আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দাড়ি রাখায় চাকরি গেল!

প্রকাশিত : ৩ জুন ২০১৫, ০৬:০৫ পি. এম.

অনলাইন ডেস্ক ॥ সাত বছর ধরে কলকাতার একটি বেসরকারি সংস্থায় উচ্চপদে কর্মরত ছিলেন পিকনিক গার্ডেনের বাসিন্দা মহম্মদ আলি ইসমাইল। এইসময় সংস্থার হয়ে এককাধিকবার কোম্পানির কাজে বিদেশেও গিয়েছিলেন তিনি। গত বছর হজ করতে যান ইসমাইল। অভিযোগ, তারপরই সবকিছু বদলে যায়। ২০১৪ সেপ্টেম্বর মাস থেকে আচমকাই তাঁর বেতন বন্ধ করে দেওয়া হয়। চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে তাঁকে অফিসে আসতেও নিষেধ করা হয় বলে দাবি করেন ইসমাইল। এরপর জুনের ১৭ তারিখ বকেয়া বেতন চাইতে, দক্ষিণ কলকাতায় সংস্থার দপ্তরে যান তিনি। আর তখনই তাঁকে অফিস থেকে বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ইসমাইলের। খবর জি নিউজের।

যে সংস্থায় গত সাত বছর ধরে তিনি কাজ করতেন, হঠাৎই সেখান থেকে এহেন ব্যবহার পেয়ে মানসিকভাবে খুব আঘাত পান ইসমাইল। এরপর বালিগঞ্জ থানায় যান ইসমাইল। অভিযোগ, কর্তব্যরত পুলিশ অফিসার কোনো এফআইআর না নিয়ে, তাঁকে নিয়ে নিজেই চলে যান ওই সংস্থায়।

তারপর? এফআইআর নেওয়া তো দুরস্ত। ইসমাইলের অভিযোগ, কর্তব্যরত পুলিশ অফিসার তাঁকে জোর করে মালিক পক্ষের সঙ্গে মধ্যস্থতা করার পরামর্শ দেন। শুধু পরামর্শই নয়। অভিযোগ, জোর করে একপ্রকার তাঁকে মধ্যস্থতা করতে বাধ্য করা হয়।

গোটা ঘটনায় ভীষণ ভাবে ভেঙে পড়েছেন পিকনিক গার্ডেনের এই বাসিন্দা। তাঁর অভিযোগ, স্রেফ দাড়ি রাখার কারণে যদি তাঁকে কোনো সংস্থা থেকে সন্ত্রাবাদী তকমা দিয়ে বের করে দেওয়া হয়, তাহলে আগামী দিনে তিনি যদি নিজে থেকে কোনো ব্যবসা শুরু করেন, তখনও কি বাধা আসবে না?

প্রকাশিত : ৩ জুন ২০১৫, ০৬:০৫ পি. এম.

০৩/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: