কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নিবিড় অনুশীলনে জাতীয় ফুটবলাররা

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫
নিবিড় অনুশীলনে জাতীয় ফুটবলাররা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য অনুশীলন ক্যাম্পের এক সপ্তাহ পেরুনোর পর অবশেষে রবিবার রাতে দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেডের চারজনসহ মোট আট ফুটবলার। তবে অসুস্থতার জন্য ক্যাম্পে যোগ দেননি উইঙ্গার জাহিদ হোসেন এবং ডিফেন্ডার রেজাউল করিম রেজা। এ জন্য সেরা একাদশ বাছাই করতে বেশ ঝামেলায় পড়তে হয়েছিল জাতীয় দলের ডাচ্ কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফকে। বিষয়টিকে বাফুফের আরও শক্ত হাতে সামলানো উচিত ছিল বলেও মন্তব্য করেন তিনি। এর আগে প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়া ফুটবলারদের ক্যাম্পে আনতে বাফুফে সভাপতির হস্তক্ষেপ কামনা করেছিলেন দলের ম্যানেজার আমিরুল ইসলাম বাবু।

দেশের ফুটবলে ক্লাবগুলো যে বরাবরই বাফুফের ওপর প্রভাব বিস্তার করে, তার আবারও নজির দেখল দেশের ফুটবল। কেননা বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইকে কেন্দ্র করে শুরু হওয়া অনুশীলন ক্যাম্পের সপ্তাহখানেক পেরিয়ে গেলেও যথাসময়ে শেখ রাসেলের ফুটবলারদের অনুশীলনেই আনতে পারেনি বাফুফে।

গত কয়েক দিন ১০-১৫ জনকে অনুশীলন করিয়েছেন ক্রুইফ। দলে ডাক পাওয়া ৩২ ফুটবলারের মধ্য থেকে রিয়াসাত, জামাল ভুঁইয়া, নাঈম আর সোহেলের ক্যাম্পে যোগ না দেয়ার ব্যাপারে যুক্তিসঙ্গত কারণ থাকলেও রাসেলের ফুটবলারদের নেই তেমন কোন কারণ। এ প্রসঙ্গে ক্রুইফ বলেন, ‘এটা বেশ হতাশার। কেননা এখনও আমি পুরো দলটি হাতে পাইনি। তাই দলকে নিয়ে কোন পরিকল্পনা করতে পারছি না। বিষয়টি বাফুফের আরও শক্ত হাতে সামলানো উচিত ছিল।’ কেন রাসেলের ফুটবলাররা অনুশীলন ক্যাম্পে যোগ দেননি, এর সুনির্দিষ্ট কারণ জানা নেই খোদ বাফুফেরও। তাই বিষয়টি সমাধানে বাফুফে সভাপতির সহযোগিতা প্রার্থনা করেছিলেন দলের ম্যানেজার আমিরুল ইসলাম বাবু।

আগামী ১১ জুন কিরগিজস্তান এবং ১৬ জুন তাজিকিস্তানের বিরুদ্ধে ঢাকায় ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব ও ২০১৯ সংযুক্ত আরব আমিরাত এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বের ম্যাচে অংশ নেবে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। সেই ম্যাচ দুটি খেলার আগে সিঙ্গাপুর ও আফগানিস্তান জাতীয় দলের সঙ্গে দুটি ম্যাচ খেলে নিজেদের ঝালিয়ে নিতে চায় ‘বেঙ্গল টাইগার্স’ খ্যাত বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। সিঙ্গাপুরের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ মাঠে নামবে আগামী ৩০ মে, আর আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ২ জুন। দুটি ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে, বিকেল ৪টায়। সিঙ্গাপুর জাতীয় দল আসছে আগামী ২৮ মে। আর আফগানিস্তান আসবে ৩০ বা ৩১ মে। দুটি ম্যাচই পাবে ফিফার স্বীকৃতি। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ডাচ্ কোচ লোডভিক ডি ক্র্ইুফ ৩২ ফুটবলার নিয়ে ঘোষণা করেছেন প্রাথমিক স্কোয়াড। দলে স্থান পেয়েছেন নতুন দুই ফুটবলার। জাতীয় দলে নতুন দুই মুখ হলেন ঢাকা মোহামেডানের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা, টিম বিজেএমসির গোলরক্ষক মোহাম্মদ নাঈম। চলমান পেশাদার লীগে ভাল খেলে ক্রুইফের দৃষ্টি আকষর্ণ করেছেন সাত ফুটবলার। তাছাড়া ফিলিপিন্স লীগে ভাল খেলে পুনরায় ডাক পেয়েছেন জার্মান প্রবাসী বাংলাদেশী রিয়াসাত। ক্যাম্পে আবারও ডাক পাওয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ারের এই সাত ফুটবলার হলেনÑ রেজাউল করিম (শেখ রাসেল), কেষ্ট কুমার বোস (শেখ জামাল), শাহেদুল আলম (ঢাকা আবাহনী), ইমন মাহমুদ (ঢাকা আবাহনী), এনামুল হক (মুক্তিযোদ্ধা), তৌহিদুল আলম সবুজ (মোহামেডান) ও জুয়েল রানা (মোহামেডান)। এছাড়া জাতীয় দলে আগে খেলেছেন এমন তিন ফুটবলার বাদ পড়েন। এরা হলেনÑ দুই ফরোয়ার্ড মিঠুন চৌধুরী এবং সাখাওয়াত হোসেন রনি ও আতিকুর রহমান মিশু। ডাক পাওয়া ৩২ জনের মধ্যে সর্বাধিক ১৫ জনই হচ্ছেন শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাবের। এছাড়া ঢাকা আবাহনীর ৬, শেখ রাসেলের ৫, মোহামেডানের ৩, টিম বিজেএমসির ১, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ১ এবং জার্মান প্রবাসী ১ জন ফুটবলার আছেন। ডাক পাওয়া খেলোয়াড়রা ১৭ মে বাফুফে ভবনে রিপোর্ট করেন। এরপর থেকে দলকে যথাক্রমে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম এবং শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব মাঠে অনুশীলন করাচ্ছেন ক্রুইফ।

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫

২৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: