রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আভিজাত্যে ব্র্যান্ডের সুগন্ধি

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫
  • পান্থ আফজাল

অগণিত সৌখিন তাদের যাপিতজীবনে, সৌন্দর্য সচেতনতায় ও আভিজাত্যে সুগন্ধি ব্যবহার করেন হরহামেশাই। তবে অবশ্যই তাদের এর সৌন্দর্যপ্রিয়তা অনেকাংশে নির্ভর করে বিশ্বের বিভিন্ন নামীদামী ব্র্যান্ডের সুগন্ধি ব্যবহারের ওপর। যে কোন অনুষ্ঠান বা পার্টিতে সুগন্ধি ব্যবহারে কমবেশি সবারই দুর্বলতা আছে। তাই সৌন্দর্যসচেতন ছেলেমেয়েরা প্রায়ই সাজের অংশ হিসেবে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সুগন্ধি ব্যবহার করেন। তবে কোন সময় কোনটি ব্যবহার করা উচিত বা কোন ব্র্যান্ডের সুগন্ধি ব্যবহার করা উচিত তা নিয়ে অনেকেই দ্বিধান্বিত থাকেন। সুগন্ধি কেনার আগে এটি সম্পর্কে ধারণা থাকলে খুব সহজেই নিজের পছন্দের সুগন্ধি বেছে নেয়া যায়।

ভারসেজি হোয়াইট ক্রিস্টাল : ভারসেজি ব্র্যান্ডের হোয়াইট ক্রিস্টাল নামের এই সুগন্ধিটি পরিচিত এটির মিষ্টি ফুলের সৌরভের জন্য। রাতের পার্টিতে ব্যবহারযোগ্য হলেও দিনেও সহজে ব্যবহার করা যায়। হাল্কা ফ্রেগ্রেনসির জন্য সাজের নিত্যসঙ্গী হিসেবে সব বয়সীদের কাছে এটি জনপ্রিয়।

এ্যামাউজ অপাস আই এক্স : সংগ্রহে রাখার ও সৌখিন ব্যবহার্য সুগন্ধির মধ্যে এ্যামাউজ অপাস আই এক্স হলো এ্যামাউজের আরেকটি সংস্করণ। এর আকর্ষণীয় ও মন মাতানো রেড ফ্লাকন একটি অনন্য সৌরভপূর্ণ যা চারদিকজুড়ে বিস্তৃত থাকে। পার্টিতে ব্যবহার করা হলেও অনেকেই প্রতিদিন ব্যবহার করেন নিজের সিগনেচার পারফিউম হিসেবে। ক্রিস্টোফার চং থেকে জানা যায় যে, এটি প্রস্তুত হয়েছে অনন্য মারিয়া ক্যালাস ইন লা ট্রাভিয়াটার আদলে যা ১৯৫৮ সালে লেসবনে প্রস্তুত হয়েছিল। এ্যামাউজ অপাস আই এক্স এ তিনটি বিষয় রয়েছে। প্রথম অংশে রয়েছে সাদা ফ্লরালের সঙ্গে ঝাঁঝাল ক্ল্যাক পেপার। মাঝের অংশ হয় চামড়া এবং শেষ অংশ ওরিয়েন্টাল বা উষ্ণ এ্যানিমেলিক।

ডলসি-গাবানা ডি ওয়ান : রাতের পার্টিতে নিজেকে গ্ল্যামারাসভাবে তুলে ধরার ক্ষেত্রে ডলসি-গাবানা ব্র্যান্ডের ডলসিÑগাবানা ডি ওয়ান এর জুড়ি নেই। এটির গোল্ডেন ফ্রুটি ও ভেনিলা নোটস অন্যরকম ব্যক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলে যা যে কোন পার্টির কেন্দ্রবিন্দুতে থাকার জন্য যথেষ্ট।

ডিওর এডিক্ট-২ স্পারকল ইন পিঙ্ক : এই সুগন্ধিটি বাজারে ছাড়া হয় ২০০২ সালে। ক্রিশ্চিয়ান ডিওরের অন্যান্য সুগন্ধির মতো ‘ডিওর এডিক্ট-২ স্পারকল ইন পিঙ্ক’ও মেয়েদের কাছে জনপ্রিয়। এটির ফুলের ফ্রেগ্রেনসি হাল্কা না হলেও এর কড়া ভাবটি মোটেও বিরক্তিকর নয় বরং তা প্রাঞ্জল করে তোলে শরীর এবং মনকে। পার্টিতে ব্যবহার করা হলেও অনেকেই প্রতিদিন ব্যবহার করেন নিজের সিগনেচার পারফিউম হিসেবে।

পিঙ্ক প্রিন্সেস : পিঙ্ক প্রিন্সেস সুগন্ধিটি প্রিন্সেস মারিনা ডি বারবিউন ব্র্যান্ডের যা বানানো হয়েছে মেয়েদের ম্যাজিকাল প্রিন্সেসদের প্রতি আকর্ষণের কথা ভেবে। বন্ধুদের সঙ্গে নিত্য দিনের আড্ডায় কিংবা কোন স্পেশাল মোমেন্ট বা ডেট এ ব্যবহারের ক্ষেত্রে পিঙ্ক প্রিন্সেস, টিনএজ মেয়ে থেকে শুরু করে ইয়াং মেয়েদের পছন্দের সুগন্ধি হিসেবে পরিচিত। এটির মিক্সার ফ্রেগ্রেনসিতে রয়েছে গোলাপ, মিষ্টি আপেল এবং মরিচের ঝাঁঝওয়ালা গোলাপি জাম, যা মিষ্টি সৌরভ ও হাল্কা ঝাঁঝের মিশ্রণে রোমান্সের আবহ সৃষ্টি করে।

এ্যাডিডাস : এ্যাডিডাস ব্র্যান্ড হিসেবে ছেলে-মেয়েদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন ফ্রেগ্রেনসির সুগন্ধি। পিউর লাইটনেস , ফ্রুটি রিডম, ন্যাচারাল ভাইটালিটি, ফ্লোরাল ড্রিম, ট্রোপিকাল প্যাসনসহ আরও অনেক সুগন্ধি যার প্রত্যেকটিরই আছে আলাদা ফ্রেগ্রেনসি ও নোটস। দীর্ঘস্থায়ী সৌরভ এবং দাম তুলনামূলকভাবে কম হওয়ায় বেশিরভাগ ছেলেমেয়ে নিজেকে সবসময় সতেজ রাখতে এই ব্র্যান্ডের সুগন্ধি ব্যবহার করে।

ভিক্টোরিয়া সিক্রেট : ভিক্টোরিয়া সিক্রেট ব্র্যান্ডের সুগন্ধি সব বয়সী মেয়েদের কাছে সমান জনপ্রিয়। এই ব্র্যান্ডে পাওয়া যায় বিভিন্ন ফ্রেগ্রেনসির ও বিভিন্ন নোটসের সুগন্ধি এবং দামও অন্যান্য ব্র্যান্ডের তুলনায় কম। যে কোন ধরনের অনুষ্ঠানে ও প্রতিদিন ব্যবহারের জন্য এখানে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের সুগন্ধি যেমন- ভিক্টোরিয়া সিক্রেট পিঙ্ক, ড্রিম এনজেল হেভেনলি শাইন, ভিক্টোরিয়া সিক্রেট সিম্পলি গরজিয়াস, সো ইন লাভ, বোম্বশ্যাল, বডি অব ভিক্টোরিয়া।

গুচি গিল্টি : নিজের স্বতন্ত্র ভাব প্রকাশের জন্য এবং নিজেকে আরও আকর্ষণীয়ভাবে তুলে ধরার জন্য সৌন্দর্যসচেতন মেয়েরা ‘গুচি গিল্টি’ কে পছন্দের শীর্ষে রাখে। গুচি ব্র্যান্ডের এই সুগন্ধিটি, এর কড়া নোটসের মাধ্যমে স্বাধীনচেতা মেয়েদের নিয়মের বাইরে গিয়ে নিজের একটি আলাদা ইমেজ তৈরি করার সাহস দেয়।

ব্র্যান্ডের সুগন্ধি যেখানে পাবেন : বাংলাদেশের যে কোন শপিং মলের কসমেটিক্সের দোকানে সুগন্ধিগুলো কিনতে পাওয়া যায়। তবে বেশির ভাগই নকল সুগন্ধি পাওয়া যাবে, তাই কেনার আগে সাবধান! অনেকে দেশের বাইরে থেকে সুগন্ধি নিয়ে আসেন আবার কেউ কেউ দেশের নামকরা সুগন্ধি দোকানগুলোতে গিয়ে সুগন্ধি কিনে থাকেন। দেশের মধ্যে বড় বড় শপিং মল, যেমন-বসুন্ধরা সিটি শপিং মল, যমুনা ফিউচার পার্ক, পিঙ্ক সিটি, রাপা প্লাজা, মাস্কট প্লাজা, আলমাসে গিয়ে ওরিজিনাল সুগন্ধি ব্র্যান্ড দেখে কিনে নিতে পারবেন। পছন্দের ব্র্যান্ড ও রকম অনুসারে তরুণ-তরুণীসহ সকল বয়সের জন্য এইসব নির্দিষ্ট ব্র্যান্ড নির্দেশিত দোকানে কিনতে পারবেন নামকরা সব রকমারি সুগন্ধি। রাজধানির ধানমি , বারিধারা, গুলশান, বনানি, বিজয়নগর, এলিফেন্ট রোড, উত্তরা, মিরপুর ডিওএইচএস, ওয়ারীসহ অভিজাত এলাকায় গড়ে উঠা শপিং সেন্টারেও পাওয়া যাবে নামকরা ব্র্যান্ডের সুগন্ধি। এছাড়াও শুধু সুগন্ধির জন্য যে দোকানগুলো রয়েছে, সেখানে সুগন্ধির নোটস চেক করার ব্যবস্থা থাকায় খুব সহজেই নিজের পছন্দের সুগন্ধি বেছে কেনা যায়।

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

২২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: