রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সৌদিতে শিয়া মসজিদে আইএস জঙ্গীর আত্মঘাতী হামলা

প্রকাশিত : ২৩ মে ২০১৫
  • ২১ মুসল্লি নিহত আহত শতাধিক

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় কাতিফ প্রদেশের কুদিহ শহরে এক শিয়া মসজিদে আইএস জঙ্গীর আত্মঘাতী হামলায় ২১ মুসল্লি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন শতাধিক। আহত অনেকের অবস্থাই আশঙ্কাজনক। কাতিফের বেশিরভাগ লোকই শিয়ামতাবলম্বী। ঘটনার পর এক বিবৃতিতে আইএস এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। আবু আমর আল নজদি নামের এক জঙ্গী এই হামলা চালিয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এই জঙ্গীর ছবিও প্রকাশ করেছে আইএস।

শুক্রবার জুমার নামাজ চলাকালে আবু আমর আল নজদি নামের এই জঙ্গী কুদিহ শহরের আলী ইবনে আবু তালেব মসজিদে আত্মঘাতী হামলা চালায়। সে তার শরীরের সঙ্গে বেঁধে রাখা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এ সময় মসজিদটিতে অন্তত দেড় শ’ মুসল্লি নামাজ আদায় করছিলেন। এ হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া কামাল জাফর হাসান নামে এক মুসল্লি টেলিফোনে বলেন, আমরা জুমার নামাজ পড়ার সময় বিস্ফোরণের শব্দ শুনি। ঘটনার পর হতাহতের ছবি সামাজিক যোগাযোগ সাইটে প্রকাশ করা হয়। লেবাননের আল-মানার টেলিভিশনের প্রচারিত ছবিতে দেখা যায়, মসজিদের ভেতরে হেলে পড়া খুঁটির সঙ্গে ভাঙ্গা কাঁচ ও কংক্রিটের টুকরো পড়ে আছে। মেঝেতে সারিবেঁধে রাখা হয়েছে কয়েকটি মৃতদেহ। সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, কাতিফের এক মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজ চলাকালে বড় ধরনের বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেছেন, এ ঘটনার তদন্ত করা হবে। পরে তদন্তের বিস্তারিত ফল প্রকাশ করা হবে। সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলে এ ধরনের হামলার ঘটনা বিরল বলে গণমাধ্যমের খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। খবর আরব নিউজ, বিবিসি, এএফপি, খালিজ টাইমস ও আলজাজিরার।

হামলার পরই কাতিফের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রক্ত সংগ্রহে জরুরী সেল খোলে এবং আহতদের সেবায় কর্মীদের শুক্রবারের ছুটি বাতিল করে দেয়। সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন আরব জোট যখন পাশের দেশ ইয়েমেনে শিয়া বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালাচ্ছে ঠিক তখনই এই আত্মঘাতী হামলার ঘটনা ঘটল। এর আগে তেলসমৃদ্ধ সৌদি আরবের কাতিফ ও আল আশা এলাকায় বসবাসরত শিয়ারা অধিকারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখায়। তবে এ অঞ্চলের মসজিদে হামলার ঘটনা এই প্রথম।

আইএসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, খিলাফতের সৈন্যরা এই হামলা চালিয়েছে। বিবৃতিতে অঙ্গীকার করে আরও বলা হয়েছে, শিয়াদের জন্য সামনে অন্ধকারময় দিন অপেক্ষা করছে। তাদের আরব উপদ্বীপ থেকে বিতারিত করা হবে।

প্রকাশিত : ২৩ মে ২০১৫

২৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: