কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আইটি আইকন

প্রকাশিত : ২ জুন ২০১৫

মাইক্রোসফট কোম্পানির প্রধান নির্বাহী সাত্যয়া নাদেলা বর্তমান বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী আইটি আইকন। টাইম ম্যাগাজিনের প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় তাঁর অবস্থান ছিল অন্যতম। সম্প্রতি জুনিপার রিচার্সও প্রযুক্তি খাতের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের নিয়ে একটি তালিকা প্রকাশ করে। সে তালিকার প্রথম নামটিও সাত্যয়া নাদেলা যিনি বর্তমান সময়ে উইনডোজ বাজারজাতকরণে প্রধান ভূমিকা পালন করেছেন। তালিকায় সাত্যয়া নাদেলার পর যথাক্রমে এ্যাপল কোম্পানির চীফ ডিজাইন অফিস সার জনি ইভ, রেজর কোম্পানির প্রধান নির্বাহী মিন লিয়াং টানসহ আরও অনেকে স্থান পান। জুনিপার রিসার্সের এমন তালিকা তৈরির ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিষয় বিবেচনায় রাখে। ব্যক্তির ভিশন (দৃষ্টি) ইনোভেশন (উদ্ভাবন) এবং ব্যক্তির নিজস্ব ক্ষমতাসহ নানা বিষয়। সাত্যয়া নাদেলা তালিকায় প্রথম হওয়ার কারণ মাইক্রোসফট কোম্পানিতে তার কিছু মৌলিক নীতির বাস্তবায়ন। এমন পরিবর্তন মাইক্রোসফট কোম্পানিকে পুনরায় লাভজনক প্রতিষ্ঠানে ফিরিয়ে আনে, যার পুরো কৃতিত্ব সাত্যয়া নাদেলার। এ্যাপল কোম্পানির চীফ ডিজাইন অফিসার জনি ইভ এ্যাপলের বেশকিছু আইকনিক পণ্যের ডিজাইনার। ম্যাক বুক, আইপড, আইপ্যাড এবং এ্যাপল ওয়াচের মতো পণ্যের ডিজাইন তাঁকে পরিণত করেছে বর্তমান সময়ের অন্যতম আইটি আইকনে।

সাত্যয়া নাদেলা

সাত্যয়া নাদেলা একজন ভারতীয় আমেরিকান। ভারতের হায়দ্রাবাদ রাজ্যে তার জন্ম। পিতা ছিলেন একজন সরকারী কর্মকর্তা। সাত্যয়া নাদেলা ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক শেষ করে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে একই বিষয়ে এমএস এবং পরবর্তীতে এমবিএ ডিগ্রী অর্জন করেন সত্যয়া। সান মাইক্রো সিস্টেমে ক্যারিয়ার শুরু করা সাত্যয়া ১৯৯২ সালে মাইক্রোসফটে যোগ দেন। ক্যারিয়ারের শুরুতেই মাইক্রোসফট কোম্পানির রিচার্স এ্যান্ড ডেভেলপমেন্টে কাজ করেন। পরবর্তীতে মাইক্রোসফট ক্লাউড এবং মাইক্রোসফট ডাটাবেজ, উইনডোজসহ নানা ক্ষেত্রে তার অবদান ছিল অবিস্মরণীয়। ২০১৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি সাত্যয়া মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী হিসেবে যোগ দেন।

জনি ইভ

স্যার জোনাথান (জনি) পল ইভ একজন ব্রিটিশ আইটি ডিজাইনার এবং বিখ্যাত আইটি কোম্পানি এ্যাপলের চীফ ডিজাইন অফিসার। শৈশব থেকে জনি ইভের ডিজাইনের প্রতি ভিন্ন এক আকর্ষণ কাজ করত। তার পিতার সুবাদেই এ আসক্তি। লন্ডনে বেড়ে ওঠা জনি ইভ উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করেই গাড়ির ডিজাইন নিয়ে কাজ করেন। তরুণ বয়সে জনি ইভের স্পোর্টস কার নিয়ে বেশ কৌতূহল ছিল।

সেই কৌতূহল পরবর্তীতে তাকে ডিজাইনার হিসেবে প্রস্তুত করে। এবং বিশ্ব পায় একজন উদ্ভাবনী শৈলীর আইটি ডিজাইনার। এ্যাপল প্রতিষ্ঠানের সকল নব পণ্যের সঙ্গেই জনির সংশ্লিষ্টতা। এ্যাপল ওয়াচ তাঁর সাম্প্রতিক সময়ের অন্যতম উদ্ভাবন, যা ঘড়ির বাজার আমূল পাল্টে দেয়। স্টিভ জবস ও টিম কুকের যোগ্য উত্তরসূরি জনি ইভ ক্যারিয়ারের প্রথম দু’ বছর লন্ডনের একটি ফার্মে কাজ করেন।

১৯৯২ সালে এ্যাপল প্রতিষ্ঠানে যোগ দেন। এ্যাপল প্রতিষ্ঠানের সকল পণ্যের ডিজাইনে তার নাম জড়িত। তার উদ্ভাবনী ডিজাইন এ্যাপল প্রতিষ্ঠানকে আজকের অবস্থানে নিয়ে এসেছে।

মিন লিয়াং টান

মিন লিয়াং টান একজন গেমস ডিজাইনার। এবং গেমিং হার্ডওয়্যার কোম্পানি রেজর প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী। মিন লিয়াং তার গেমসের সকল ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট নিজেই তদারক করেন। সিঙ্গাপুরে বেড়ে ওঠা মিন লিয়াং টান ছিলেন একজন আইনজীবী। ইংরেজী ও মান্দারিন ভাষায় পারদর্শী এ গেমস ডিজাইনার বর্তমান সময়ের অন্যতম আলোচিত আইটি আইকন। সিঙ্গাপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিষয়ে স্নাতক করা মিন লিয়াং ১৯৯৮ সালে রেজর কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন।

প্রকাশিত : ২ জুন ২০১৫

০২/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: