কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মুরসির মৃত্যুদণ্ডে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ

প্রকাশিত : ১৮ মে ২০১৫

মিসরে আদালত ক্ষমতাচ্যুত ইসলামপন্থী প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসি এবং আরও ১শ’ জনকে মৃত্যুদ- প্রদান করায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ২০১১-এর আন্দোলনের সময় জনতার কারাগার ভাঙ্গার ঘটনায় তাদের ভূমিকার জন্য এ মৃত্যুদ-াদেশ দেয়া হয়। খবর এএফপির।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এক কর্মকর্তা রবিবার বলেছেন যে গণবিচার ও দ-াদেশ এমন এক পদ্ধতিতে পরিচালিত হয় যা মিসরের আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকতা ও আইনের শাসনের সঙ্গে সামঞ্জস্যহীন তার বিরুদ্ধে সব সময় সোচ্চার আমরা।

কর্মকর্তা বলেন, এ ধরনের দ-াদেশ আগেও প্রদান করা হয়েছে। আমরা ন্যায়বিচারের স্বার্থে সকল মিসরীয়দের জন্য যথাযথ প্রক্রিয়া ও ব্যক্তিকেন্দ্রিক বিচার প্রক্রিয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছি অব্যাহতভাবে। শনিবার যাদের মৃত্যুদ- দেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে অনেকের অনুপস্থিতিতে বিচারের রায় দেয়া হয়। আদালত ২ জুন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবে। কারণ মিসরীয় আইন অনুসারে এ মৃত্যুদ-াদেশ সরকারের ইসলামী আইন ব্যাখ্যাকারী মুফতির কাছে পাঠানো হবে। মুফতি সংশ্লিষ্ট বিষয়ে উপদেষ্টার ভূমিকা পালন করেন। মুফতির সুপারিশের পরও বিবাদী আপীল করতে পারবেন।

২০১২-এর নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মুরসি গণআন্দোলন শুরু হওয়ার আগে মাত্র এক বছর দেশ শাসন করেন এবং সামরিক বাহিনী ২০১৩-এর জুলাইয়ে তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে। আন্দোলন দমনে সরকারী অভিযানে কয়েক ডজন ইসলামপন্থী নেতাসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। ঐ অভিযানে মুরসির কয়েকশ’ সমর্থক নিহত হয়। মুরসির মৃত্যুদ-াদেশ ঘোষণায় কয়েক ঘণ্টা পর বন্দুকধারীরা সংঘাত বিক্ষুব্ধ সিনাই উপদ্বীপে ২ বিচারক ১ প্রসিকিউটর ও তাদের গাড়ির চালককে গুলি করে হত্যা করেছে। এ অঞ্চলে বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের ওপর এ ধরনের এটাই প্রথম হামলা। মাাির্কন পররাষ্ট্র দফতর বলেছে, তারা নির্বোধের মতো এ হত্যাকা- ঘটিয়েছে। কর্মকর্তাটি বলেন, মিসরের নিরাপত্তায় আমাদের দৃঢ় প্রতিশ্রুতির কথা পুনর্ব্যক্ত করছি আমরা।

প্রকাশিত : ১৮ মে ২০১৫

১৮/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: