আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বোকামির জন্য দায়ী ভাইরাস!

প্রকাশিত : ২৮ মে ২০১৫
বোকামির জন্য দায়ী ভাইরাস!

আর বকা খেতে হবে না। কারণ, বোকামির দোষ পারিপার্শ্বিকতা কিংবা অমনোযোগিতার নয়, পরজীবী ভাইরাসের! মোটেই উদ্ভট কথা বলছি না, এ তথ্য খোদ বিজ্ঞানের। দুটি পৃথক গবেষণা শেষে বিজ্ঞানীরা বলেছেন, তাঁরা এমন এক ভাইরাসের সন্ধান পেয়েছেন, যা মস্তিষ্কের কোষে বুদ্ধিমত্তার স্থলে ‘বোকামি’ কে পুনঃস্থাপন করে।

গবেষণার জন্য মোট ৯২ জন মানুষকে পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় দেখা গেছে, যারা ক্লোরোভাইরাস এটিসিবি-১-এ আক্রান্ত, যে কোন দৃশ্য দেখে তারা অন্যদের তুলনায় কমপক্ষে ১০ সেকেন্ড পর প্রতিক্রিয়া জানায়। গবেষণা আরও নিশ্চিত করেছে, আক্রান্ত হওয়ার ক্ষেত্রে ভাইরাসটি অর্থবিত্ত, লিঙ্গ, আয়, ধূমপায়ী-অধূমপায়ী, শিক্ষাগত যোগ্যতা কিংবা বয়সের ব্যবধান মানে না। গবেষকরা একই ভাইরাস ইঁদুরের শরীরে প্রবেশ করিয়েও একই ফল পেয়েছেন। অর্থাৎ, এটিসিবি-১ ভাইরাস যে কোন প্রাণীর মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দিয়ে তাকে ‘বোকা’ বানিয়ে দিতে পারে। গবেষক দলের প্রধান রবার্ট ভোলকেনের ধারণা, এটিসিবি-১ ভাইরাসটির মতো মানবদেহে মিলিয়নের উপর অনাবিষ্কৃত ভাইরাস আছে, যাদের কার্যক্রম এখনও অজানা।

গবেষণা দু’টি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নেভ্রাস্কা বিশ্ববিদ্যালয় এবং জন হপকিন্স মেডিক্যাল স্কুলের গবেষকরা। দু’টি গবেষণা শেষে ত্ভরা ক্লোরোভাইরাস এটিসিবি-১- পক বোকামির জন্য দায়ী ভাইরাস হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। ভাইরাসটির ডিএনএ এর আগে সবুজ শ্যাওলাতে পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, এটি মানব মস্তিষ্কেও চুপিসারে থাকতে পারে এবং বুদ্ধিমত্তাকে দমিয়ে দিতে পারে। সূত্র: সায়েন্স ডেইলি

প্রকাশিত : ২৮ মে ২০১৫

২৮/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: