কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

‘মেসি ম্যাজিকে বুঁদ ফুটবলবিশ্ব’

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অবিশ্বাস্য, অনিন্দ্য সুন্দর, চোখ ধাঁধানো, অবর্ণনীয়, অসাধারণ, দৃষ্টিনন্দন কোন উপমাই যেন যথেষ্ট নয়! স্প্যানিশ কিংস কাপের ফাইনালে শনিবার রাতে লিওনেল মেসির করা প্রথম গোলটি নিয়ে বুদ হয়ে আছে ফুটবলবিশ্ব। অসাধারণ দক্ষতায় এ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের চার ফুটবলারকে কাটিয়ে গোলটি করেন সাবেক রেকর্ড টানা চারবারের ফিফা সেরা ফুটবলার। ক্ষুদে জাদুকরের গোলটিকে তার ক্যারিয়ারের সেরা বলছেন অনেকে। কেউ কেউ বলছেন, এটি সর্বকালের অন্যতম সেরা গোল। সবমিলিয়ে প্রশংসার জোয়ারে ভাসছেন ২৭ বছর বয়সী মেসি।

ম্যাচের বয়স তখন ২০ মিনিট। মাঝমাঠের কাছাকাছি ডানপ্রান্তে ব্রাজিলিয়ান সতীর্থ ডানি আলভেজের কাছ থেকে বল পান মেসি। এ সময় তিনজন তাকে ঘিরে রেখেছিল। প্রথমে একজনকে দ্রুতগতিতে পেছনে ফেললেও মুহূর্তেই তিনজন ফের তাঁকে ঘিরে ধরেন। এবার দুইজনকে বোকা বানিয়ে দ্রুত প্রতিপক্ষের ডি বক্সের দিকে এগিয়ে যান। আরেকজন তখনও মেসিকে রোখার চেষ্টায় রত। কিন্তু কিছুই করতে পারেননি। ডি বক্সে ঢুকে আরেকজন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের মাপা শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন। চোখ ধাঁধানো এই গোলটি করার পর মেসিকে নিয়ে চলছে প্রশংসার স্রোত।

ম্যাচ শেষে বার্সিলোনা কোচ লুইস এনরিকে বলেন, শুরু থেকেই আমি খেলোয়াড়দের মধ্যে শিরোপা জয়ের আখাক্সক্ষ দেখেছি। তবে এ্যাথলেটিকের জন্য আমার দুঃখ হচ্ছে। তাদের দুর্ভাগ্য যে এবার তারা দুর্দান্ত বার্সার মুখোমুখি হয়েছে। তারাও শিরোপা জয়ের সমান দাবিদার ছিল। আশা করছি খুব দ্রুতই তারা এটা অর্জন করতে পারবে। প্রিয় শিষ্য মেসির প্রশংসা সবসময়ই করেন। এবার আরেকধাপ বাড়িয়ে করেছেন বার্সা বস। প্রতিনিয়ত মেসির পরশ পেয়ে নাকি সৌভাগ্যবান তিনি। প্রতিদিন অনুশীলনে মেসির জাদুকরী ক্ষমতা দেখার কথা উল্লেখ করে এনরিকে বলেন, এ ধরনের অনেক কিছুই মেসি অনুশীলনের সময় করে। আমরা বার্সিলোনার লোকজন এ বিষয়ে নিজেদের খুব সৌভাগ্যবান মনে করি। বিলবাওয়ের বিরুদ্ধে গোল প্রসঙ্গে ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমি সত্যিই অপেক্ষায় আছি। আমার তর সইছে না। ডাগআউটে থাকার কারণে গোলের পুরো সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারিনি। এ্যাথলেটিক বিলবাও কোচ আরনেস্টো ভালভারডোও উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন মেসির। বলেন, মেসি এমন এক খেলোয়াড় যে দলের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় মুহূর্তে নিজেকে মেলে ধরে। তার প্রথম গোলটি অসাধারণ।

বার্সিলোনার সভাপতি জোশে মারিয়া বার্টোমেউও মেসি বন্দনায় মেতে ওঠেন। তিনি বলেন, বিলবাওয়ের বিরুদ্ধে মেসির যে গোলটি দেখলাম, সেটি ফুটবল ইতিহাসেরই অন্যতম সেরা গোল হিসেবে চিহ্নিত হবে। কাতালান ক্লাবটির সাবেক সভাপতি জুয়ান লাপোর্টা টুইটারে লেখেন, মেসি এই গ্রহের সবচেয়ে সেরা ফুটবলার। মেসির উপস্থিতিই বার্সিলোনার বর্তমান দলটিকে কিংবদন্তিতুল্য খ্যাতি এনে দিয়েছে। এদের পাশাপাশি মেসির গোলটির প্রশংসা করেছেন সাবেক ইংলিশ তারকা গ্যারি লিনেকার, ডেভিড বেকহ্যামসহ অনেকে। আর ভক্ত-সমর্থকরা তো ভাষাই খুঁঁজে পাচ্ছেন না প্রিয় ফুটবলারকে নিয়ে মন্তব্য করার!

বার্সা সতীর্থরাও কম যাচ্ছেন না। যে যার মতো মেসির প্রশংসা করছেন। নেইমার যেমন বলেছেন, মেসির প্রশংসা করাটা কঠিন। সে যা করে তার তুলনা হয় না। বিলবাওয়ের বিরুদ্ধে তার গোলটির সৌন্দর্য অবর্ণনীয়।

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

০১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: