আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভারতে ম্যাগি নুডলস উৎপাদন ও বিক্রি নিষিদ্ধ

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫
  • মাত্রাতিরিক্ত এমএসজি ও সীসা থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছে নেসলে ইন্ডিয়া

ভারতের খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ন্ত্রক সংস্থা শুক্রবার নেসলের ম্যাগি ইনস্ট্যান্ট নুডলসের উৎপাদন ও বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। কয়েকটি রাজ্যে নমুনা পরীক্ষায় ম্যাগি নুডলসে মাত্রাতিরিক্ত মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট ও সিসার উপস্থিতি খুঁজে পাওয়ার পর এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ভারতের খাদ্য নিরাপত্তা ও মাননিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতের বাজার থেকে অনুমোদিত ৯ প্রকারের ম্যাগি ইনস্ট্যান্ট নুডলস তুলে নিতে এবং ফের এর উৎপাদন বন্ধে নেসলে ইন্ডিয়াকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। খবর এএফপি ও ওয়েবসাইটের।

এর আগে পাঁচ প্রদেশে নিষেধাজ্ঞা আসার পর পুরো ভারতের বাজার থেকে ম্যাগি ইনস্ট্যান্ট নুডলস প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নেসলে ইন্ডিয়া। তবে জনপ্রিয় এই নুডলসে গ্রহণযোগ্য মাত্রার বেশি সীসা ও মনো- সোডিয়াম গ্লুটামেট (এমএসজি) থাকার বিষয়টি অস্বীকার করে নেসলে বলেছে, শীঘ্রই তারা আবারও বাজারে ফিরে আসবে। পাশের দেশ নেপালেও অনির্দিষ্টকালের জন্য ম্যাগি নুডলস আমদানি ও বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তবে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউট (বিএসটিআই) বলছে, তারা দেশের বাজারে থাকা ম্যাগি নুডলস পরীক্ষা করে ক্ষতিকর কিছু পায়নি। ভারতের বাজারে বছরে দেড় হাজার কোটি রুপীর নুডলস বিক্রি করে নেসলে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের বাজারে বিক্রি হওয়া নুডলসের ৮০ শতাংশই ম্যাগি। পরিস্থিতি এমন যে, ভাত আর ডালের পর ম্যাগিই যেন ভারতীয়দের তৃতীয় প্রধান খাদ্য হয়ে উঠেছে। ভারতের উত্তর প্রদেশের খাদ্য নিরাপত্তা ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) পরীক্ষায় নেসলে ইন্ডিয়ার তৈরি নুডলসে উচ্চমাত্রার সীসা পাওয়ার পর গত ২০ মে পণ্যটি বাজার থেকে সরানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

এফডিএ’র পরীক্ষায় ওই লুডলসে ১৭ দশমিক ২ পিপিএম সীসা পাওয়া যায়, যা অনুমোদিত মাত্রার চেয়ে সাতগুণ বেশি। ভারতে শূন্য দশমিক শূন্য ১ পিপিএম থেকে ২ দশমিক ৫ পিপিএম পর্যন্ত সীসার উপস্থিতি গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচনা করা হয়। এছাড়া স্বাদবর্ধক মনোসোডিয়াম গ্লুটামেটের মাত্রাও বেশি ছিল বলে এফডিএ কর্মকর্তারা জানান। এরপর এফডিএর পক্ষ থেকে নেসলে ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়। ম্যাগি নুডলসের পণ্যের প্রচারে অংশ নেয়ায় বলিউড তারকা মাধুরী দীক্ষিত, অমিতাভ বচ্চন ও প্রিটি জিনটার বিরুদ্ধে আলাদা মামলা হয়েছে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার দিল্লী, উত্তরখান্ড, গুজরাট, তামিল নাড়ু এবং জম্মু ও কাশ্মীরেও ক্ষতিকর মাত্রায় সীসা পাওয়ার কথা জানিয়ে ম্যাগি বিক্রির ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

এরপর বাজার থেকে ম্যাগি সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়ে নেলসে ইন্ডিয়ার এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ম্যাগি নুডলস পুরোপুরি নিরাপদ। কিন্তু সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহে ক্রেতাদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি হওয়ায় আমরা আপাতত পণ্যটি সরিয়ে নিচ্ছি।’ এই বিতর্কের ‘সুরাহা হওয়ার পর’ শীঘ্রই ম্যাগি আবার ‘বাজারে ফিরবে’ বলেও নেসলের বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

প্রকাশিত : ৬ জুন ২০১৫

০৬/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: