কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঐক্যবদ্ধ ভাবে ইতিহাস বিকৃতি রোধ করতে হবে

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৫, ০৬:০৬ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিকভাবে ইতিহাস তুলে ধরা ইতিহাসবিদদের পবিত্র দায়িত্ব। এ দায়িত্ব পালনে ইতিহাসবিদদের নিষ্ঠার পরিচয় দিতে হবে। বস্তুনিষ্ঠ ইতিহাস চর্চার পাশাপাশি দায়িত্ব পালনে সততার পরিচয় দিতে হবে। ঐক্যবদ্ধ ভাবে ইতিহাস বিকৃতি রোধ করতে হবে।

শুক্রবার জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) এ বাংলাদেশ ইতিহাস সমিতির অষ্টাদশ দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে ও প্রবন্ধ পাঠকালে বক্তারা এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিকভাবে ইতিহাস তুলে ধরা ইতিহাসবিদদের পবিত্র দায়িত্ব। সমাজের সাবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ইতিহাস বিকৃতি রোধ করতে হবে।

অধ্যাপক শরীফ আহমেদ তার ‘ইতিহাসের উৎস: পুরোনো নথিপত্র ও দলিল দস্তাবেজ প্রেক্ষিত বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রবন্ধ পাঠকালে বলেন, ব্রিটিশ আমলে এ দেশে বহু রেকর্ড সঠিকভাবে সংরক্ষিত হয়েছে, আবার ধ্বংসও করা হয়েছে। কাচারিবাড়ি, জমিদারবাড়ির সমস্ত ইতিহাস ধ্বংস হয়ে গেছে। ফলে ইতিহাসবিদরা গ্রামীণ বাংলাদেশের পূর্ণ ইতিহাস লিখতে পারবে না, খন্ডিত ইতিহাস লিখতে হবে।

অধ্যাপক আলী আকবর তার ‘ইতিহাস চর্চার মূল উপাত্ত সংগ্রহ ও সংরক্ষণ- বিট্রিশ আমল’ শীর্ষক প্রবন্ধ পাঠকালে বলেন, ব্রিটিশরা যদি কোন রেকর্ড না রেখে যেতো তাহলে আমরা কোন ইতিহাসই পেতাম না। সচিবালয়ের গুরুত্বপূর্ণ দালিলপত্র গুলোও সঠিকভাবে রেকর্ড হয় না। ফলে ভবিষ্যতে গুরুত্বপূর্ণ রেকর্ডও আমরা খোঁজে পাব না। এ বিষয়ে সকলের সচেতন হওয়া দরকার।

সম্মেলনের প্রথম দিনে দেশ বিদেশের নানা প্রান্থ থেকে প্রায় ৩০০ ইতিহাসবিদ দ্বিবার্ষিক ওই সম্মেলনে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইতিহাস সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ এইচ আহমেদ কামাল।

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৫, ০৬:০৬ পি. এম.

১৫/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: