আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এবার সম্রাজ্ঞীর মুকুট কার?

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্যারিয়ারজুড়েই ফ্রেঞ্চ ওপেনে তেমন সুবিধা করতে পারেননি বর্তমান টেনিস বিশ্বের সম্রাজ্ঞী সেরেনা উইলিয়ামস। ৩৩ বছর বয়সী এ মার্কিন কৃষ্ণকন্যা সর্বশেষ দুই বছর আগে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন মাত্র দ্বিতীয়বারের মতো। মর্যাদার গ্র্যান্ডসøামগুলোর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও ইউএস ওপেন ৬ বার করে এবং উইম্বলডন ৫ বার জিতলেও ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতেছেন মাত্র ২ বার। এবার ফরাসী ওপেনের শিরোপা পুনরুদ্ধারের লড়াই বিশ্বের এক নম্বর এই টেনিস তারকার। তার প্রতিপক্ষ চেকপ্রজাতন্ত্রের লুসি সাফারোভা এবারই প্রথম কোন গ্র্যান্ডসøামের ফাইনালে উঠেছেন। তার সামনে দারুণ সুযোগ শিরোপা জয়ের। সেক্ষেত্রে আজ ফাইনালের পরই জানা যাবে ফরাসী ওপেনে নতুন সম্রাজ্ঞীর দেখা পাওয়া যাবে, নাকি সেরেনা ফিরে পাবেন শিরোপা।

সাফারোভা এবার বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছেন চতুর্থ রাউন্ডেই। বিশ্বের ১৩ নম্বর এই টেনিস তারকা গত আসরের চ্যাম্পিয়ন এবং অন্যতম ফেবারিট রাশিয়ান কুইন ‘সুগারপোভা’ মারিয়া শারাপোভাকে হারিয়ে দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠেন। পরে সেমিফাইনালে কঠিন বাধা হিসেবে ছিলেন সার্বিয়ান তারকা আনা ইভানোভিচ। তবে ২৮ বছর বয়সী সাফারোভা সেই বাধাকেও টপকেছেন। বড় এ দুটি চ্যালেঞ্জ ছাড়া অবশ্য তেমন কোন বড় পরীক্ষা দিতে হয়নি তাকে। গত বছর সেরা সাফল্য হিসেবে উইম্বলডনের সেমিফাইনাল খেলেছিলেন। এছাড়া গ্র্যান্ডসøামে কখনই কোয়ার্টার ফাইনালের গ-ি পেরোতে পারেননি তিনি। তবে এবার নিজেকেই ছাড়িয়ে গেলেন। গত বছর থেকেই দুর্দান্ত ফর্মে আছেন এ চেক তারকা। ক্যারিয়ারের সেরা সাফল্য ইতোমধ্যেই পেয়ে গেছেন বলা চলে। কারণ মর্যাদার গ্র্যান্ডসøাম ফ্রেঞ্চ ওপেনের একটি শিরোপা অন্তত হাতে ওঠা নিশ্চিত হয়ে গেছে। হয় চ্যাম্পিয়ন অথবা রানার্সআপ। শিরোপা জেতার মতো যথেষ্ট সামর্থ্য রয়েছে, ইতোমধ্যেই তা প্রমাণ হয়ে গেছে। তবে প্রতিপক্ষ সেরেনা সবচেয়ে কঠিন বাধা। সেই বাধা ডিঙ্গাতে হবে এবার সাফারোভাকে। জিতে গেলেই ফ্রেঞ্চ ওপেনের নতুন সম্রাজ্ঞী হয়ে উঠবেন তিনি।

এবার ফ্রেঞ্চ ওপেনের শুরু থেকেই যাত্রাপথটা বেশ মসৃণ ছিল সেরেনার। বড় কোন পরীক্ষায় পড়তে হয়নি তাকে। অবশ্য তৃতীয় রাউন্ডে সাবেক বিশ্বসেরা ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা ও কোয়ার্টার ফাইনালে সারা ইরানি দাঁড়াতেই পারেননি সেরেনার গতির সামনে। এছাড়া ফাইনালে ওঠার পথে তেমন কষ্ট করতে হয়নি তাকে। এবার তার প্রতিপক্ষ অন্যতম চমক সাফারোভা। তবে প্রতিপক্ষের চেয়ে নিজেকে নিয়েই ভাবনা বেশি সেরেনার। পরিপূর্ণ ফিট অবস্থায় নিজেকে মেলে ধরতে পারবেন কিনা, সেটা নিয়েও আছে সংশয়। কারণ সেমিতে টিমিয়া বাসজিনস্কির মতো সহজ প্রতিপক্ষকে হারাতেও বেশ ঘাম ঝরেছে সেরেনার। সাফারোভাকে হারাতে হলে পুরোপুরি ফিট হয়ে উঠতে না পারলে অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটে যেতেই পারে। কারণ চলতি আসরে যেভাবে খেলেছেন চেক তারকা সেটা কোনভাবেই সহজ কোন লড়াইয়ের ইঙ্গিত দিচ্ছে না। অবশ্য অতীত পরিসংখ্যানটা সেরেনার পক্ষেই কথা বলছে। এর আগে সাফারোভাকে ৮ বার মোকাবেলা করেছেন, তবে একবারও জিততে পারেননি সাফারোভা। সর্বশেষ গত বছর বেজিংস ওপেনে অবশ্য সেরেনাকে বেশ বিপদে ফেললেও পরে নির্বিঘেœই জিতেছেন মার্কিন তারকা। এর মধ্যে একবারই মাত্র কোন আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছেন দু’জন। সেটা ২০১২ সালে চার্লসটন ওপেন। সে ম্যাচে ৬-০, ৬-১ ব্যবধানে সাফারোভাকে বিধ্বস্ত করেছিলেন সেরেনা। সে কারণে নিশ্চিতভাবেই এবারও সেরেনাই ফেবারিট থাকছেন আজকের ফাইনালে।

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫

০৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: