আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

হবিগঞ্জের ৩ রাজাকারের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক চার্জ দাখিল

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার
  • চার্জ আমলে নেয়া হবে কিনা আদেশ ৩১ মে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জের দুই সহোদর মহিবুর রহমান বড় মিয়া ও মুজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়া ও তাদের চাচাত ভাই আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করেছে প্রসিকিউশন। আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আমলে নেয়া হবে কি হবে না, সে বিষয়ে আদেশের দিন ৩১ মে নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্যদিকে কক্সবাজারের মহেশখালীর গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি মাওলানা শামসুদ্দোহাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে মোট ৭ আসামিকে গ্রেফতার করা হলো। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জের তিন রাজাকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেবে কি নেবে না সে বিষয়ে আদেশ প্রদান করা হবে ৩১ মে। সোমবার আসামি হিবুর রহমান বড় মিয়া, মুজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়া ও আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিল করেন প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানা চমন। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ, অপহরণ, নির্যাতন, অগ্নিসংযোগসহ চারটি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে আনুষ্ঠানিক অভিযোগে। ২০১৪ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি একই মামলার আসামি মহিবুর ও মুজিবুরের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে গত ২৮ এপ্রিল শেষ করেন এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নুর হোসেন। ২৯ এপ্রিল ধানম-ি কার্যালয় সেফহোমে এক সংবাদ সম্মেলনে তদন্তের প্রতিবেদন প্রকাশ করে তদন্ত সংস্থা। গত ১০ ফেব্রুয়ারি তদন্তের স্বার্থে মহিবুর রহমান বড় মিয়া ও মুজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়াকে গ্রেফতারের আবেদন জানায় প্রসিকিউশন। ওই আবেদনের শুনানি শেষে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ট্রাইব্যুনাল। এরপর পরই বেলা বারোটার দিকে নবীগঞ্জে ইমামবাড়ি থেকে খাগাউড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান বড় মিয়া (৭০) ও তার ছোট ভাই বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান আঙ্গুর মিয়াকে (৬৫) গ্রেফতার করে হবিগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশ। ১২ ফেব্রুয়ারি হাজির করা হলে তাদের কারাগারে পাঠিয়ে দেন ট্রাইব্যুনাল। ১১ মার্চ রাজাকার কমান্ডার বড় মিয়া ও আঙ্গুর মিয়াকে সেফহোমে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে তদন্ত সংস্থা।

শামসুদ্দোহাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ ॥ কক্সবাজারের মহেশখালীতে একাত্তরে মানবতাবিরোধী মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি মাওলানা শামসুদ্দোহাকে সোমবার ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়েছে। তিনি বড় মহেশখালী ইউনিয়নের দেভাঙ্গপাড়া গ্রামের মরহুম রওশন আলীর ছেলে। ট্রাইব্যুনাল তাকে জেল হাজতে পাঠানোর পাশাপাশি তাকে যথাযথ চিকিৎসা দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ সোমবার এই আদেশ দেন।

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫

২৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: