ক্যাম্পাসে অবৈধ স্থাপনা গড়তে দেখলেই সেগুলো উচ্ছেদ করতে হবে। অবৈধ পথে ওষুধ চালানকারী হাসপাতালের কিছুসংখ্যক কর্মীকে ইতোমধ্যে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। সন্ধ্যাকালীন রাউন্ডে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক থাকার বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের সরকারী হাসপাতালগুলোতে সন্ধ্যাকালীন রাউন্ডে বিশেষজ্ঞ ও সিনিয়র চিকিৎসকদের উপস্থিতি নিশ্চিতকরণে উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিক পর্যায়ে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, মহাখালীর ক্যান্সার হাসপাতাল ও বক্ষব্যাধি হাসপাতালে এ ব্যবস্থা কার্যকর করার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। পর্যায়ক্রমে দেশের সব ক’টি সরকারী হাসপাতালে তা চালু করা হবে। এতে বিকাল ও সন্ধ্যায় ভর্তি হওয়া রোগীদের যথাযথ চিকিৎসাসেবা পাওয়ার মাত্রা বাড়বে বলে মনে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

প্রকাশিত : ৭ জুন ২০১৫

০৭/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: