রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশন পক্ষের যুক্তিতর্ক শুরু

প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে পটুয়াখালীর রাজাকার কমান্ডার ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশন পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু হয়েছে। পরবর্তী যুক্তিতর্ক রবিবার পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ বৃহস্পতিবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম। যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন প্রসিকিউটর মোখলেসুর রহমান বাদল।

মুক্তিযুদ্ধের সময় হত্যা, গণহত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে রাজকাার ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে। গত ২ ডিসেম্বর ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেয় ট্রাইব্যুনাল এবং পরবর্তীতে ৯ ডিসেম্বর অভিযোগ গঠনের বিষয়ে উভয়পক্ষের শুনানি শেষে অভিযোগ গঠন করেন। ১৯ জানুযারি প্রসিকিউশন পক্ষের সূচনা বক্তব্য ও সাক্ষী গ্রহণের জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। তদন্ত সংস্থা গত বছরের ২৭ অক্টোবর চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এর পর ১৭ নবেম্বর পটুয়াখালীর রাজাকার বিএনপি নেতা ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ ট্রাইব্যুনালে দাখিল করেন প্রসিকিউশন পক্ষ। আসামির বিরুদ্ধে তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদনে ৫টি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছিল। এ প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রসিকিউশন ৮টি অভিযোগ দাখিল করে ট্রাইব্যুনালে। ট্রাইব্যুনাল এ অভিযোগ থেকে ৩টি অভিযোগ একসঙ্গে সংযুক্ত করে পুনরায় ৫টি অভিযোগ গঠন করেছেন। এ অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ চার্জ-১: সুবিদখালী বাজাার ও গৃহে লুটপাট, আটক, হত্যা, গণহত্যা। চার্জ-২: সুবিদখালী বাজারে আটক, ধর্মান্তরিত, দেশ ত্যাগে বাধ্য করা। চার্জ-৩: ভিকটিম গোলাপী রাণীকে অপহরণ, আটক, ধর্ষণ, হত্যা। চার্জ -৪: শোভারানী সুষমা রাণীকে অপহরণ আটক ধর্ষণ ও দেশত্যাগে বাধ্য করা। চার্জ-৫: কাকড়াবুনিয়া বাজার, গ্রামে অপহরণ, আটক, নির্যাতন, লুন্ঠন, অগ্নিসংযোগ, ধর্ষণ হত্যা ও গণহত্যা।

প্রকাশিত : ২৯ মে ২০১৫

২৯/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: