কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

তামিমকে নিয়ে দুশ্চিন্তা!

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫
তামিমকে নিয়ে দুশ্চিন্তা!
  • পুরনো ইনজুরি নতুন করে দেখা দিয়েছে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তামিম ইকবালের হাঁটুর পুরনো ব্যথা আবারও ফিরে এসেছে। আর তাই এ নিয়ে দুশ্চিন্তাতেও পড়তে হচ্ছে। ভারতের বিপক্ষে সিরিজ সামনে রেখে যখন দলের ক্রিকেটাররা ফিটনেস ক্যাম্পে ব্যস্ত, ক্যাম্পের শেষদিনে বৃহস্পতিবার তামিমের এ ব্যথা ট্রেইনার মারিও ভিলাভারায়েনকে চিন্তায় ফেলে দিয়েছে। তামিমকে নিয়ে দুশ্চিন্তাও শুরু হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ট্রেইনার সাংবাদিকদের বলেন, ‘তামিমের বাঁ হাঁটুর পুরনো ব্যথা আবার ফিরে এসেছে। তাকে আমরা পর্যবেক্ষণে রেখেছি।’ এক টেস্ট ও তিন ওয়ানডে খেলতে ৭ জুন বাংলাদেশে আসবে ভারত। সেই সিরিজে কী তামিমের খেলা নিয়ে কোন সংশয় আছে? ট্রেইনার এ নিয়ে অবশ্য কিছুই বলতে রাজি হননি। হাতে সময় এখনও আছে। সেই সময় পর্যন্ত তামিম সেরে উঠতেও পারবেন। ১০ জুন একমাত্র টেস্ট হবে। ১৮, ২১ ও ২৪ জুন যথাক্রমে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে। ১৯ দিন এখনও বাকি আছে। তাই তা নিয়ে চিন্তা না থাকলেও তামিমের বিসিএল খেলা নিয়ে ঠিকই চিন্তা হচ্ছে।

হাঁটুর এই চোটের কারণে বিশ্বকাপের আগে অস্ত্রোপচার করাতে হয়েছিল তামিমকে। জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজে যে চোট পেয়েছেন, এরপর ছুরির নিচে যেতে হয়েছে। এরপর আবার ফিরে বিশ্বকাপেও খেলেন তামিম। তাতে খুব বেশি সমস্যাও হয়নি। বিশ্বকাপ শেষে যখন বিসিএল খেলতে গেছেন, আবার চোট পেয়েছেন। কিন্তু পাকিস্তান সিরিজে তাই বলে খেলেননি, এমনটি হয়নি। টেস্টে তো ডাবল শতকই হাঁকিয়ে দিয়েছেন। তবে সেই চোট আবার পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে ফিরে আসে। এবং সমস্যায়ও ফেলে দেয় তামিমকে। ব্যথা নিয়েই তিন ওয়ানডে, এক টি২০ এবং দুই টেস্টের পুরো সিরিজ খেলেছিলেন এই বাঁহাতি ওপেনার।

তামিমকে নিয়ে এ মুহূর্তে দুশ্চিন্তা থাকলেও অন্য ক্রিকেটারদের নিয়ে কোন সমস্যা নেই। মুশফিককে নিয়ে খানিক চিন্তা ছিল। তবে তা পুরোপুরি কেটে গেছে। টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকের আঙ্গুলের চোট এখন পুরোপুরি সেরে গেছে। যদিও ট্রেইনার বলেছেন, ‘খুলনা টেস্ট চলার সময় মুশফিক ডান হাতের আঙ্গুলে চোট পেয়েছিল। এটা নিয়ে এখন দলের ফিজিও কাজ করছেন। আশা করি সে দ্রুত সেরে উঠবে।’

অন্য সব খেলোয়াড়দের ফিটনেস দুর্দান্ত অবস্থায় আছে। ট্রেইনার নিজেও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, ‘আমি বেশ কিছুদিন ধরে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে আছি। এই সময় খেলোয়াড়দের মানসিকতা এবং প্রশিক্ষণের প্রতি আগ্রহে বেশ পরিবর্তন এসেছে। তাই তাদের ফিটনেসেও অনেক উন্নতি হয়েছে। আমি তাদের ফিটনেসের অবস্থা দেখে খুশি।’

ফিটনেস ক্যাম্পের প্রথমদিনেই ট্রেইনার বলেছিলেন, ‘আসলে কিছু পরীক্ষা করেছি দেখার জন্য যে, ব্যক্তিগতভাবে খেলোয়াড়রা কে কোন জায়গায় আছে। আমরা ফিটনেস নিয়ে অনেক দিন কাজ করতে পারিনি। কারণ বিশ্বকাপ, পাকিস্তান সিরিজ ছিল। সামান্য কিছু পরীক্ষা হয়েছে, দেখার জন্য যে তারা কেমন আছে। আর সামনে কী করতে হবে আমাদের।

আমি ক্রিকেটারদের ফিটনেসে খুশি।’

ক্যাম্পের দ্বিতীয় ও শেষদিনেই তামিমকে নিয়ে দুশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে। ট্রেইনার আগেই বলেছেন, ‘কিছু কাজ করতে হবে। বিসিএলে যে খেলবে ক্রিকেটাররা, তখন ফিট থাকতে হবে।’ তামিম এখন রবিবার শুরু হতে যাওয়া বিসিএল চারদিনের ম্যাচের শেষ পর্বে খেলে সবার দুশ্চিন্তা কমাতে পারেন কি না সেটিই দেখার বিষয়।

প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৫

২২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: