কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গাজীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ ও ৬ আসামি নিহত

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫
  • অন্যত্র হত ৯

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ২৫ মে ॥ গাজীপুরে আসামি বহনকারী পুলিশের একটি লেগুনার সঙ্গে কাভার্ডভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পুলিশের এক কনস্টেবল ও বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতারকৃত ৬ আসামি নিহত এবং ১২ জন আহত হয়েছেন। সোমবার বিকেলে শ্রীপুর থানা থেকে আদালতে আসামি নেয়ার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। হতাহতরা সবাই লেগুনার যাত্রী। নিহতরা হলেন- পুলিশের কনস্টেবল মোস্তফা কামাল (৫৫), শ্রীপুর থানার নোয়াগাঁও এলাকার আমির হোসেনের ছেলে লেগুনাচালক মমিনুল হক (২৮), একই থানার বরমী দাইপাড়া টেক এলাকার আব্দুল হামিদের ছেলে সোহেল (২০) এবং মানিক (২৮)। নিহত অন্যদের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় শ্রীপুর মডেল থানার ওসি আব্দুল মোতালেবকে দায়িত্বে অবহেলার কারণে ক্লোজ করে পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।

শ্রীপুর মডেল থানার ডিউটি অফিসার মনিরুজ্জামান জানান, গাজীপুরের শ্রীপুর মডেল থানার বিভিন্ন মামলার গ্রেফতারকৃত ১৩ আসামিকে নিয়ে সোমবার বিকেলে (৪টার দিকে) পুলিশের ছয়জন সদস্য যাত্রীবাহী একটি লেগুনায় করে গাজীপুর আদালতের উদ্দেশে যাচ্ছিল। পথে লেগুনাটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের পোড়াবাড়ি এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি কাভার্ডভ্যানের সঙ্গে লেগুনাটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ছয় আসামি নিহত এবং পুলিশসহ অপর ১৩ জন আহত হন। স্থানীয়রা হতাহতদের উদ্ধার করে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। পরে সেখান থেকে গুরুতর আহত পুলিশ কনস্টেবল মোস্তফা কামাল (৫৫), আশরাফ (৪২), জুলহাসসহ (৩০) সাইফুল ইসলাম (২০) ও মনির হোসেনকে (২২) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতালে নেয়ার পথে পুলিশ কনস্টেবল মোস্তফা কামাল (৫৫) মারা যান বলে জয়দেবপুর থানার ওসি খন্দকার রোজাইল হাসান জানিয়েছেন। আহত অন্যরা হলো তোফাজ্জল (৩৫), কামাল হোসেন (৪০), মোবারক (৪২), আনোয়ার হোসেন (২৫), শরীফ মিয়া (১৮), তামিল হাসান তুহিন (২১) ও পুলিশ কনস্টেবল আব্দুল মান্নান (৫২)। এদের মধ্যে ৬ জনকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্টাফ রিপোর্টার রংপুর থেকে জানান, একটি যাত্রীবাহী বাস দুটি থ্রি হুইলার (মাহিন্দ্রা) এবং মোটরসাইকেলের আরোহীকে চাপা দিলে মা-মেয়ে ও নাতিসহ একই পরিবারের ৬ জন নিহত এবং ৯ জন আহত হয়েছে। আহতদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রংপুর দিনাজপুর মহাসড়কের হাজিরহাটে ঘটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিজস্ব সংবাদদাতা কলাপাড়া থেকে জানান, কুয়াকাটাগামী বিকল্প সড়কের হাড়িপাড়ায় ভাড়াটে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মোঃ জিয়া (৩৪) নামে এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। সোমবার বেলা সাড়ে এগারোটায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। আহত হয়েছেন চালক সাইফুল। জিয়ার বাড়ি নীলগঞ্জ ইউনিয়নের মোস্তফাপুর গ্রামে। তার বাবার নাম ডাঃ হাবিবুর রহমান। জিয়া আবুল খায়ের টোব্যাকো কোম্পানির কর্মী। বালিয়াতলী থেকে ভাড়াটে মোটরসাইকেলে শ্বশুরবাড়ি লক্ষ্মীরবাজার যাচ্ছিলেন তিনি।

নিজস্ব সংবাদদাতা সাভার থেকে জানান, সাভারে যাত্রীবাহী বাসচাপায় মারা গেছে এক ব্যক্তি। সোমবার সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার মডেল থানাধীন তালবাগ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম ছাদেক আলী (৫৫)। বাড়ি রংপুর জেলার মিঠাপুকুর থানার গাড়ালচৌকি গ্রামে।

স্টাফ রিপোর্টার বাগেরহাট থেকে জানান, মোল্লাহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় মাসুদ শেখ (২৩) নামে এক যাত্রী নিহত ও অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। সোমবার ভোরে বাগেরহাট-মাওয়া মহাসড়কের মোল্লাহাট উপজেলার চাঁদেরহাটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত মাসুদ শেখ মংলা বন্দর এলাকার রাতারাতি কলোনির আব্দুর রহিমের ছেলে।

নিজস্ব সংবাদদাতা নড়াইল থেকে জানান, নড়াইলের লোহাগড়ায় ট্রাক-জেএসএ (থ্রি-হুইলার) মুখোমুখি সংঘর্ষে ৮ জন আহত হয়েছে। সোমবার দুপুরে নড়াইল-কালনা সড়কের ব্র্যাক অফিসের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, লোহাগড়া থেকে নড়াইলগামী একটি ট্রাকের সাথে বিপরীত দিকে থেকে আসা জেএসএ (থ্রি-হুইলার) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে জেএসএর যাত্রীরা গুরুতর আহত হয়। আহতদের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫

২৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: