কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কুমিল্লায় আগুনে পুড়ে মা-ছেলের রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কুমিল্লা, ২০ মে ॥ আগুনে পুড়ে মা ও ছেলের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বেলা পৌনে ১২ টার দিকে দাউদকান্দি উপজেলার সরকারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটে সৃষ্ট আগুনে পুড়ে হাসিনা বেগম (৩০) ও ছেলে ইয়াছিনের (৮ মাস) মৃত্যু হয়েছে বলে স্বামীর পরিবার দাবি করলেও হাসিনার পরিবার দাবি করছে আগুনে পুড়িয়ে তাদের হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নের সরকারপুর গ্রামের শাহজাহান সিকদারের ঘরে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত। এ সময় আগুনে পুড়ে তার স্ত্রী হাসিনা বেগম ও ছেলে ইয়াছিন মারা যায়। তবে হাসিনার বাবা একই উপজেলার শ্রীচাইল মোহাম্মদপুর গ্রামের বাসিন্দা শামসুদ্দিন আহম্মদ সাংবাদিকদের জানান, সৌদি প্রবাসী শাহজাহান মিয়া দুই বছর আগে তার মেয়েকে বিয়ে করে। এটি ছিল তার দ্বিতীয় বিয়ে। বিয়ের পর থেকেই শাহজাহান মিয়া প্রথম সংসারের স্ত্রী সালেহা ও ছেলেদের সঙ্গে তার ঝগড়া হতো। তাই প্রবাসী শাহজাহান মিয়া বড় স্ত্রী সালেহাকে পুরানো বাড়িতে রেখে দ্বিতীয় স্ত্রী হাসিনা আক্তারকে নতুন বাড়িতে রাখত। বুধবার হাসিনা আক্তার তার ছেলেকে নিয়ে ঘরে ঘুমিয়েছিল। বেলা পৌনে ১২টার দিকে পাশের ঘরের লোকজন হাসিনা কক্ষ থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখে ঘরে প্রবেশ করে। ততক্ষণে হাসিনা ও ইয়াছিন দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে। নিহতের ভাই মামুন বলেন, আমার বোনের সঙ্গে তার স্বামী ও প্রথম স্ত্রী প্রায়ই ঝগড়া করত, মঙ্গলবার সালেহা বেগমের ছেলেরা বাড়িতে গাছ লাগানো নিয়ে ঝগড়া করে। আগের রাতে দুলাভাই আমাদের মোবাইল ফোনে বলেছে বুধবার হাসিনা আপাকে আমাদের বাড়িতে নিয়ে আসতে। না হয় যে কোন ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তিনি আরও বলেন, আমার বোনকে পরিকল্পিতভাবে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে।

দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি মোঃ আনোয়ারুল হক জানান, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের কারণে অগ্নিকা-ে দ্বগ্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে, নাকি অন্য কোন কারণে রয়েছে তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। অগ্নিদগ্ধ হয়ে পুড়ে যাওয়া লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

প্রকাশিত : ২১ মে ২০১৫

২১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: