মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জার্মানি সামর্থ্য রাখে বিশ্বকাপ জেতার

প্রকাশিত : ৫ জুন ২০১৫
জার্মানি সামর্থ্য রাখে বিশ্বকাপ জেতার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মহিলা ফুটবলে জার্মানির জন্য সবচেয়ে কার্যকর ও ভিন্ন মাত্রার ফুটবলার কে? পর্যালোচনার তেমন প্রয়োজন নেই। কারণ বর্তমানে ক্লাব এবং জাতীয় দল উভয়ক্ষেত্রেই ফর্মের তুঙ্গে আছেন একজনমাত্র ফুটবলার। তিনি ২৬ বছর বয়সী স্ট্রাইকার সেলিয়া সাসিচ। একের পর এক গোল করে যাচ্ছেন সাসিচ তাঁর ক্লাব এফএফসি ফ্র্যাঙ্কফুর্ট ও জাতীয় দলের হয়ে। তিনি বুন্দেসলিগা এবং উয়েফা মহিলা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলের শীর্ষ গোলদাতা ছিলেন গত মৌসুমে। ফ্র্যাঙ্কফুর্টের হয়ে ২১ গোল করেছেন এবার মৌসুমে আর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ১৪। এ কারণে এবার বিশ্বকাপে জার্মান আক্রমণভাগের অন্যতম সেরা শক্তি হিসেবে মনে করা হচ্ছে সাসিচকে। জার্মান মহিলা ফুটবল দলের কোচ সিলভিয়া নেইডও পূর্র্ণ আস্থা রাখছেন তার ওপর। সাসিচ নিজেও বিশ্বকাপের মতো বড় ইভেন্টে অংশ নিতে পেরে দারুণ সন্তুষ্ট। তিনি মনে করেন বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করা সবসময়ই অনেক বড় বিষয়। এবার কানাডায় নিজেদের বিশ্বকাপ পুনরুদ্ধারের মিশন জার্মানির মেয়েদের। দু’বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। কিন্তু ২০০৭ সালে সর্বশেষ শিরোপা জয়ের পর গতবার (২০১১) নিজেদের মাঠে খেলেও ব্যর্থ হয়েছে জার্মান মেয়েরা। এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন আরও বিষয়ে-

প্রশ্ন ॥ বিশ্বকাপে খেলা নিয়ে কোন স্নায়ুচাপ কিংবা উত্তেজনা বোধ করছেন?

সাসিচ ॥ বাস্তব কথা হচ্ছে এটা বেশ ধীরে ধীরে বাড়ছে। আমরা এতদিন ম্যাচের মধ্যেই ছিলাম এবং খুব একটা বিশ্বকাপ আমেজটা বোঝার সুযোগ পাইনি। সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচটি আমাদের জন্য ড্রেস রিহার্সেল ছিল। বিশ্বকাপ নিয়ে আলাদা করে ভাবার সময় না পেলেও যে কোন টুর্নামেন্ট খেলার আগেই আমরা খুব উত্তেজনা এবং স্নায়ুচাপ অনুভব করি।

প্রশ্ন ॥ এবার বিশ্বকাপে কি প্রত্যাশা নিয়ে যাচ্ছেন আপনারা?

সাসিচ ॥ আমরা আসলে নিজেদের সেরা নৈপুণ্য প্রদর্শনের তীব্র ইচ্ছা নিয়ে যাচ্ছি। এক ম্যাচের চেয়ে পরের ম্যাচে আমরা আরও ভাল করতে চাই এবং মাঠে নিজেদের সামর্থ্য দেখাতে চাই। আমি মনে করি যদি সেটা করা সম্ভব হয় সেক্ষেত্রে আমাদের অনেক কিছুই করার প্রচুর সম্ভাবনা আছে। ফুটবলের ক্ষেত্রে বিশ্বকাপে খেলাটা অনেক বড় বিষয়। এ কারণে এখানে আসতে পেরে আমরা খুবই গর্বিত এবং প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে চাই।

প্রশ্ন ॥ দলের প্রস্তুতি নিয়ে আপনি কতটা সন্তুষ্ট?

সাসিচ ॥ আমাদের প্রস্তুতি যদিও খুব কম সময়ের জন্য ছিল। কিন্তু আমরা এজন্য গত এক বছর ধরেই কাজ করে যাচ্ছি। বিশেষ করে আলগার্ভ কাপের মধ্য দিয়ে আমাদের প্রচুর সুযোগ হয়েছে নিজেদের গুছিয়ে নেয়ার। এছাড়া বর্তমান অনুশীলনেও আমরা বেশ ভাল উন্নতি করেছি এবং ভুলগুলো শুধরে নিচ্ছি। সর্বশেষ প্রস্তুতি ম্যাচে আমরা সুইজারল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়েছি। আমরা অনেক ভাল দল সেটা আমরা বোঝাতে সক্ষম হয়েছি। এটা বিশ্বকাপে আমাদের কাজে লাগবে।

প্রশ্ন ॥ জার্মানরা সবসময় শিরোপার ফেবারিট থাকে। আপনি কি মনে করেন এবার বিশ্বকাপ জয়ের সামর্থ্য আছে জার্মানির?

সাসিচ ॥ অবশ্যই যা করার প্রয়োজন সেটার সবই আমরা পেয়েছি। তবে আরও অনেক দলই আছে যাদেরই এই সামর্থ্য রয়েছে। যেহেতু এটা বিশ্বকাপ আসর সে কারণে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ রয়েছে এখানে। যে সামর্থ্য, যোগ্যতা এবং গুণাবলী রয়েছে দলের মধ্যে সেটার ওপর কোনভাবেই আপনারা পুরোটা সময় আস্থা রেখে সেরা সাফল্য পাওয়ার চিন্তা করতে পারেন না। এখানে দীর্ঘ এক মাস নিজেকে প্রমাণের পরীক্ষাটা খুব ভালভাবে দিতে হবে।

প্রকাশিত : ৫ জুন ২০১৫

০৫/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: