মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কবিতা

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

একগুচ্ছ কবিতা

কে জি মোস্তফা

গোপন কস্তূরী

অনন্ত রহস্যময়ী কবিতা আমায় করেছ একা

প্রতিদ্বন্দ্বী সময়ের উত্থান-পতনে

জীবনরসের স্বরলিপি হয়ে ভাসো তুমি স্মৃতিজলে

কখনও-সখনও স্তব্ধতার সিঁড়ি ভেঙ্গে

কয়েক পলক ছুটির অবগাহনে

কাছে আস তারপর চলে যাও

রেখে যাও হরিণী তোমার গোপন কস্তূরী।

ভালোবাসার কুসুমকাঁটায় ঘোরলাগা আলিঙ্গনে

পিষ্ট প্রেমিকশরীর, খুলে যায় কেবলই এক নবীন যৌবন

দুঃখের তমোঘœ অগ্নি আমাকে সজ্জিত করে রাজবেশে।

আজ থরো থরো যন্ত্রণার জ্বরে

মন্ত্রের মতো ক্রমশ গাঢ় থেকে গাঢ়তর

গূঢ় থেকে গূঢ়তর

জেগে ওঠে এক কঠিন আবেগ-

আমুল কাঁটায় ছিন্ন গোলাপের মতো

সমূহ প্রার্থনা : সুখে ও অসুখে, কলহে ভালোবাসায়

আমাকে জাগাও, আমাকে জাগাও।

ছায়াসঙ্গী

দোলায় শিশুরা ওঠে-

উঠতে উঠতে সহসা ছিটকে পড়ে

কেউ স্বদেশে কেউবা স্বপ্নের ভেতর।

জন্মের শৈশব থেকে স্বপ্ন দেখে

শিল্পী-কবি-সাংবাদিক

বোকারাম ওরা হাত রাখে পৃথিবীর নাড়ীর ওপর।

দেয়ালে যাদের বসবাস

রবীন্দ্রনাথ-নজরুল-জীবনানন্দ

ভাষা ওদের সঙ্কেতময়, তবু

মৃত কণ্ঠের কোরাসে কিছু কিছু শব্দ

নিঃশব্দ প্রকাশে উজ্জ্বল হয়ে উঠি

সহস্র যন্ত্রণার জাল ছিঁড়ে

রক্তের ভেতর জেগে ওঠে

মন্ত্রের মতো কবিতার এক অমোঘ ভাস্কর্য।

দয়াময় ভালোবাসা

ভালো না বাসলে দুরন্ত মেঘ থেকে

বৃষ্টি হয় না, তরতরে নদীটির মতো

মেয়েটির সাথে বন্ধুত্ব হয় না।

ভালো না বাসলে উচ্ছল ফুরফুরে হাসি

মুচমুচে হয় না, নারী থেকে রমণী,

রমণী থেকে নারী হয় না।

ভালো না বাসলে দুর্দিনে

তীব্র সংগ্রামে বেঁচে ওঠা যায় না

ধূলিমুঠি থেকে পাথর,

পাথর থেকে সোনা হয় না।

ভালো না বাসলে ফুটন্ত ফুল,

সাজানো বাগান সজীব হয় না

পেয়ালা-পিরিচের নিত্য আওয়াজে

টক্কর দেওয়া যায় না।

ভালো না বাসলে কস্মিনকালে

পাখি দেখার সখ হয় না,

পাখি দেখতে দেখতে

পাখি দেখার নেশায়

নিজের বাড়িটা পাখির খাঁচা হয়ে যায় না!

চুলকিয়ে যাও

আজকাল এখানে ওখানে সর্বত্রই উকুনের আনাগোনা

যেখানে যাই না কেন

উকুনেরা জীবনকে করে তোলে বিষময়

মানুষেরা আনন্দের সঙ্গে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে চুলকায়

চুলকোতে চুলকোতে শরীর করে রক্তাক্ত

চিরস্থায়ী শান্তি তবু মেলে না কিছুতে।

প্রত্যেকেরই নিজস্ব দুঃখ আছে

চুলকিয়ে যাও

আছে ব্যর্থতা আছে হতাশা

চুলকিয়ে যাও

রক্তে মিশে আছে অসন্তোষ

খালি চুলকিয়ে যাও।

নিষ্ফল আক্রোশে চুলকোতে চুলকোতে

মেজাজ খারাপ হবে, হয়তোবা দেখবে চামড়া আর নেই

হয়তোবা নিজেরই প্রতিকৃতি মনে হবে

নোংরার মধ্যে টলায়মান এক-একটি উকুন;

বেঁচে থাকার বিষাদে সমস্ত পৃথিবী আজ

পলকে না মরে যায় উকুনের আর্তনাদে!

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

২২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: