কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাতের আঁধারে ফুটল শত শত দুর্লভ ফুল

প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৫
রাতের আঁধারে ফুটল  শত শত দুর্লভ ফুল

মামুন-অর-রশিদ, রাজশাহী থেকে ॥ রাতের আঁধারে পামগাছে জড়ানো লতায় শত শত সাদা ফুলের হাসি কার না ভাল লাগবে। এমন দৃশ্য বিরল হলেও বৃহস্পতিবার রাতে রাজশাহী কলেজের বোটানিক্যাল গার্ডেনের রয়েল পাম গাছে হঠাৎ দেখা মিলেছে এমন শত শত ফুল। স্থানীয় ভাষায় এর নাম হাড়জোড়া ফুল। এক সঙ্গে শতশত ফুল ফোটার খবরে দলে দলে ছুটে আসেন কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে হাজারো কৌতূহলী মানুষ।

রাজশাহী কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক শামিম আরা জানান, কলেজের বোটানিক্যাল গার্ডেনের রাস্তা দিয়ে রাত আটটার দিকে হাঁটাহাঁটি করছিলেন তিনি। হঠাৎ পাম গাছের দিকে তাকাতেই সেটির গায়ে লেগে থাকা লতাজাতীয় গাছে সাদা সাদা অসংখ্য ফুল চোখে পড়ে তার। পাম গাছের গায়ে হঠাৎ সাদা সাদা ফুল ফুটে থাকতে দেখে অবাক হয়ে দেখতে থাকেন তিনি। জানান একে অপরকে। এভাবেই জানাজানি হয়ে গেলে শত শত ফুল দেখতে ছুটে আসেন মানুষ।

অধ্যাপক শামিম আরা জানান, পরে তিনি বুঝতে পারেন পরাশ্রিত গাছে এগুলো হাড়জোড়া গাছের ফুল (স্থানীয় ভাষায়)। তিনি বলেন, এর আগে কখনও তিনি এই গাছের ফুল ফুটতে দেখেননি। এই ফুল সচরাচর দেখাও যায় না। দীর্ঘদিন পরপর ফোটে।

এদিকে বিরল এই ফুল দেখার জন্য ছুটে আসেন কলেজের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ড. আল মুকুল চৌধুরীসহ আরও কয়েক শিক্ষক। তাঁদের সঙ্গে আসেন কলেজের আবাসিক হোস্টেলের কয়েক শ’ শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রাও। বিরল ও দুর্লভ ফুল দেখে আনন্দে আত্মহারা হন সবাই।

উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ড. আল মুকুল চৌধুরী জানান, লোকজ নাম হাড়জোড়া এবং এর বৈজ্ঞানিক নাম সিসাস-কুয়াড্রানগুলারিস। মাংসল লতা আকৃতির এই গাছটি সাধারণত প্রাচীরের সৌন্দর্য্য বর্ধন করে। কখনও কখনও পাতাহীন দেখা যায়। সচরাচর দেখা যায় না এ ফুল। এটি একটি ঔষধি জাতের উদ্ভিদ।

প্রকাশিত : ১৬ মে ২০১৫

১৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: