কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বজ্রপাতে দুই শিশুসহ ৭ জন নিহত

প্রকাশিত : ৪ জুন ২০১৫
  • দৌলতপুর, ঈশ্বরদী, কিশোরগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ মঙ্গলবার বজ্রপাতের কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে দুই নারীসহ ৩, ঈশ্বরদীতে ২ শিশু, কিশোরগঞ্জে কৃষক ও মুন্সীগঞ্জে ট্রলার চালক নিহত হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো-

কুষ্টিয়া ॥ দৌলতপুরে বজ্রপাতে দুই নারীসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে ১ জন। মঙ্গলবার রাতে বজ্রপাতে হতাহতের এ সকল ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের জয়ভোগা পালপাড়া গ্রামের হযরত আলীর ছেলে লিটন রেজা (২২), রিফায়েতপুর ইউনিয়নের লক্ষ্মীখোলা গ্রামের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী হাজেরা খাতুন ওরফে টুকিলা (২৫) ও দৌলতপুর ইউনিয়নের চুয়ামল্লিকপাড়া গ্রামের ভাষাণ আলীর স্ত্রী নাজনীন আক্তার (২৪)। এ সময় আহত হয়েছে টুকিলার স্বামী শহিদুল ইসলাম (৩০)।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাত ৭টার দিকে দৌলতপুরে বজ্রপাত হয়। এ সময় জয়ভোগা পালপাড়া গ্রামের লিটন রেজা নিজবাড়িতে মোবাইল ফোনে গান শোনার সময় তার মৃত্যু হয়। একই সময় লক্ষ্মীখোলা গ্রামের হাজেরা খাতুন টুকিলা ও তার স্বামী শহিদুল ইসলাম বাড়ির পাশে শাকের ক্ষেতে জমে থাকা পানি বের করার সময় বজ্রপাত ঘটলে হাজেরা খাতুন টুকিলার মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হয় স্বামী শহিদুল ইসলাম। সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অপরদিকে চুয়ামল্লিককপাড়া গ্রামের ভাষাণ আলীর স্ত্রী নাজনীন আক্তার নিজবাড়ির রান্নাঘরে কাজ করা অবস্থায় বজ্রপাত ঘটলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

ঈশ্বরদী ॥ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঈশ্বরদীর পাকশী ইউনিয়নের বিবিসি বাজার সংলগ্ন বিসুতলায় বজ্রপাতে সিয়াম ( ৮) ও সবুজের (৯) মৃত্যু হয়েছে। একই সময় নিপা ও প্রান্ত নামের দু’জন শিশু আহত হয়েছে।

আহতদের ঈশ্বরদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত সিয়াম বিশতলা এলাকার রেজাউল ইসলাম ও সবুজ শ্রী স্বপন কুমার ক-ুর ছেলে।

কিশোরগঞ্জ ॥ পাকুন্দিয়া পৌরসভার চিরামদীতে মঙ্গলবার দুপুরে জমিতে ধান কাটতে গিয়ে বজ্রপাতে মেহের উদ্দিন (২৮) নামে কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আরও ৩ কৃষক ও একই সময় তারাকান্দি এলাকায় এক গৃহবধূ আহত হয়েছে। নিহত মেহেরউদ্দিন উপজেলার পাটুয়াভাঙ্গা কলাদিয়া গ্রামের মৃত আঃ খালেকের ছেলে।

মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জে বজ্রপাতে সামসুল (৪৩) নামে এক ট্রলারচালক (মাঝি) নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেলে মালখানগর ইউনিয়নের তালতলাবাজার বরাবর ইছামতি নদীতে ট্রলার চালানোর সময় বজ্রপাতে তিনি নিহত হন।

আশুলিয়ায় চাঁদা না পেয়ে ১৫ জনকে কুপিয়ে জখম

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ৩ জুন ॥ চাঁদা না পেয়ে আশুলিয়ায় একই পরিবারের ১০ জনসহ ১৫ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা।

বুধবার সকালে আশুলিয়া থানাধীন আউকপাড়া আদর্শ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সকালে আউকপাড়া আদর্শ গ্রামের কৃষক রতন মিয়ার বাড়িতে এসে তার কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে স্থানীয় একটি সন্ত্রাসী চক্র। এ সময় রতন মিয়া চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে সন্ত্রাসীরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে।

তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা তার স্ত্রী রহিমা, ছেলে আব্দুল্লাহ, রাজু, রিয়াজ, রাসেল, রেশমাসহ ১০ জনকে কুপিয়ে আহত করে।

প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে আরও ৫ জনকে কুপিয়ে আহত করে। এরপর সন্ত্রাসীরা বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে লুটপাট ও ভাংচুর করে এবং এলাকায় কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে পালিয়ে যায়।

প্রকাশিত : ৪ জুন ২০১৫

০৪/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: