আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দেশ-কাল ও মানুষের মিলনের বাঁশি নজরুলের প্রতি শ্রদ্ধা

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫
  • নানান আয়োজনে জাতীয় কবির জন্ম দিবস পালিত

জনকণ্ঠ রিপোর্ট ॥ সৃষ্টির আলোয় একই সঙ্গে মানবতা ও প্রেমকে ধারণ করেছিলেন তিনি। কবিতা কিংবা গানে ছড়িয়েছেন সাম্যের বাণী। সমাজ কিংবা রাষ্ট্র সৃষ্ট শ্রেণী বৈষম্যের বিরুদ্ধে উচ্চারণ করেছিলেন- ‘সকল কালের সকল দেশের/সকল মানুষ/এক মোহনায় দাঁড়াইয়া শোনো/এক মিলনের বাঁশী’। অন্যদিকে অন্যায় কিংবা শোষণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে তাঁর কলম। মানবতার দীক্ষায় দীক্ষিত হয়ে মানেননি জাত-পাত বা ধর্মের সীমারেখা। ব্রিটিশ শাসনামলে বিদ্রোহী কবিতা লিখে প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাম্রাজ্যবাদী আগ্রাসনের বিরুদ্ধে। তাইতো বাঙালীর মুক্তির সংগ্রামে অনুপ্রেরণার অনন্ত উৎস হয়েছিল তাঁর গান কিংবা কবিতা। এভাবেই দ্রোহ, প্রেম, সাম্য, মানবতা ও বিপ্লবের কবি হিসেবে আপন আসনটি পেতেছিলেন বাংলা শিল্প-সাহিত্যের অনুরাগীদের মনের কোঠায়। সঙ্কট বা দুঃসময়ে আজো তিনি বাঙালীর অনন্ত অনুপ্রেরণার উৎস। তিনি আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম। এগারোই জ্যৈষ্ঠ সোমবার ছিল গণমানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার এই লড়াকু কবির ১১৬তম জন্মবার্ষিকী। বাংলা সাহিত্য ও শিল্পের নতুন পথের দিশারী এই কবির জন্মদিনে হৃদয় উৎসারিত ভালবাসার সঙ্গে কবির অসাম্প্রদায়িক ও মানবতাবাদী চেতনার অনুরণন ছিল গোটা জাতির অন্তরে। কবির জন্মজয়ন্তী উদ্্যাপনে দেশব্যাপী ছিল নানা আয়োজন। গানের সুরে, কবিতার ছন্দে, বক্তার কথায় কিংবা নৃত্যের মুদ্রায় সাম্য ও সম্প্রীতির বার্তায় উদ্্যাপিত হলো নজরুলজয়ন্তী। সকাল থেকেই শুরু হয় মানবতার কবিকে অঞ্জলি অর্পণের আনুষ্ঠানিকতা। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ফুলে ফুলে ভরে ওঠে শাহবাগের কবির সমাধি। ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদনের পাশাপাশি বর্ণিল নানা অনুষ্ঠানে নৃত্য-গীত, কবিতা ও কথায় স্মরণ করা হয় কবিকে। রাষ্ট্রীয়ভাবে দিনটি উদযাপনের পাশাপাশি ছিল নানা প্রাতিষ্ঠানিক আয়োজন। জাতীয় পত্রিকাগুলো গুরুত্বসহকারে প্রকাশ করেছে নজরুলজয়ন্তীর বিশেষ প্রতিবেদন। একইভাবে সরকারী-বেসরকারী টেলিভিশনে ও বেতারে প্রচারিত হয়েছে নজরুলজয়ন্তীর বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালা। সব মিলিয়ে দিনটি ছিল নজরুলময়। অনুরাগীদের অন্তরের গহীন ভালবাসা ও বন্দনায় কেটেছে মানবতা ও সাম্যের কবির জন্মজয়ন্তী। দিনভর বর্ণিল আয়োজনে ঢাকাসহ সারাদেশে হৃদয়ের উষ্ণতায় উদযাপিত হয়েছে জাতীয় কবির জন্মদিন। সব মিলিয়ে তিলোত্তমা নগরী ঢাকা হয়ে উঠেছিল হয়েছিল নজরুলময়। প্রতিটি আয়োজনে ছিল নজরুলকে নতুন করে আবিষ্কারের অবিরত প্রচেষ্টা।

এ বছর জাতীয় পর্যায়ে জাতীয় কবির জন্মজয়ন্তী উদ্্যাপনের মূল আয়োজনটি অনুষ্ঠিত হয় কবির স্মৃতিবিজড়িত কুমিল্লায়। বিকেলে কুমিল্লার টাউন হল চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ অনুষ্ঠানে ‘নজরুল স্মারক’ বক্তৃতা দেন অধ্যাপক শান্তনু কায়সার। সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, রেলমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক, কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার ও নজরুল ইনস্টিটিউটের ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি এমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। স্বাগত ভাষণ দেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব আকতারী মমতাজ। এছাড়াও জাতীয় পর্যায়ে নজরুলজয়ন্তী উদ্যাপনে ময়মনসিংহের ত্রিশালে বিশেষ কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়। নজরুলের স্মৃতিধন্য দরিরামপুরে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়।

ফুলে ফুলে আবৃত কবির সমাধি ॥ পুব আকাশে সূর্যোদয়ের পরপরই শুরু হয় জন্মদিনে কবিকে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন পর্ব। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত কবির সমাধিতে পুষ্পাঞ্জলি নিবেদনের মাধ্যমে কবিকে স্মরণের কর্মসূচীর সূচনা হয়। গোলাপ, গাঁদা, রজনীগন্ধাসহ রকমারি ফুলের তোড়ায় ছেয়ে যায় সমাধিসৌধ। কিছুক্ষণের মধ্যেই ফুলে ফুলে ঢেকে যায় নজরুলের সমাধি। সোনা রোদে রাঙানো সকালের শুভ্রতা আর পবিত্রতার সঙ্গে ভালবাসার পরশ ছিল সেসব ফুলেল নিবেদনে।

শিল্পকলা একাডেমির নজরুল উৎসব শুরু ॥ সোমবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে শুরু হলো দু’দিনের নজরুল উৎসব। প্রথম দিনের আয়োজনে ছিল গান-কবিতা ও নৃত্য পরিবেশনা। এদিন একাডেমির সচিব জাহাঙ্গীর হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন ভাষাসংগ্রামী আহমদ রফিক ও অধ্যাপক ড. করুণাময় গোস্বামী। আলোচনা শেষে শুরু হয় সুরের মূর্ছনা। অনেক কচিকণ্ঠ এক সুরে গেয়ে যায় ‘মোরা ঝঞ্ঝার মতো উদ্দাম’ ও ‘শুকনো পাতার নূপুরে’ গানটি। পরিবেশন করে একাডেমির প্রশিক্ষণ বিভাগের শিশুশিল্পীরা। এছাড়া ভাওয়াইয়া প্রশিক্ষণার্থী দলও বেশকিছু গান পরিবেশন করেন। নজরুলের ভাবসম্পদ থেকে সৃষ্ট ‘দ্রোহ ও সৃষ্টি’ শীর্ষক সমবেত নৃত্যালেখ্য পরিবেশন করে শিল্পকলা একাডেমির রেপার্টরি নৃত্য দল।

চ্যানেল আই ভবনে নজরুল মেলা ॥ ১১৬তম নজরুলজয়ন্তী উপলক্ষে তেজগাঁওয়ের চ্যানেল আই ভবনে অনুষ্ঠিত হয় দিনব্যাপী নজরুল মেলা।

নজরুল একাডেমির অনুষ্ঠানমালার সমাপ্তি ॥ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে নজরুল একাডেমির চারদিনের অনুষ্ঠানমালার সমাপনী দিন ছিল সোমবার।

জাদুঘরের নজরুলজয়ন্তীর অনুষ্ঠানমালা আজ ॥ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মজয়ন্তী উদ্যাপন উপলক্ষে জাতীয় জাদুঘর আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় প্রধান মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি।

আগামী শুক্রবার থেকে ছায়ানটের আয়োজনে শুরু হচ্ছে দু’দিনব্যাপী নজরুল উৎসব। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় ছায়ানট সংস্কৃতি-ভবনে উৎসব উদ্বোধন করবেন শিল্পী এসএম আহসান মুর্শেদ। থাকবে একক গান, আবৃত্তি, পাঠসহ নানা আয়োজন। দ্বিতীয় দিন শনিবার নজরুল স্মারক বক্তৃতা প্রদান করবেন অধ্যাপক সুমন সাজ্জাদ। থাকবে হিন্দোলের সম্মেলক গান আর নৃত্যদল নৃত্যনন্দনের পরিবেশনা। পাশাপাশি থাকবে অতিথি শিল্পী ও ছায়ানটের শিক্ষার্থীদের একক গান, আবৃত্তি ও পাঠ।

প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৫

২৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: