কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রচার কাজ আজ শুরু

প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কমিউনিটি ক্লিনিকের স্বাস্থ্যসেবায় গ্রামীণ জনগণের সম্পৃক্ততা আরও বৃদ্ধি করতে দেশব্যাপী জনসচেতনতামূলক প্রচার কার্যক্রম হাতে নিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বুধবার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনের উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। কমিউনিটি ক্লিনিকের তথ্যসংবলিত গাড়ি বুধবার ঢাকা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মৌলভীবাজারের উদ্দেশে যাত্রা করে। আজ বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার থেকে ৪১ দিনব্যাপী এ কার্যক্রম শুরু হবে, যা শেষ হবে ৩০ জুন। ‘শেখ হাসিনার অবদান, কমিউনিটি ক্লিনিক বাঁচায় প্রাণ’- স্লোগানে দেশব্যাপী এ প্রচার কার্যক্রম চলবে।

আয়োজকরা জানায়, ১২টি ফিল্ড এ্যাক্টিভেশন ইউনিটের (কমিউনিটি ক্লিনিকের তথ্যসংবলিত গাড়ি) মাধ্যমে প্রতি উপজেলায় কমপক্ষে দুটি স্থানে প্রজেক্টরের মাধ্যমে কমিউনিটি ক্লিনিকের সেবা ও জনসম্পৃক্ততার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে নির্মিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভয়েস কলের ভিডিও, সচেতনতামূলক গান, নাটক, পিএসএ বা টিভি স্পট, গম্ভীরা গান, ডকুমেন্টরি ইত্যাদি প্রদর্শন করা হবে। প্রতিদিন গড়ে ২৪টি করে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত সারাদেশে ৪৮২টি উপজেলায় ৯৮৪টি প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। পাশাপাশি কমিউনিটি ক্লিনিকের তথ্যসংবলিত গাড়ি পথে পথে সচেতনতামূলক গান প্রচার করবে এবং কমিউনিটি ক্লিনিকের তথ্যসংবলিত ১৫ লাখ (রঙিন) মুদ্রিত লিফলেট বিতরণ করবে। এ বিষয়ে অতিরিক্ত সচিব ও কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রকল্প পরিচালক মাখদুমা নার্গিস বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই প্রধানমন্ত্রীর তাগিদ ছিল গ্রামীণ জনগণকে কমিউনিটি ক্লিনিকের সেবা সম্পর্কে জানানোর। যাতে গ্রামীণ সুবিধাবঞ্চিত মানুষ বিশেষ করে নারী ও শিশুরা এই সেবার আওতায় আসে এবং মাতৃ ও শিশুমৃত্যু উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে আনা যায়। এরই লক্ষ্যে এ কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিক বর্তমান সরকারের অগ্রাধিকারভিত্তিক একটি কার্যক্রম। এটি গ্রামীণ স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। দেশের জনগণ এখন ক্লিনিকের কার্যক্রমে খুশি। তারা এখন অনুধাবন করতে পেরেছেন যে, তারাই কমিউনিটি ক্লিনিকের মালিক, এগুলো তাঁদের জায়গায় স্থাপিত, তারা এখন হতে সেবা নিচ্ছেন এবং তাঁরাই কমিউনিটি গ্রুপ এ কমিউনিটি সাপোর্ট গ্রুপের মাধ্যমে এগুলো পরিচালনা করছেন। বর্তমানে ১২ হাজার ৮শ’ ওর বেশি কমিউনিটি ক্লিনিক চলছে এবং পল্লী জনগণের বিশেষ করে দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিতরা তাদের দোরগোড়ায় স্থাপিত কমিউনিটি ক্লিনিক হতে সেবা নিচ্ছেন। ২০০৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৩৫ কোটির বেশি মানুষ সেবা গ্রহণ করেছে এবং ৭০ লাখের বেশি জরুরী ও জটিল রোগীদের উচ্চতর পর্যায়ে রেফার করা হয়েছে। স্বাস্থ্য শিক্ষা, স্বাস্থ্যের উন্নয়ন, সাধারণ সমস্যা ও জখমের চিকিৎসা, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, নির্ণয় ও রেফার ইত্যাদি কমিউনিটি ক্লিনিকের উল্লেখযোগ্য সেবা। প্রায় ৯শ’ ক্লিনিকে স্বাভাবিক প্রসব পরিচালিত হচ্ছে। কমিউনিটি ক্লিনিক আজ জনগণের কাছে একটি নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান বলে জানান ডাঃ মাখদুমা নার্গিস।

প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৫

২১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: