মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বিনিয়োগের ক্ষেত্রে এশিয়ার দেশগুলো দুর্বল অবস্থানে

প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৫, ০৩:৫১ পি. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশসহ ভারতীয় উপমহাদেশ দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে রেমিটেন্স থেকে আয়, প্রবাসীদের আয় এবং বৈদেশিক বাণিজ্য থেকে আয় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শনিবার রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে ‘স্থায়ী উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি): অর্থায়নে এশিয়ার অংশীদারিত্ব’ শীর্ষক বিশেষজ্ঞ দলের এক বৈঠকে বক্তারা এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি ইউন-ইয়ং, সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইদুজ্জামান, বিশ্বব্যাংকের লিড ইকোনোমিস্ট সালমান জাহিদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সিপিডির নির্বাহী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিপিডির সম্মানিত ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বৈদেশিক আয়ের মধ্যে আন্তঃআঞ্চলিক আয় আরো গুরুত্বপূর্ণ। অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে রাজস্ব আয় রেমিটেন্স, বৈদেশিক বাণিজ্য গুরুত্ব পাচ্ছে। এগুলোকে ঠিকমতো টেকসই করার জন্য বৈদেশিক ও আঞ্চলিক নীতি কাঠামাগুলো শক্তিশালী করা দরকার। তা না হলে বৈশ্বিক অর্থনীতির যেকোনো ধরনের ঝুঁকি অর্থনীতিকে কাঁবু করে দিতে পারে। বক্তারা আরও বলেন, উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে বাংলাদেশসহ এশিয়ার দেশগুলো বৈদেশিক সাহায্যের ওপর নির্ভরশীলতা থেকে বেরিয়ে অভ্যন্তরীণ উৎসের ওপর নির্ভরশীল হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে স্থায়ী উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে দেশি-বিদেশি অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগ দরকার।

প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৫, ০৩:৫১ পি. এম.

১৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: