কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গরমে পশ্চিমা পোশাক

প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৫
  • তৌফিক অপু

সকালের সূর্যটা যত বেশি বিকিরণ ছড়াতে থাকে রৌদ্রের প্রখরতা দ্বিগুণ হারে বাড়তে থাকে। গ্রীষ্মের এ দৃশ্য খুবই স্বাভাবিক একটা ব্যাপার। তবে এবারে বৃষ্টির আনাগোনা একটু আগে থেকেই শুরু হয়ে গেছে। এ সময়টা অন্যান্য ঋতুর তুলনায় একটু বেশিই উষ্ণ। কিন্তু তাই বলে ঘরে বসে থাকার কোন উপায় নেই। কাজের তাগিদে প্রতিনিয়ত ছুটে বেড়াতে হয় আমাদের। কখনও অফিসে কখনও বা অফিসের বাইরে মিটিং সামলাতে যখন হাঁপিয়ে ওঠার জোগাড় তখন সূর্যের তেজ যেন আরও একহাত দেখে নেয়। উষ্ণ আবহাওয়ায় শরীরের টেম্পার ধরে রাখাই যেন দায়। আর তাই এ সময়টায় দৈনন্দিন চলাফেরার পাশাপাশি বাড়তি নজর দিতে হয় পোশাকের দিকে। একটু ইজি এবং স্মার্ট ড্রেস না হলে আবহাওয়ার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলাই মুশকিল, সেটা অফিস, ক্যাম্পাস কিংবা বন্ধুদের আড্ডা হোক না কেন।

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আমাদের ফ্যাশন ট্রেন্ড, যা সত্যিকার অর্থেই ইতিবাচক দিক। ইন্টারনেটের বদৌলতে প্রতিদিন বিশ্বে ফ্যাশন জগতে কি কি পরিবর্তন হচ্ছে তা সহজেই জানা যায়। তাছাড়া কবে কোথায় কোন কোন ফ্যাশন হাউসের ফ্যাশন শো অনুষ্ঠিত হবে তার অগ্রিম খবর জেনে নেয়া যায়। যার ফলে ফ্যাশন ট্রেন্ডের হাল হকিকত সম্পর্কে সহজেই পরিচিত হওয়া যায়। যে কারণে আমাদের দেশীয় পোশাকের বাজারের পাশাপাশি বিশ্বের অন্যান্য দেশের ফ্যাশনও যোগ হয়েছে আমাদের ফ্যাশন ট্রেন্ডে। পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে শুরু করে পশ্চিমা পোশাকের প্যাটার্ন এখন আমাদের দেশে নিয়মিত চোখে পড়ে।

আমাদের দেশের মানুষ এখন অনেক বেশি ফ্যাশনসচেতন। আগেকার সনাতনী ধারণাকে পেছনে ফেলে অনেক দূর এগিয়ে গেছে বর্তমান ফ্যাশন ট্রেন্ড। একটা সময় পশ্চিমা ধাঁচের পোশাক উগ্র বলে আখ্যায়িত করা হতো। কিন্তু কালের পরিক্রমায় তা নিত্য ব্যবহারে দাঁড়িয়েছে। যেমন হাতাকাটা বা সিøভলেস ড্রেস আগে আমাদের সমাজে তেমনভাবে স্বীকৃত ছিল না। কিন্তু প্রয়োজনের তাগিদে তা আজ ফ্যাশন ট্রেন্ডের অবিচ্ছেদ্য অংশতে পরিণত হয়েছে। বর্তমান ফ্যাশনসচেতন তরুণীদের কাছে হাতাকাটা পোশাক বেশ জনপ্রিয়। খুব বেশিদিন হয়নি এ ড্রেসটি ফ্যাশন ট্রেন্ডে যোগ হয়েছে তথাপি অল্প সময়ের মধ্যে তা বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। একটা সময় সিøভলেস ব্লাউজ ছাড়া সিøভলেস ড্রেস তেমন একটা চোখে পড়ত না। অথচ বর্তমানে প্রায় প্রতিটি ফ্যাশন হাউসে সিøভলেস ড্রেস চোখে পড়ার মতো। বিশেষ করে এই গরমে বলাই বাহুল্য। যদিও পশ্চিমা ধাঁচের পোশাক এগুলো তারপরেও এখন তা দেশীয় ফ্যাশন ট্রেন্ডের অংশ হয়ে গেছে। এছাড়া সামার টপসের ভেরিয়েশন চোখে পড়ার মতো। ইদানীং অবশ্য সামার টপসের চাহিদা বেড়েছে অনেক। ওয়েস্টার্ন প্যাটার্নের টি-শার্ট, শার্ট দ্যুতি ছড়াচ্ছে আপন মহিমায়। ছেলেদের ক্ষেত্রে নতুন প্যাটার্নের কিছু শর্ট শার্ট নজর কেড়েছে খুব। কালার ভেরিয়েশনও সময়োপযোগী। কারণ এ গরমে কড়া কোন রং কেউ পছন্দ করবে না। আর এ বিষয়টি মাথায় রেখেই হাল্কা রঙের পোশাক শোভা পাচ্ছে ফ্যাশন আউটলেটগুলোতে। এর মধ্যে আকাশী, হাল্কা পিংক, এ্যাশ, সাদা, মেরুন এবং ক্রিম কালার অন্যতম। বর্তমানে ফ্যাশন আউটলেটগুলোর সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে এবং বুটিক হাউসগুলোর পাশাপাশি ওয়েস্টার্ন পোশাকের আউটলেটও বাড়ছে। যার ফলে এখন হাত বাড়ালেই দেখা মিলবে পশ্চিমা ধাঁচের পোশাকের। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য এক্সট্যাসি, রেক্স, মনসুন রেইন, মানজা, আর্টিস্টি, ইয়েলো, ওয়েজেসসহ আরও অনেক শো-রুমে। গরম থেকে প্রশান্তি, ইজি মুভমেন্ট এবং ফ্যাশন ট্রেন্ডের আধুনিকতার ছোঁয়া সব মিলিয়ে ওয়েস্টার্ন ড্রেস বর্তমান তরুণ-তরুণীদের দারুণ পছন্দের। প্যাটার্ন এবং ডিজাইন ভেদে ড্রেসগুলোর মূল্যনির্ভর করে। তবে প্রতিযোগিতার বাজারে কয়েকটি শোরুম ঘুরে দরদাম জেনে নিজের পছন্দের পোশাকটি সংগ্রহ করা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

ছবি : নেওয়াজ রাহুল

মডেল : ঝুমুর ও সামী

মেকআপ : পারসোনা

পোশাক : ভেরো

প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৫

২৯/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: