রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইসলামিক স্টেট রুখতে ব্রিটেন-রাশিয়া মতৈক্য

প্রকাশিত : ২৭ মে ২০১৫
  • ক্যামেরনকে ফোনে অভিনন্দন জানালেন পুতিন

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ বন্ধের উপায় খুঁজে বের করতে এবং ইসলামিক স্টেটের (আইএস) উত্থান প্রতিরোধে সাহায্য সহযোগিতার বিষয়ে নতুন করে আলোচনা শুরু করবেন। দুই নেতার মধ্যে সোমবার টেলিফোনে আলাপ চলাকালে এ বিষয়ে একমত হন তাঁরা। ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে বড় ধরনের সাফল্যের জন্য অভিনন্দন জানাতে ক্যামেরনকে টেলিফোন করেন পুতিন। খবর টেলিগ্রাফের।

অতীতে সিরীয় নেতা বাশার আল-আসাদের প্রতি পুতিনের অব্যাহত সমর্থনের কারণে ব্রিটেন ও রাশিয়ার মধ্যে আলোচনা ভেঙ্গে যায়। ৩০ মিনিট ধরে এই আলোচনায় ক্যামেরন বলেছেন যে আসাদকে রেখে কোন সমাধান হতে পারে না। কারণ তার সরকার রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে। ক্যামেরন ও পুতিন অবশ্য একমত হন যে উভয় দেশের স্বার্থেই সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধের ‘সমাধান’ খুঁজে বের করা এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের মধ্যে বৈঠক আবার শুরু করা প্রয়োজন। ইউক্রেন প্রশ্নে ক্যামেরন বলেছেন যে, এ সংক্রান্ত বিরোধে তাঁদের মধ্যে ব্যাপক মতপার্থক্য রয়েছে। তবে তিনি বলেন, অস্ত্রবিরতি বাস্তবায়নের ওপর অবশ্যই অগ্রাধিকার দিতে হবে। ডাউনিং স্ট্রিটের একজন মুখপাত্র জানান, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আলাপ শেষ করেন এই বলে যে ইরানের পরমাণু ইস্যুতে যুক্তরাজ্য ও রাশিয়া একত্রে সাফল্যের সঙ্গে কাজ করেছে।

তিনি আশা করেন, আগামী দিনগুলোতে তাঁরা পারস্পরিক স্বার্থে অন্যান্য ইস্যুতেও একত্রে কাজ করতে সক্ষম হবেন। সাবেক সেনাবাহিনী প্রধান লর্ড ড্যানেট আগে যা চিন্তার বিষয় ছিল না এখন তা নিয়ে ভাবার জন্য এবং সিরিয়া ও ইরাকে আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সৈন্য পাঠানোর বিষয় বিবেচনা করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, জঙ্গী সংগঠনটির অগ্রযাত্রা বন্ধে বিমান হামলা ব্যর্থ হয়েছে। তিনি পাঁচ হাজার সৈন্য মোতায়েন প্রশ্নে বিতর্ক শুরু করতে পার্লামেন্টের প্রতি আহ্বান জানান। সরকার অবশ্য বলেছে যে, স্থলযুদ্ধের জন্য ব্রিটিশ সৈন্য পাঠানোর প্রয়োজন নেই।

প্রকাশিত : ২৭ মে ২০১৫

২৭/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: