মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

’কার বাজেট, কে দেয়’: মঈন খান

প্রকাশিত : ৫ জুন ২০১৫, ০৬:৩১ পি. এম.

অনলাইন রিপোর্টার॥প্রস্তাবিত নতুন অর্থবছরের বাজেটকে ‘ভুয়া’ আখ্যায়িত করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান বলেছেন বর্তমান সরকারের এই বাজেট প্রণয়নের অধিকার নেই।

শুক্রবার সকালে রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, “আমি বাজেট নিয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। শুধু এইটুকু বলব- কার বাজেট কে দেয়? আজকে যারা বাজেট দিচ্ছেন, তারা কি জনগণের প্রতিনিধি? তাদের বাজেট দেওয়ার কোনো অধিকার নেই।

এই বাজেট নিয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে কথা বলার কোনো প্রয়োজনীয়তা নেই বলেও মন্তব্য করেন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সাবেক পরিকল্পনামন্ত্রী।

মঈন খান বলেন, “আমরা স্পষ্টভাষায় বলতে চাই- আজ থেকে দেড় বছর আগে ৫ জানুয়ারি একটি ভুয়া নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ভুয়া সংসদ গঠিত হয়েছিল। সেই ভুয়া সংসদ কর্তৃক একটি ভুয়া সরকার হয়েছিল। ওই ভুয়া সরকার কর্তৃক গতকাল যে বাজেট দেওয়া হয়েছে, তা ভুয়া বাজেট ছাড়া আর কিছু নয়।”

জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে জিয়াউর রহমানের ৩৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘শহীদ জিয়ার আদর্শে গড়তে হবে ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ’ শীর্ষক এই আলোচনা সভা হয়।

মঈন খান বলেন, দুর্নীতিতে আপাদমস্তক ডুবে গেছে এই সরকার। রাজধানীতে বড় বড় প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। অথচ ঢাকাবাসীর শতকরা ৮০ ভাগ মানুষ যারা গ্রামে বাস করেন, তারা আজ অবহেলিত।

“আপনারা দেখান গতকালের বাজেটে সেই গ্রামের অবহেলিত মানুষের জন্য, দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য একটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। আমাকে আপনারা দেখান।”

‘উন্নয়নের জন্য গণতন্ত্রের কোনো প্রয়োজন নেই’ বলে ক্ষমতাসীনদের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, “এটা হতে পারে না। সুশাসন, মানবাধিকার ও মানুষের কথা বলার অধিকার ছাড়া কোনো উন্নয়ন টেকসই হতে পারে না। এটাই হচ্ছে পৃথিবীর অকাট্য সত্য।

জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের সভাপতি শামা ওবায়েদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে যুব দল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাৎ, কেন্দ্রীয় নেতা আবুল হোসেন ও সাদেক আহমেদ খান বক্তব্য রাখেন।

প্রকাশিত : ৫ জুন ২০১৫, ০৬:৩১ পি. এম.

০৫/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: