মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

রাজশাহীতে ব্যতিক্রমী সফেদা রঙের আম!

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

মামুন-অর-রশিদ, রাজশাহী ॥ আমের জন্য প্রসিদ্ধ রাজশাহী অঞ্চলের গাছে গাছে এখন দৃষ্টি দিলেই মিলবে থোকায় থোকায় সবুজ আম। ক্রমেই এগুলো বড় হচ্ছে। আর কদিন পরই বাজারে দেখা মিলবে পাকা আমের।

মুকুল ঝরে গুটি হওয়া পর্যন্ত কাঁচা আমের রং সাধারণত সবুজ বর্ণের হয়। পাকা আমের রংও অনেকটা থাকে সবুজ। তবে এবার রাজশাহীর একটি গাছে ঝুলতে দেখা গেছে সফেদা বর্ণের আম। না, সেটি পাকা আম নয়। কাঁচা আমের রংটাই এমন। অবিশ্বাস্য হলেও এটিই সত্যি সফেদা (সাদার সঙ্গে হাল্কা লালের মিশ্রণ) রঙের কাঁচা আম। পাকলেও এর রং থাকে একই। রঙের কোন পার্থক্য হয় না।

এমন আম গাছে সফেদা রঙের কাঁচা আম ঝুলতে দেখা গেছে রাজশাহী দুর্গাপুর উপজেলার শিবপুর উত্তরপাড়ার আহাদ আলীর একটি গাছে। আশপাশে আরও অনেক আম গাছ রয়েছে সেগুলোর আমের রং সবুজ থাকলেও ব্যতিক্রম শুধু ওই গাছে। এ গাছে শুরু থেকেই আম আসে সফেদা বর্ণ ধারণ করে। যে কেউ গাছের দিকে দৃষ্টি দিলেই চমকে উঠবে। ভাববেন কিছুক্ষণ। কিন্তু কোন আমের সঙ্গেই মিলবে না এর চেহারার রং।

গাছের মালিক আহাদ আলী জানান, প্রায় ১২ বছর আগে তিনি বেশ কয়েকটি আমের গাছ লাগিয়েছেন বাড়ির উঠানে। গত ৫ বছর থেকে নিয়মিত আম ধরছে তার সব গাছেই। তবে একটি গাছের আলাদা রঙের আম ধরে প্রতিবার। মুকুল ঝরে পড়ার পর থেকে গুটি থেকে পেকে যাওয়া পর্যন্ত একই রকম বর্ণ থাকে আমের। দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে রাজশাহী আম গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আব্দুল আলীম জানান, সাধারণ আম কাঁচা অবস্থায় টসটসে সবুজ বর্ণের হয়। পাকলেও অনেকটা সবুজ থাকে। তবে সফেদা বর্ণের আম হয় বলে তারও জানা নেই। তবে তিনি বলেন, দেশে হাজারো প্রজাতির আম রয়েছে। এটি কোন প্রজাতির মিশ্রণ জাতের আম হতে পারে। আমগুলো দেখে তারপর এ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার ইচ্ছা পোশন করেন তিনি।

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

২২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: