মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

স্ট্রিট আর্ট

প্রকাশিত : ২ জুন ২০১৫

স্ট্রিট আর্ট হলো দৃশ্যমান চিত্রকলা, যা পাবলিক প্লেস অর্থাৎ সড়ক, দেয়াল কিংবা ফ্লাইওভারে চিত্রায়িত হয়। মিউজিয়াম ও প্রদর্শনীর চিরায়িত নিয়ম ভেঙ্গে সাধারণ মানুষদের দৃষ্টিগোচর করার লক্ষ্যে তা পাবলিক প্লেসে স্থান পায়। গ্রাফিত্তির নতুন সংস্করণ হলো স্ট্রিট আর্ট। স্ট্রিট আর্ট সাধারণত রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রেক্ষাপট কেন্দ্রিক এবং তার ভাষা সরাসরি সাধারণ নাগরিকদের সম্পৃক্ত করে। এ ধরনের শিল্প বিক্রয় কিংবা অতীতের শিল্পকর্মের মতো মিউজিয়ামে বন্দী নয়। বরং তার আবেদন ছুয়ে যায় সব শ্রেণী পেশার মানুষদের। স্ট্রিট আর্টের মূল উপজীব্য রাজনৈতিক পরিভাষা। তবে স্ট্রিট আর্টিস্টরা সামাজিক বিষয়ও অত্যন্ত নিপুণ হাতে চিত্রায়িত করেন। স্ট্রিট আর্টিস্টরা এ ধরনের গ্রাফিত্তি চিত্রায়িত করে বিভিন্ন দেশেও ভ্রমণ করেন। উদাহরণ হিসেবে বাঙ্কসির প্রসঙ্গটি উল্লেখ করা যায়। ব্রিটিশ এ স্বনামধন্য স্ট্রিট আর্টিস্ট কিছুদিন আগে গাজা উপত্যকায় ভ্রমণ করেছিলেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত গাজায় বাঙ্কসি বেশকিছু রাজনীতিক ও সামাজিক প্রেক্ষাপটের গ্রাফিত্তি অঙ্কর করেন।

স্ট্রিট আর্টিস্টরা প্রথাগত আর্ট ওয়ার্কের বিরোধী। তাদের ভাষায় শিল্পকর্ম মিউজিয়াম কিংবা প্রদর্শনীতে প্রদর্শনের বিষয় নয়। বরং প্রতিদিনকার জীবনযাত্রায় সাধারণ মানুষ তাদের শিল্পকর্ম উপভোগ করুক, এ তাদের প্রত্যাশা। এছাড়া সামাজিক ও রাজনৈতিক যে বিষয় তারা তুলে ধরতে চায়, সাধারণ মানুষ যেন সে ভাষা উপভোগ ও অনুধাবন করতে পাবে, এটাই তাদের প্রচেষ্টা। বিশ্বের অধিকাংশ স্ট্রিট আর্টিস্ট নিজেদের পরিচয় গোপন করেন। কেবল ছদ্ম নামের ব্যানারে চিত্রায়িত করেন নিজেদের শিল্পকর্ম। অবাক বিষয় কোন বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যেও তারা কখনও কোন গ্রাফিত্তি অঙ্কন করেন না। স্ট্রিট আর্ট এবং গ্রাফিত্তির পার্থক্য হলো- স্ট্রিট আর্ট কেবল স্প্রে কিংবা এরাসল পেইন্ট দিয়ে অঙ্কন করা হয় না। এলইডি আর্ট, মূরাল, স্টিকার আর্ট, টেনসিল আর্ট, স্ট্রিট স্কাল্পচার সব কিছুর সমন্বয়ে এই শিল্প তৈরি করা হয়।

ডি-প্রজন্ম ডেস্ক

প্রকাশিত : ২ জুন ২০১৫

০২/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: