মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আন্দামানে অভিযান এবার ॥ ভাসমান সাত হাজার অভিবাসী উদ্ধারে নেমেছে মালয়েশিয়া

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫
আন্দামানে অভিযান এবার ॥ ভাসমান সাত হাজার অভিবাসী উদ্ধারে নেমেছে মালয়েশিয়া
  • টেকনাফে আরও ১৭ বাংলাদেশী উদ্ধার

মোয়াজ্জেমুল হক/এইচএম এরশাদ ॥ সাগরপথ পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে গিয়ে আন্দামান সাগরে আটকাপড়া প্রায় ৭ হাজার মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশীদের উদ্ধারের ঘোষণা দিয়েছে মালয়েশিয়া। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজ্জাক বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, উদ্ধার অভিযানে সে দেশের নৌবাহিনী ও কোস্টগার্ডকে নামানো হচ্ছে। তিনি বলেছেন, গত বুধবার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে অগ্রগতির পর ক্ষুধার্ত ও অসুস্থদের সহায়তা দেয়া মৌলিক মানবিক সহমর্মিতা। এদিকে, ত্রিদেশীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের অগ্রগতির পর মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনিফা আমান ও ইন্দোনেশিয়ার রেতেœা মারসুদী মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইউ উনা মং লিনের সঙ্গে সে দেশের রাজধানী নেপিদোতে আলোচনা করেছেন। অপরদিকে, ইন্দোনেশিয়ায় উদ্ধার হওয়া মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশীদের মানবিক সহায়তাসহ পুনর্বাসনে জাতিসংঘ অভিবাসন এজেন্সির নেতৃত্বে বহুজাতিক প্রচেষ্টায় অংশ নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এর পাশাপাশি গাম্বিয়াও মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের আশ্রয় দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। তবে ফ্রান্স ও অস্ট্রেলিয়া অবৈধ অভিবাসীদের কোনরূপ আশ্রয় দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। এ সংক্রান্তে ইউরোপীয় ইউনিয়ন কমিশনের একটি প্রস্তাবে ফ্রান্স ছাড়া অন্যসব দেশ ঐকমত্য পোষণ করেছে।

মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন গণমাধ্যম এবং বার্তা সংস্থা বিবিসি ও রয়টারের খবর অনুযায়ী মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজ্জাক বলেছেন, তার দেশ আন্দামান সাগরে অভিবাসী বোঝাই ইঞ্জিনবোট ও ট্রলারের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু করবে। সাগরে এবং উপকূলে উদ্ধারকৃতদের মানবিক সহায়তা দেয়া হবে। মালয়েশিয়া সরকারের অভিবাসীদের নিয়ে নেতিবাচক ঘোষণার একসপ্তাহ পর সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে নতুন এ ঘোষণা এসেছে। মালয়েশিয়া সরকারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আন্দামান সাগরে এখনও ৭ হাজার অভিবাসী আটকা পড়ে আছে। এদের অধিকাংশ মিয়ানমারের দেশান্তরী রোহিঙ্গা মুসলিম এবং কিছু বাংলাদেশী নাগরিক। মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তারা এ পর্যন্ত তিন হাজার অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে। এদেরকে মানবিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে। থাইল্যান্ড বলেছে, তাদের জলসীমা থেকে আর কোন অভিবাসী বোঝাই ইঞ্জিন বোটকে পুশব্যাক করা হবে না।

উল্লেখ্য, গত তিন সপ্তাহে হাজার হাজার মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশের নাগরিক অবৈধ অভিবাসী হয়ে মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ও ইন্দোনেশিয়া উপকূলে ভিড়েছে। অবৈধ অভিবাসীদের নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া যুগপৎভাবে এদেরকে তাদের জলসীমা থেকে বের করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও গত বুধবার অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় বৈঠকে সে সিদ্ধান্ত পাল্টে তাদেরকে আশ্রয় উদ্ধার ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতার দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এর আগে ইন্দোনেশিয়া সরকার অবৈধ অভিবাসীদের বিতাড়িত করতে আন্দামান সাগরে যুদ্ধ জাহাজ ও যুদ্ধ বিমান পাঠানোর ঘোষণা দেয়। কিন্তু এ ঘোষণার পর জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থার পক্ষ থেকে নিন্দার ঝড় ওঠে। এরপরই এসব দেশ তাদের নেতিবাচক সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আনে।

এখনও ৭ হাজার আটকা ॥ মালয়েশিয়া সরকারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী আন্দামান সাগরে এখনও বিভিন্ন ছোট বড় নৌযানে আটকা পড়ে আছে প্রায় ৭ হাজার অবৈধ অভিবাসী। এদেরকে উদ্ধারে স্থানীয় জেলেদের সহায়তা করার নির্দেশ প্রদান করার পর মালয়েশিয়া আটকে পড়াদের সন্ধানে এবং উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বৃহস্পতিবার।

সহায়তা দিতে প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র ॥ যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, আন্দামান সাগরে আটকা পড়া অভিবাসীদের সহায়তা দিতে তারা প্রস্তুত এবং তাদের পুনর্বাসনে বহুদেশীয় প্রচেষ্টায় নেতৃত্ব দেবে। গত বুধবার স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখমাত্র মেরি হার্ফ এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেছেন, ‘আমরা এরই মধ্যে এক হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গাকে পুনর্বাসন করেছি। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) উদ্যোগে সংগঠিত প্রচেষ্টায় নেতৃস্থানীয় ভূমিকা নিতে আমরা প্রস্তুত। তিনি বলেন, আমরা অবশ্যই সবার দায়িত্ব নিজেরা নিতে পারব না। তবে এ প্রচেষ্টায় আমরা নেতৃস্থানীয় ভূমিকা নিতে প্রস্তুত। মেরি হার্ফ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ডেপুটি সেক্রেটারি এন্থনী ব্লিংক্যান মিয়ানমার সফরে রয়েছেন। তিনি রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে মিয়ানমারে অনুকূল পরিবেশ তৈরিতে সে দেশের সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। মেরি হার্ফ আরও বলেন, অভিবাসন সমস্যা নিরসনের একমাত্র সমাধান হচ্ছে যে কারণে দেশত্যাগে বাধ্য হচ্ছে সে কারণটা প্রশমিত করা।

আঞ্চলিক বৈঠক ॥ আগামী ২৯ মে থাইল্যান্ডে ১৫ দেশীয় যে আঞ্চলিক বৈঠক বসছে তাতে প্রথমে যোগ না দেয়ার ঘোষণা দিলেও সর্বশেষ এতে অংশ নেবে বলে জানিয়েছে মিয়ানমার। তবে সে দেশের পক্ষ থেকে আবারও বলা হয়েছে তারা এসব অভিবাসীকে মানবিক সহায়তা দিতে প্রস্তুত। কিন্তু রোহিঙ্গা মুসলমানদের নাগরিক হিসেবে মেনে না নিতে এখনও অনড় অবস্থানের কথা জানিয়েছে। উল্লেখ্য, থাইল্যান্ড অভিবাসী ইস্যুতে সে দেশের রাজধানী ব্যাঙ্ককে আগামী ২৯ মে একটি আঞ্চলিক সম্মেলন আহ্বান করেছে।

টেকনাফে আরও ১৭ বাংলাদেশী উদ্ধার ॥ বৃহস্পতিবার ভোরে টেকনাফে শাহ পরীরদ্বীপের জালিয়াপাড়া থেকে বিজিবি সদস্যরা আরও ১৭ বাংলাদেশীকে উদ্ধার করেছে। এরা সাগর পথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় যাত্রা করার পর বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ফিরে এসেছে বলে বিজিবি সূত্রে জানানো হয়েছে। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে রয়েছে নরসিংদীর ১০, নারায়ণগঞ্জের ৩, চট্টগ্রামের ৩ এবং হবিগঞ্জের ১ জন। বিজিবি সূত্র জানায়, উদ্ধারকৃতরা চট্টগ্রাম থেকে ইঞ্জিন নৌকাযোগে মালয়েশিয়া অভিমুখী হয়েছিল। গভীর সমুদ্রের মিয়ানমার সীমান্তে অপেক্ষমাণ ট্রলারে দীর্ঘ ২৮ দিন অবস্থানের পর দালালরা সটকে পড়লে তারা সাগরে ভাসতে ভাসতে অনাহারে অর্ধাহারে থেকে বৃহস্পতিবার ভোরে শাহপরীর দ্বীপে পৌঁছেছে। এদেরকে টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

মহেশখালীতে দালাল গ্রেফতার ॥ বুধবার রাতে মহেশখালী পুলিশ অভিযান চালিয়ে মানব পাচারকারী চক্রের দালাল ও মামলার আসামি ওসমানকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত ওসমান এলাকার বড় মহেশখালীর মৃত আলী চানের পুত্র। তার কাছ থেকে কার্তুজসহ দেশীয় একটি এলজি উদ্ধার করা হয়েছে। মহেশখালী পুলিশ জানায়, তার বিরুদ্ধে মহেশখালী ও চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানায় দুটি হত্যা, দুটি মানব পাচার ও একটি অস্ত্র আইনে মামলা রয়েছে।

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

২২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: