আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চাঁপাইয়ে শত কোটি টাকার বোরো তলিয়ে গেছে

প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ জলবায়ু পরিবর্তনের মারাত্মক প্রতিক্রিয়াতে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বোরো চাষীরা। অসময়ে টানা বৃষ্টিপাত, তাও আবার একাধিকবার হবার কারণে এই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। মে মাসের প্রথম দুই সপ্তাহে ৫বার ও ১৬ মে রাতের বৃষ্টিপাতে জেলার বড় বড় ২১টি বিলের সবকটি পানিতে ডুবে যাবার কারণে পাকা বোরো ধান তলিয়ে গেছে। এর মধ্যে শিবগঞ্জ উপজেলার তিনটি, ভোলাহাটের দুটি, গোমস্তাপুরের ৪টি ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরের প্রধান পাচটি বিল ঝিল বৃষ্টির পানিতে ভরে যাবার কারণে তলিয়ে গেছে প্রায় ৩০ হাজার হেক্টর জমির বোরো ধান। অধিকাংশ জমির ধান পেকে ওঠায় কৃষক কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তার মধ্যে নেমে আসে অধিক বৃষ্টিপাতের মতো দুর্যোগ। বিশেষ করে ১৬ মে সন্ধ্যা থেকে শুরু করে সারারাত পেরিয়ে সকাল ১০টা পার্যন্ত মুষলধারে বৃষ্টিপাতের কারণে পাকা বোরো ধান তলিয়ে গেছে। কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের অভিমত ক্ষতির পরিমাণ শত কোটি পেরিয়ে যাবে। সর্বত্র কৃষকের হাহাকার। বহু কষ্ট করে প্রায় ৩গুণ অতিরিক্ত খরচের পর এবার বোরো চাষ করা সম্ভব হয়েছিল। কৃষক বোরো আবাদে নানান ধরনের সরকারী বেসরকারী ঋণ নিয়ে রেখেছিল। আশা ছিল বোরো ওঠা মাত্রই তারা নানান স্থানের নেয়া ঋণ পরিশোধ করবে। কিন্তু সে আসার গুড়ে বালি। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরসহ গোদাগাড়ি পর্যন্ত সম্প্রসারিত বড় বিলে পাকা ধানের উপর ৩ থেকে ৪ ফুট পানি। ডুবে যাওয়া পাকা ধান কাটার কোন বিকল্প নেই। যারা পাকা ধান কেটে মাড়াইয়ের অপেক্ষায় ছিল সে ধানও ডুবে গেছে। আবার যে সব জমিতে হাঁটু পানি রয়েছে তা কাটার জন্য কামলা পাওয়া যাচ্ছে না। পাওয়া গেলেও অসাধ্য শর্তজুড়ে দিয়ে সরে যাচ্ছে। এই চিত্র প্রায় প্রতিটি অঞ্চলের খাল বিল ঝিলের।

দিনাজপুরে কাল বৈশাখী ঝড়ে নিহত এক

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকে জানান, বুধবার দুপুরে দিনাজপুরে প্রচ- ঝড়, বৃষ্টি ও বজ্রপাত হয়েছে। ঝড়ে মৌসুমী ফল ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়েছে এবং বজ্রপাতে একজন নিহত হয়েছে।

বুধবার দুপুর ১২টার সময় কালবৈশাখী ঝড় শুরু হয়। ঝড়ে সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় আম-লিচুর ক্ষতি হয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে পাকা ও আধা পাকা ধানেরও ক্ষতি হয়েছে। অনেক গাছ পালা উপড়ে পড়েছে। বিদ্যুত পোল উপড়ে পড়ায় দীর্ঘ সময় বিদ্যুত বন্ধ ছিল। বজ্রপাতে দিনাজপুর সদর উপজেলার শেখপুড়া ইউনিয়নে অলিল উদ্দিন (২৮) নিহত হয়েছে। নিহত অলিল এ সময় ক্ষেতে ধান কাটছিল। আহত হয়েছে ৩ জন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৫

২১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: