আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কেশবপুরে সংখ্যালঘু পাড়ায় হামলা ॥ চাঁদা দাবি

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কেশবপুর, ৩১ মে ॥ শনিবার রাতে কেশবপুরের মধ্যকুল গ্রামের রাজবংশী পাড়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ে বাড়িতে হামলা করা হয়েছে। চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা পাড়ার প্রভাত সরকারের বাড়িতে হামলা করে ৫৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেছে। দাবিকৃত চাঁদা না দিলে হত্যাসহ ভারতে তাড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে সংখ্যালঘু ওই পাড়ার মানুষের ভেতর চরম আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। রবিবার সকালে ওই পাড়ার নারী-পুরুষ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে নিরাপত্তার দাবিতে আড়াই ঘণ্টা অবস্থান করে। এরপর তারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগে ও তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মধ্যকুল গ্রামের রফিকুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, মাছুম হোসেন, হারুন, আব্দুল্লাহ, হাসাডাঙ্গা গ্রামের নাজিম উদ্দিনসহ আরও ১৫-২০ যুবক রাজবংশী পাড়ায় নানা সময়ে সন্ত্রাসী কর্মকা- করে আসছে। সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন সময় তাদের কাছে অন্যায় দাবি করে থাকে। শনিবার রাত প্রায় সাড়ে ১১টার দিকে চিহ্নিত ওই সন্ত্রাসীরা প্রভাত সরকারের বাড়িতে হামলা করে। তারা জানালা দরজা ভাঙ্গার চেষ্টা চালায়। এ সময় প্রভাত সরকার বাড়ি না থাকায় সন্ত্রাসীরা তার স্ত্রী উমা সরকারের কাছে ৫৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। যথাসময়ে চাঁদার টাকা না দিলে হত্যা করা হবে অথবা ভারতে তাড়িয়ে দেয়া হবে বলে হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনার পর আতঙ্কিত রাজবংশী পাড়ার সকল নারী-পুরুষ জড়ো হয়ে রবিবার বেলা ১১টা থেকে ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। নিরাপত্তার দাবিতে সন্ত্রাসীদের নাম উল্লেখ করে তারা নির্বাহী অফিসারের নিকট অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগে আরও জানানো হয়েছে সন্ত্রাসীদের ভয়ে রাজবংশী পাড়ার মেয়েরা স্কুলে যেতে পারে না। মহিলারা বাড়ির বাইরে বের হতে পারে না। বিভিন্নভাবে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসের সামনে অবস্থান নেয়া গৃহবধু রিনা, চম্পা, রেখা জানান, আমরা এখানেই থাকতে চাই। আমাদের নিরাপত্তা দেয়া হোক।

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

০১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: