রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এবার ট্রাকে নারী ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত : ২৫ মে ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ২৪ মে ॥ এবার ট্রাকে এক নারীকে নেশাযুক্ত কোমল পানীয় খাইয়ে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ডাক্তার দেখিয়ে বাসায় ফেরার পথে শনিবার রাতে ট্রাকচালক তাকে শারীরিক নির্যাতন ও ধর্ষণ করেছে বলে শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই নারী দাবি করেন। তবে ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা প্রাথমিকভাবে শারীরিক নির্যাতনের আলামত পেলেও ধর্ষণের কোন আলামত পাননি বলে জানান। একই সঙ্গে নেশাযুক্ত কোমল পানীয় খেয়ে অসুস্থ স্বামীও একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ওই নারী জানান, ঢাকার খিলগাঁও এলাকায় ডাক্তার দেখিয়ে শনিবার রাতে তিনি বাসায় ফিরতে স্বামীকে নিয়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। বাসে উঠতে না পেরে রাস্তার পাশে দীর্ঘক্ষণ বসে ছিলেন। পরে রাত সাড়ে নয়টার দিকে এক ট্রাক ড্রাইভার এসে তাদের সামনে দাঁড়ায় এবং তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দেয়ার প্রস্তাব দিলে স্বামী-স্ত্রী ওই ট্রাকে উঠে চালকের পাশেই বসেন। পরে গরমের মধ্যে পথে ট্রাকের চালক আমাদের ‘ফানটা’ এনে খাওয়ায়। এর কিছু সময় পরই আমাদের ঘুম ঘুম (নেশা অবস্থা) ভাব দেখা দেয়। এ সময় চালকের কথামতো আমার স্বামী চালকের পেছনে ওপরের সিটে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। পরে ট্রাকচালক গাড়ি থামিয়ে অস্ত্রের মুখে মারধর ও গলায় কাপড় পেঁচিয়ে তাকে জোর করে ধর্ষণ করে। পরে ট্রাকচালক মোবাইল ফোন ও টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নেয় বলে দাবি করেন তিনি। এ ঘটনার পর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের তেলিপাড়া এলাকায় স্বামী-স্ত্রী দু’জনকেই ট্রাক থেকে ফেলে পালিয়ে যায় চালক। পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় সেখান থেকে উদ্ধার হয়ে তারা রবিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে গাজীপুরের ওই হাসপাতালে ভর্তি হয়। এ সময়ও তাদের মধ্যে নেশার ভাব ছিল।

সিদ্ধিরগঞ্জ ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় এলাকায় খালার বাসায় বেড়াতে এসে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। আপন খালু দুলাল মিয়া তাকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করা হয়। ঘটনাটি মীমাংসার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে রবিবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ধর্ষক খালু দুলাল মিয়াকে গ্রেফতার করেছে। গত ১৭ মে ওই কিশোরী কাঁচপুর এলাকা থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় এলাকার খালার বাসায় বেড়াতে আসে। রাতে বাসার সবাই ঘুমিয়ে পড়লে লম্পট খালু দুলাল মিয়া (৩৫) কিশোরীকে ধর্ষণ করে। পরের দিন সকালে কিশোরীকে দুলাল মিয়া তার পিতার বাসা কাঁচপুরে দিয়ে আসে। কিশোরী বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার সৎমাকে জানায়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে রবিবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি সরাফত উল্লাহ ঘটনাটি স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় মামলা নেয়া হয়েছে। ধর্ষক খালু দুলাল মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৫ মে ২০১৫

২৫/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: