মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দুটি কারখানা সংস্কার কাজ শেষ করেছে অ্যাকর্ড

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ এ্যাকর্ড অন ফায়ার এ্যান্ড বিল্ডিং সেফটি ইন বাংলাদেশের তৈরি পোশাক কারখানা পরিদর্শনে পাওয়া ত্রুটি সংস্কার করেছে মাত্র দু’টি কারখানা। তাদের তালিকাভুক্ত কারখানা দু’টি হলো- কনকর্ড ফ্যাশন এক্সপোর্ট লি. এবং জেকন। উভয় কারখানা গাজীপুরের জয়দেবপুরের দক্ষিণ শালনায় অবস্থিত। এ্যাকর্ডের প্রাথমিক পরিদর্শনে চিহ্নিত সকল নিরাপত্তা সমস্যার সংশোধনী কার্যক্রম যারা সফলভাবে সম্পন্ন করেছে।

ইউরোপীয় ক্রেতাদের জোট এ্যাকর্ডের প্রকৌশলীরা গত ২০ মে এ সব কারখানা পরিদর্শন করে এমন প্রত্যায়ন করে বলে বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটির দেয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়। এতে বলা হয়, এই প্রতিষ্ঠান দুটির মালিক, কর্মকর্তা, শ্রমিক ইউনিয়ন নেতা ও সকল শ্রমিকের প্রতি খুবই সন্তুষ্ট এ্যাকর্ড। যারা এ্যাকর্ডের প্রকৌশলীদের কারখানা পরিদর্শনে পাওয়া ত্রুটি সংস্কার করেছে। তাদের এই সাফল্যকে স্বীকৃতি দেয়া এবং যে সব কারখানা তাদের সংশোধনী কাজ শেষ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে তা যাচাই করার সঙ্গে সঙ্গে এ্যাকর্ডের পরিদর্শিত যে ব্যাপকসংখ্যক কারখানায় সংশোধনী কাজ অপর্যাপ্তভাবে বা কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী অত্যন্ত ধীরগতিতে চলছে তাদের কাজ দ্রুততর এবং মানসম্মতভাবে সম্পন্ন করতে এ্যাকর্ড সদা সতর্ক রয়েছে।

এ্যাকডের্র পরিদর্শন করা বহু কারখানার মধ্যে কাক্সিক্ষত মানের সংস্কার সম্পন্ন করা কারখানার সংখ্যা একেবারে নগণ্য বলে এতে উল্লেখ করা হয়। ২১ মে এ্যাকর্ড স্বাক্ষর করার প্রায় দুই বছর পূর্তি উপলক্ষে এই ২টি কারখানায় সংশোধনী কাজ এবং তার যাচাই সম্পন্ন হওয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশক যে, এ্যাকর্ড এগিয়ে যাচ্ছে এবং এ্যাকর্ডের স্বাক্ষরকারী কোম্পানি এবং রিটেইলারদের জন্য উৎপাদনকারী তৈরি পোশাক কারখানাগুলো নিরাপদ হয়ে উঠছে বলে বিবৃতিতে দাবি করা হয়।

প্রসঙ্গত, প্রায় ১৫শ’ কারখানা পরিদর্শন করে এ্যাকর্ড ৫৪ হাজার ৪৩২টি ত্রুটি পায়। যা অগ্নি নিরাপত্তা, বৈদ্যুতিক ও অবকাঠামো ত্রুটি বলে এ্যাকর্ড প্রকৌশলীরা উল্লেখ করেছিল। এর মধ্যে ৮১৭টি কারখানার সংস্কার কার্যক্রম পরিকল্পনা (ক্যাপ) অনুমোদন করেছে এ্যাকর্ডের বিশেষজ্ঞেরা। এই ৮১৭ কারখানার মধ্যে ৫৪০টির ক্যাপ নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে এই জোট।

প্রকাশিত : ১ জুন ২০১৫

০১/০৬/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অর্থ বাণিজ্য



ব্রেকিং নিউজ: