মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহীতে যমুনা এডিবল ওয়েল মিলে উৎপাদন বন্ধ

প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৫
  • পরিবেশ দূষণের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ পরিবেশ দূষণের অভিযোগ এনে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার সোনাদীঘি এলাকায় যমুনা এডিবল ওয়েল (তুষ তেল) মিলের উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে এলাকাবাসী। গত এক সপ্তাহ ধরে উৎপাদন পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। গত ১০ মার্চ থেকে প্রতিষ্ঠানটি ধানের তুষ থেকে ভোজ্য তেল উৎপাদন শুরু করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ জনবসতিপূর্ণ এলাকায় এ ধরনের একটি মিল প্রতিষ্ঠা করায় স্থানীয় জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। সোনাদীঘি এলাকায় রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কের পাশে অবস্থিত যমুনা এডিবল ওয়েল মিলের মাত্র ২০০ গজের মধ্যে দুটি স্কুলেও রয়েছে।

রাজশাহী পরিবেশ অধিদফতরের পরিদর্শক রিজওয়ানুর রহমান জানিয়েছেন, যমুনা এডিবল ওয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড কর্তৃপক্ষ পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করেছেন।

তবে তার জানা মতে, প্রতিষ্ঠানটিকে এখনও পর্যন্ত কোন ছাড়পত্র দেয়া হয়নি। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, মিলটিতে চালের ওপরের আবরণ থেকে তেল বের করা হয়। চালের ওই আবরণকে ‘ব্র্যান্ড’ বলে। আর্দ্র ব্র্যান্ড থেকে তেল বের করার পর শুষ্ক ব্র্যান্ড ব্রয়লারে জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার করা হয়। তুষ জাতীয় এই ব্র্যান্ড পোড়ানোর কারণে মিলের চুল্লি দিয়ে প্রচুর ধোঁয়ার সঙ্গে ছাই বের হতে থাকে। এই ছাই উড়ে পড়ে আশপাশের এলাকায়। এতে এলাকাটিতে মারাত্মক আকারে পরিবেশ দূষণ হয়।

স্থানীয়রা জানান, মিল থেকে ছাই উড়ে মানুষের চোখে মুখে পড়লে চোখ মুখ জ্বলতে থাকে। শরীরে চুলকানিরও সৃষ্টি হচ্ছে ওই ছাইয়ের কারণে। এ থেকে আবার শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্ষতও দেখা দিচ্ছে। মিলের ২০০ গজের মধ্যে রয়েছে দুটি স্কুল। তাই ছোট ছোট শিক্ষার্থীর কথা চিন্তা করে এলাকাবাসী মিল কর্তৃপক্ষকে উৎপাদন বন্ধ রাখতে বাধ্য করেছেন। বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন যমুনা এডিবল ওয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপক বিশ্বজিৎ বিশ্বাস। তিনি বলেন, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে মিল থেকে ধোঁয়া ও ছাই উড়ে এলাকার পরিবেশ দূষণ হয়েছে।

গোপালগঞ্জে বিদ্যুতস্পৃষ্টে মাদ্রাসা ছাত্র নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা, গোপালগঞ্জ, ২৮ মে ॥ মুকসুদপুরে বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে আরিফ শেখ (১০) নামে এক মাদ্রাসা-শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে মুকসুদপুর উপজেলার রাগদী ইউনিয়নের চর প্রসন্নদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। চর প্রসন্নদী মাদ্রাসার ছাত্র আরিফ শেখ ওই গ্রামের অদুদ শেখের ছেলে। স্থানীয়রা জানিয়েছে, সকালে কয়েক বন্ধু নিয়ে আরিফ মাঠে ক্রিকেট খেলতে যায়। একসময় বলটি মাঠ-সংলগ্ন বাচ্চু শেখের ঘরের চালের ওপর গিয়ে পড়ে। বলটি নামাতে আরিফ ওই ঘরের চালে উঠলে উপর দিয়ে নেয়া পল্লী-বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে পড়ে মারাত্মক আহত হয়। তাকে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য-কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, এলাকার কাওসার মাতুব্বর পল্লী-বিদ্যুতের কর্মকর্তাদের মাধ্যমে অবৈধভাবে বাড়ি থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে তার মিলে বৈদ্যুতিক সংযোগ নিয়েছেন, যে তারে জড়িয়ে আরিফের মৃত্যু ঘটেছে।

প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৫

২৯/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: