আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সাত মামলায় লতিফ সিদ্দিকীর অন্তর্বর্তী জামিন

প্রকাশিত : ২৭ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে হজ ও তাবলীগ নিয়ে কটূক্তি করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার সাত মামলায় ছয় মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেছে হাইকোর্ট।একইসঙ্গে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাগুলো কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেছে আদালত। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মামলাগুলো স্থগিত থাকবে বলে আদেশে বলা হয়েছে। মঙ্গলবার সাতটি আবেদনের শুনানি করে বিচারপতি মোঃ নিজামুল হক ও বিচারপতি মোঃ ফরিদ আহমদ শিবলীর বেঞ্চ রুলসহ এই আদেশ প্রদান করেছে। তবে আরও চার মামলায় গ্রেফতার থাকায় এখনই মুক্তি পাচ্ছেন না আওয়ামী লীগের এই বহিষ্কৃত নেতা।

এর মধ্যে ছয়টি মামলা ঢাকার সিএমএম ও একটি মামলা নারায়ণগঞ্জের আদালতে দায়ের করা হয়েছিল। রবিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা ঢাকার সাত মামলায় জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করলে হাইকোর্টে আসেন লতিফ সিদ্দিকীর আইনজীবীরা। ওই সাতটির মধ্যে ছয়টিতে এবং নারায়ণগঞ্জের এক মামলায় জামিন পেলেন তিনি। আদালতে লতিফের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল শেখ এ কে এম মনিরুজ্জামান কবির।

ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া সাংবাদিকদের বলেন, মোট দশ মামলায় লতিফকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তিনি বলেন, “ফৌজদারী কার্যবিধি অনুযায়ী কোন ব্যক্তি দেশের বাহিরে অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে মামলা করতে সরকারের পূর্ব অনুমোদন দরকার। কিন্তু লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে মামলা করতে সরকারের পূর্ব অনুমোদন নেয়া হয়নি”। তিনি বলেন, একই অভিযোগে একই ব্যক্তির বিরুদ্ধে একাধিক মামলা চলতে পারবে না।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে সারাদেশে লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে ২৯টি মামলা রয়েছে।গতবছর ২৮ সেপ্টেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে স্থানীয় টাঙ্গাইল সমিতি আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সাবেক ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী হজ, তাবলীগ জামায়াত বিষয়ে মন্তব্য করে বক্তব্য দেন। লতিফ সিদ্দিকীর ওই মন্তব্য ও বক্তব্য সংবলিত ভিডিও ক্লিপ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও গণমাধ্যমে প্রকাশ ও প্রচার হলে বিভিন্ন মহলে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। পরে বিষয়টি আমলে নিয়ে সরকার আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে মন্ত্রিপরিষদ থেকে অপসারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিয়েছে আওয়ামী লীগ। বিদেশ থেকে দেশে এসে গতবছর ২৫ নবেম্বর তিনি ধানম-ি থানায় আত্মসমর্পণ করেন। পরে পুলিশ তাকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার মামলায় ঢাকা মহানগর আদালতে হাজির করলে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয়। লতিফ সিদ্দিকী বর্তমানে কারাগারে আটক রয়েছেন।

প্রকাশিত : ২৭ মে ২০১৫

২৭/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: