হালকা কুয়াশা, তাপমাত্রা ১৮.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফিফা সভাপতি পদ থেকে ব্লাটারের পদত্যাগ

প্রকাশিত : ৪ জুন ২০১৫
ফিফা সভাপতি পদ থেকে ব্লাটারের পদত্যাগ
  • ‘ফিফা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের রেড এ্যালার্ট’

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সীমাহীন দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগের মধ্য দিয়েই টালমাটাল ফিফায় পঞ্চমবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন সেপ ব্লাটার। কিন্তু নবনির্বাচিত হওয়ার পর যেন সুইস এই ফুটবল কর্তাকে বিতর্ক আরও ঘিরে ধরে। যে কারণে মঙ্গলবার ফিফা সভাপতি পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন ৭৯ বছর বয়সী ব্লাটার। টানা পঞ্চমবারের মতো ফিফার মসনদে আসীন হওয়ার চারদিনের মধ্যে তিনি এ ঘোষণা দিলেন।

নিজেকে সরিয়ে নেয়ার পর ব্লাটার যত দ্রুত সম্ভব নতুন সভাপতি নির্বাচনের জন্য বিশেষ ফিফা কংগ্রেস ডেকেছেন। নির্বাচনের দুই দিন আগে দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নয় শীর্ষ কর্মকর্তাসহ মোট ১৪ জনকে আটক করে সুইস পুলিশ। পদত্যাগ প্রসঙ্গে জানাতে গিয়ে ব্লাটার বলেন, আমি ফিফা ও এর স্বার্থগুলোর সঙ্গে খুব ভালভাবে জড়িত। এগুলো আমার খুব কাছের। এ জন্যই আমি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার কাছে ফিফা ও বিশ্বজুড়ে ফুটবল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। জোয়াও হ্যাভেলাঞ্জের উত্তরসূরি হিসেবে ১৯৯৮ সালে ফিফা প্রধান হন ব্লাটার। চার দশক ধরে বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থায় কাজ করার পর অবশেষে সরে দাঁড়িয়েছেন এই সুইস। বিদায়বেলায় তিনি বলেন, ফিফা প্রধান আর আমার জীবনের ৪০টা বছর ফিফায় কাটানো সময়টা নিয়ে আমি গভীরভাবে ভেবেছি। ফিফাকে আমি যেকোনো কিছুর চাইতে বেশি ভালোবাসি। আমি এর ভালো চাই। ফুটবলের ভালোর জন্যই আমি আরেক মেয়াদে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলাম। কিন্তু সবাই আমাকে সমর্থন দেয়নি। ১৯৯৮ সাল থেকে ফিফার সভাপতি ব্লাটার জানান, পরের ফিফার সাধারণ কংগ্রেস হবে মেক্সিকো সিটিতে আগামী বছরের ১৩ মে। তাই ফিফার নির্বাহী কমিটিকে যত দ্রুত সম্ভব বিশেষ কংগ্রেস ডাকার অনুরোধ জানাব। বিশেষ এই কংগ্রেস বসতে পারে আগামী ডিসেম্বর থেকে আগামী বছরের মার্চের মধ্যে।

ইউরোপীয় ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফার সভাপতি মিশেল প্লাতিনি ব্লাটারকে নির্বাচনে না দাঁড়াতে অনুরোধ করেছিলেন। ব্লাটার পদত্যাগ করার পর তিনি বলেন, এটি একটি সাহসী সিদ্ধান্ত। অবশ্যই এই সিদ্ধান্তটি ব্লাটারের জন্য নেয়া কঠিন ছিল। কিন্তু সিদ্ধান্তটি পরিস্থিতির বিচারে একেবারেই সঠিক। ইংলিশ ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও ফিফায় ব্লাটটারের সবচেয়ে কড়া সমালোচক গ্রেগ ডাইক বলেন, আমি বিশ্বাস করি ফিফার সভাপতির পদটি আঁকড়ে ধরে রাখার কোন নৈতিক অধিকারই ব্লাটারের ছিল না। গত শুক্রবার প্রথম দফা নির্বাচনের পর একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী জর্দানের যুবরাজ আলি বিন আল-হুসেইন সরে দাঁড়ালে ফের ফিফা সভাপতি হন ব্লাটার। প্রথম দফা ভোটে নির্বাচিত হতে দুই-তৃতীয়াংশ ভোট প্রয়োজন ছিল। জুরিখে নির্বাচনে ভোট পড়ে ২০৯টি, এর মধ্যে বাতিল হয় তিনটি ভোট। ব্লাটার পান ১৩৩ ও আল-হুসেইন পান ৭৩ ভোট।

পদত্যাগের ঘোষণা দিলেও রেহাই পাচ্ছেন না ব্লাটার। ফিফার দুর্নীতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষের তদন্তের আওতায় সংস্থাটির সভাপতিও আছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম। মঙ্গলবার ব্লাটারের ফিফা সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই খবরটি আসে। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা গত সপ্তাহে ফিফার দুর্নীতি নিয়ে ফৌজদারি তদন্ত শুরু করে। ১৪ জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনার পর সুইজারল্যান্ডে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নয় শীর্ষ কর্মকর্তাকে আটক করা হয়। নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, তারা ব্লাটারের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দাঁড় করাতে অবৈধভাবে অর্থ উপার্জন আর অর্থ পাচারের দায়ে অভিযুক্ত ফিফার কর্মকর্তাদের সহায়তা পাবেন বলে আশা করছেন। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ জানায়, ২৪ বছরের বেশি সময় ধরে ১৫ কোটি ডলারের বেশি ঘুষ নেয়ার অভিযোগে ১৪ ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

তদন্তে দোষী হলে ব্লাটারও আটক হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

প্রকাশিত : ৪ জুন ২০১৫

০৪/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: