আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

যুক্তরাজ্যে শিকড়ের গান

প্রকাশিত : ২৩ মে ২০১৫
যুক্তরাজ্যে শিকড়ের গান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুক্তরাজ্যে আগামী জুন মাসে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিশ্ব সঙ্গীত ম্যাগাজিন সংলাইন্স আয়োজিত বার্ষিক ‘সংলাইন্স এনকাউন্টারস উৎসব’। ওই উৎসবের সমাপনী দিনে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী লোকসঙ্গীতের সংগঠন ‘শিকড় বাংলাদেশ’-এর সাত গুণীশিল্পী। জানাযায়, এই উৎসবে শিকড় বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো অংশ নিতে যাচ্ছে। উৎসবের সবশেষে থাকবে ‘শিকড়’ এবং ‘লক্ষ্মীটেড়া’র যৌথ পরিবেশনা। উৎসবে শিকড় বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেবেন বিশিষ্ট ঢোলবাদক নজরুল ইসলাম। তিনি রুনা লায়লা, মমতাজসহ হালের বাংলা, ‘অর্নব এ্যান্ড ফ্রেন্ডস’ প্রভৃতি ব্যান্ড এবং স্বনামধন্য সঙ্গীত পরিচালকদের সঙ্গে অনেক অনুষ্ঠানে বাজিয়েছেন। উৎসবে নজরুল ইসলাম ছাড়াও আরও অংশ নেবেন প্রখ্যাত বাউলশিল্পী বেবি আখতার, শিল্পী রব ফকির, অনুপ কুমার ম ল, মোবারক হোসেন এবং নতুন প্রজন্মের জনপ্রিয় শিল্পী লাবিক কামাল গৌরব। শিল্পীদের সঙ্গে বাঁশি সঙ্গত করবেন স্বনামধন্য বংশীবাদক জালাল আহমেদ। অন্যদিকে ‘লক্ষ্মীটেড়া’ যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি সাংস্কৃতিক সঙ্গীত দল। ‘লক্ষ্মীটেড়া’র দলপ্রধান বিশিষ্ট সঙ্গীতজ্ঞ কিশন খান একজন সুখ্যাত পিয়ানো এবং কিবোর্ড বাদক। লন্ডন এবং বাংলাদেশের দুই দলের একই মঞ্চে মুখোমুখি যুগলবন্দী পরিবেশনায় বাংলা-আফ্রো-ল্যাতিন-জ্যাজ বিভিন্ন সঙ্গীতের সংমিশ্রণে এক ব্যতিক্রমী আবহের সৃষ্টি হবে বলে আয়োজকরা আশা করছেন। উৎসবে শিকড় বাংলাদেশের অংশগ্রহণে সহযোগিতা করেছেন সংলাইন্স ম্যাগাজিন, আইকন আর্টস ম্যানেজমেন্ট এবং কালচারপট গ্লোবালের প্রতিষ্ঠাতা রুনি খান। পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এই সাংস্কৃতিক সফর সফল করতে সহযোগিতা করছে। এ প্রসঙ্গে রুনি খান বলেন, আমাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য শুধু বাংলাদেশের অভিবাসীদের জন্যই প্রাসঙ্গিক নয়, তা বিশ্বব্যাপী সঙ্গীত পিপাসুদের জন্যও সমান গুরুত্বপূর্ণ। ২০০৫ সালে ইউনেস্কো বাউল সঙ্গীতকে ‘ধরা ছোঁয়ার বাইরে’ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছে। এ উৎসবে শিকড় বাংলাদেশের শিল্পীরা ঐতিহ্য এবং সমসাময়িকতার সংমিশ্রণে বিশ্বসঙ্গীত ধারায় বাংলাদেশের সঙ্গীতের ঐতিহ্যকে পরিচিত করাবেন বলে প্রকাশ করেন রুনি খান। জানা গেছে শিকড় বাংলাদেশের প্রথম এ্যালবাম ‘সোল অফ বেঙ্গল’ সম্প্রতি ফাঙ্কিওয়ালা রেকর্ডসের ব্যানারে মুক্তি পেয়েছে।

উৎসবে বাংলাদেশের শিল্পীদের অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে সংলাইন্সের প্রধান সম্পাদক সাইমন ব্রাউটন বলেন, বিশ্বসঙ্গীত সম্পর্কে যথেষ্ট ধারণা আছে যাদের, তাদের কাছেও বাংলাদেশের এই সঙ্গীত-ধ্বনি অচেনা। তাই সঙ্গীত-ধ্বনির এই প্রসিদ্ধ ধারাটিকে বিশ্বে পরিচিত করার জন্যই বাংলাদেশের দলটিকে উৎসবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ভারতে যেখানে লোকসঙ্গীত ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে, সেখানে এই ধারাটি বাংলাদেশে দিনদিন সমৃদ্ধশালী হচ্ছে। উৎসব উদযাপনে লোকসঙ্গীত আজ অপরিহার্য। বাংলাদেশের শিল্পীদের পরিবেশনা উৎসবে আলাদা মাত্রা যুক্ত করবে বলে আমরা আশা করছি। এদিকে শিকড় বাংলাদেশ এবং লক্ষ্মীটেড়া এ দল দুটি ওম্যাডে যুক্তরাজ্যের বৃহত্তম বিশ্বসঙ্গীত উৎসবেও অংশ নেবে বলে জানা গেছে। আগামী জুলাই মাসের ২৪-২৬ তারিখ ওম্যাড-এ উৎসব অনুষ্ঠিত হবে।

প্রকাশিত : ২৩ মে ২০১৫

২৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: