মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সৌরভ-শাস্ত্রীকে নিয়ে নতুন নাটক!

প্রকাশিত : ২৮ মে ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জাগমোহন ডালমিয়া কখনও ভনিতার আশ্রয় নেন না। স্ট্রেইটÑ যা বলেন, তাই করেন। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, সৌরভ গাঙ্গুলীই যে ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বসর্বা হতে যাচ্ছেন, এখনও পর্যন্ত বোর্ড প্রধান (বিসিসিআই) নিজে সেটি বলেননি। কর্তাদের বরাত দিয়ে ওই খবর প্রচার করেছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম। সেখানে এক প্রকার নিশ্চিত করা হয়েছে, বাংলাদেশ সফরেই সৌরভকে ‘কোচ’, অথবা ‘ডিরেক্টর’ পদে দেখা যাবে। সফর ঘনিয়ে আসছে, অথচ বিষয়টার সুরাহা করছে না বিসিসিআই। নতুন খবর, বিশ্বকাপে ডিরেক্টরের দায়িত্ব পালন করা শাস্ত্রী কোন রকম অনিশ্চয়তার মধ্যে বাংলাদেশ সফরে দলের সঙ্গী হতে আগ্রহী নন!

৭ জুন বাংলাদেশ সফরের দু’দিন আগে সবকিছু চূড়ান্ত করা হবে। ভারত জাতীয় দলের ‘প্রধান কোচ’ কিংবা ‘ডিরেক্টর’ হিসেবে সাবেক অধিনায়ক সৌরভের নাম জোরেশোরেই শোনা যাচ্ছে। কিন্তু বিসিসিআইর শীর্ষ পর্যায়ে মতবাদ তৈরি হয়েছে তার নিয়োগের সময়সীমা নিয়ে। বস ডালমিয়া চাচ্ছেন দীর্ঘ মেয়াদে (অন্তত দুই বছরের জন্য) সৌরভকে দায়িত্ব দিতে। অনেকে আবার এর বিরোধিতা করছেন। তাদের যুক্তি, কেউই জবাবদিহিতার উর্ধে নন, তাই সিরিজ বাই সিরিজ দায়িত্ব দেয়া উচিত। বিষয়টার সুরাহা না হলে শাস্ত্রী-ই কি বাংলাদেশ সফরে ‘ডিরেক্টর’ থাকছেন?

শাস্ত্রীর ঘনিষ্ঠ মহলের উদ্ধৃতি দিয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, তিনি কেবল বাংলাদেশ সফরে দলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব নিয়ে আসতে রাজিন নন। বিসিসিআই সচিব অনুরাগ ঠাকুরকে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, ‘টুকরো দায়িত্ব নিয়ে আমি বাংলাদেশে যেতে চাই না। হয় পুরো দু-বছর দাও, নয় তোব বাদ দাও।’ শাস্ত্রীর ঘনিষ্ঠ এক বন্ধু বলেন, ‘রবি তো ভালই করেছে। ইংল্যান্ড সফরে ওয়ানডেতে, বিশ্বকাপেও আমরা এতটা আশাবাদী ছিলাম না। ও কি ‘ইউজ এ্যান্ড থ্রো’ নাকি যে বোর্ড বাংলাদেশে নিয়ে যাবে, আবার দু’দিন বাদে ছুড়ে ফেলবে! প্রয়োজন মনে করলে বোর্ডের পুরোপুরি দায়িত্ব দেয়া উচিত।’

বিসিসিআইর কর্তা মহলে কারও কারও মনে হচ্ছে, বোর্ড সচিব ঠাকুর সৌরভের ক্রিকেটীয় দক্ষতা সম্পর্কে যথেষ্ট শ্রদ্ধাশীল, আবার শাস্ত্রীর প্রতিও দূর্বল! ঘরের মাটিতে ২০১৬ বিশ্বকাপের আট মাস বাকি। এত অল্প সময়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে সৌরভ গাঙ্গুলীর রসায়নটা জমবে কি না, এ নিয়েও প্রশ্ন অনেকের। দুটি ভিন্নধর্মী দর্শন আর ব্যক্তিত্বের সংঘাত হবে না তো? সৌরভের নিয়োগ নিয়ে তাই সত্যি সত্যি দোটানায় পড়ে গেছেন ডালমিয়া। নইলে এত দ্বিধাদ্বন্দ্ব কেন? গত এক সপ্তাহ ধরেই যে শোনা যাচ্ছে, ভারতীয় ক্রিকেটে সৌরভ যুগের সূচনাটা এখন কেবলই সময়ের বিষয়। সেই সময়টা কবে আসবে!

প্রকাশিত : ২৮ মে ২০১৫

২৮/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: