মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দিনভর ভ্যাপসা গরমের পর সন্ধ্যার বৃষ্টিতে প্রশান্তি পেল রাজধানীবাসী। তবে বৃষ্টির পরিমাণ বেশি থাকায় সাময়িক দুর্ভোগেও পড়তে হয় বাসাফেরত নগরবাসীকে। ঘন ঘন বিদ্যুত চমকাতে থাকে। বৃষ্টির আগে বৃহস্পতিবার দিনভর রাজধানীসহ দেশের অধিকাংশ জেলায় তীব্র গরম অনুভূত হয়। ভ্যাপসা গরমে অতীষ্ঠ হয়ে পড়ে দেশবাসী। নাটোরে গরমে অসুস্থ হয়ে পড়ে হাইস্কুল পড়ুয়া ২৫ শিক্ষার্থী। ঘন ঘন বিদ্যুত বিভ্রাট বাড়িয়ে দেয় শহরবাসীর যন্ত্রণার মাত্রা। তীব্র গরমে হিট স্ট্রোক ও ডায়রিয়ার বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। দেশে বয়ে যাচ্ছে মৃদু তাপপ্রবাহ এবং আজ শুক্রবারও তা অব্যাহত থাকতে পারে।

বৃহস্পতিবার দিনভর রাজধানীর আকাশে ছিল না মেঘের আনাগোনা ও বৃষ্টিপাত। দিনের অধিকাংশ সময় ছিল তীব্র রোদ। গরমে অতীষ্ঠ ছিল নগরবাসী। ব্যাহত হয় নগরবাসীর স্বাভাবিক কাজকর্ম। প্রখর রোদ উপেক্ষা করেই চলতে হয় পথচারীদের। এত অস্বাভাবিক গরমে পরিবহনগুলোর ভেতরের তপ্ত পরিবেশে অস্থির হয়ে ওঠে যাত্রীরা। দাবদাহে জর্জরিত মানুষের কাছে বেড়ে যায় ঠা-া পানীয়ের চাহিদা। ঢাকার গত এক সপ্তাহের তাপমাত্রা বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩১ ডিগ্রী সেলসিয়াস থেকে ৩৬ ডিগ্রী সেলসিয়াসের মধ্যে থাকছে। আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে, ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪ থেকে ২৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড হচ্ছে। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, তাপমাত্রা যদি বেশি থাকে, সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য কমে আসে, তাহলে গরমের তীব্রতা বেশি অনুভূত হবে। সন্ধ্যা ৭টার পর হঠাৎ করে নেমে আসে বজ্র বৃষ্টি।

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

২২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: