কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ভারতের বিপক্ষেও ফেবারিট বাংলাদেশ!

প্রকাশিত : ৩১ মে ২০১৫
  • অভিমত সৌম্য সরকারের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পেসার মোহাম্মদ সামি ছাড়া ভারতের বিশ্বকাপের দলটিই আসছে বাংলাদেশে। অথচ এ দলটির বিপক্ষে কিনা ফেবারিট বাংলাদেশ! এমনটিই মনে করছেন বাংলাদেশ দলের অলরাউন্ডার সৌম্য সরকার। শনিবার ফিটনেস ক্যাম্প শেষে এমনটিই জানিয়েছেন সৌম্য।

যখন সৌম্যকে প্রশ্ন করা হলোÑ এ সিরিজে কি আমরা ফেবারিট? জানিয়ে দিলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় ফেবারিট।’ সঙ্গে যুক্তিও দাঁড় করাতে চাইলেন, ‘কারণ আমরা যেভাবে খেলছি, পারফরম্যান্স যেভাবে ভাল হচ্ছে, এটা যদি আমরা ধরে রাখতে পারি অবশ্যই আমাদের ভাল কিছু হবে।’ সৌম্যের কথা এখন আর অবাস্তব মনে হয়নি। বাংলাদেশ যেভাবে খেলছে, তাতে যে কোন দলই পরাস্ত হতে পারে। ‘সিরিজ জিততে পারি।’ এ কথা বললেও ঠিক আছে। এ মুহূর্তে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা বলতেও পারেন। কিন্তু ‘ফেবারিট’ বলে দেয়া কী এখনই ঠিক?

মহেন্দ্র সিং ধোনি, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, আজিঙ্কেয়া রাহানে, শিখর ধাওয়ান, সুরেশ রায়না, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, উমেশ যাদব, মোহিত শর্মাদের নিয়ে গড়া দল কী বাংলাদেশের চেয়েও দুর্বল?

তা না বললেও সৌম্য ভারতের বিপক্ষে জয়ের যে ধারাবাহিকতা তা ধরে রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘পাকিস্তান সিরিজে আমরা সবাই ভাল খেলছি। সেটা যদি আমরা ধরে রাখতে পারি তাহলে ভাল কিছু হবে ভারত সিরিজেও। সবার ভাল হলেই রেজাল্টটা ভাল হবে।’ পাকিস্তানের চেয়ে ভারত ফর্মে, ভাল দল। তাদের সঙ্গে লড়াই কতটুকু করা যাবে? সৌম্য বললেন, ‘আসলে ফর্মে তো সবাই থাকে। কিন্তু খেলা তো হবে মাঠে। ওখানে যারা ভাল খেলবে রেজাল্ট তাদের পক্ষেই আসবে।’

বিসিএলের শেষপর্বে খেলেছেন সৌম্য সরকার। দক্ষিণাঞ্চল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। সেই দলের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে শতক করেছেন সৌম্য। ১২৭ রানের ইনিংস খেলেছেন। এ নিয়ে সৌম্য বলেন, ‘যেহেতু একটা খেলা ছিল, একটা খেলাই খেলতে গিয়েছিলাম। চেষ্টা করছিলাম নিজের ব্যাটিংটা যেন ভালোভাবে করতে পারি। চেষ্টা করেছিলাম ওইটা, প্রথম ইনিংসে ভাল করতে পারিনি। দ্বিতীয় ইনিংসে সেটা কভার করেছি। ভাল হয়েছে।’

বিসিএলে ব্যাটিংয়ে মিডলঅর্ডারে খেলেছেন সৌম্য। প্রথম ইনিংসে ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই আউট হয়েছেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ নম্বরে খেলে শতক হাঁকিয়েছেন। অথচ ওয়ানডেতে খেলেছেন ওপেনিংয়ে। এ ব্যাটিং অর্ডার বদল নিয়ে সৌম্য বলেছেন, ‘আমি এটা বিশ্বকাপের আগে বলেছিলাম দল আমাকে যেখানে খেলাবে আমি সেখানেই খেলব। সেটা নিয়ে কাজ করছি। বিসিএলেও আমি কিন্তু ৫-৬ এ ব্যাটিং করছি। আমাকে বলা হয়েছিল সেভাবে। যেহেতু একটা ম্যাচ আছে। খেলে দেখি, কেমন হয়। প্রথম ইনিংসে সফলতা পাইনি, দ্বিতীয় ইনিংসে সফল হয়েছি।’

এ বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯ নম্বরের উপরে থাকলে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে বাংলাদেশ। র‌্যাঙ্কিং ধরে রাখার চ্যালেঞ্জও আছে। দলের মাঝে এসব নিয়ে কী আলোচনা হয়? সৌম্য জানালেন, ‘আসলে আমার সামনে এখনও পর্যন্ত হয়নি। ভাল করলে অবশ্যই আমরা সেখানে যাব। সবারই চেষ্টা থাকবে ভাল করার। যেহেতু এমন একটা সুযোগ আছে আমাদের সামনে। আমরা সবাই চেষ্টা করব ভাল করে রেজাল্ট আমাদের পক্ষে আনতে। সেটা আমার মাথায় অবশ্যই আছে।’ প্রথমবারের মতো পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে টেস্ট খেলেছেন সৌম্য সরকার। ব্যাটিং-বোলিং কোন বিভাগেই বিশেষ কোন নৈপুণ্য দেখাতে পারেননি। এবার ভারতের বিপক্ষে সিরিজে টেস্টের জন্য নিজেকে কতটা প্রস্তুত করছেন সৌম্য? নিজেই বললেন, ‘এই প্রস্তুতি আমি অলরেডি নেয়া শুরু করেছি। প্রথম টেস্টে আমি দুই ইনিংসেই (৩৩ ও ৩৩ রান) সেট হয়ে আউট হয়ে গেছি। দ্বিতীয় টেস্টে ভাল করতে পারি নাই। সেট হতে পারিনি। তারপর প্র্যাকটিস যখন শুরু করছি তখন থেকেই আমি চেষ্টা করছি যে টেস্ট যেভাবে, ওইভাবে মানসিকভাবে ফিট হওয়ার জন্য। যে বল ছাড়তে হবে, টিকে থাকতে হবে, এটা নিয়ে কাজ করা শুরু করেছি।’

প্রকাশিত : ৩১ মে ২০১৫

৩১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: