কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সালাহউদ্দিন সমাচার

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৫

অন্তর্ধান রহস্য উন্মোচন না হলেও ‘খোকাবাবু’র প্রত্যাবর্তন ঘটেছে বলা যায়। কিভাবে যে উধাও হয়ে গেলেন রাতের আঁধারে, টানা ৬৪ দিন ধরে আর তত্ত্ব তালাশও মেলে না। অথচ তাকে শাসককুল ‘গুম’ করেছে বলে হরতালও ডাকা হলো অবরোধের সম্পূরক হিসেবে। বাস পুড়ল, মরলো দগ্ধযাত্রী। ক্ষতি হলো আরও সম্পদের। নিখোঁজ হওয়ার আগে আল কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেন স্টাইলে ভিডিও বার্তায় তিনি অবরোধ চালিয়ে যাবার বার্তা দিতেন অজ্ঞাতস্থান থেকে। অজ্ঞাত থাকতে থাকতেই তিনি সত্যি সত্যি গত ১০ মার্চ অজ্ঞাতবাসে চলে গেলেন। আর দেশের চৌকশ গোয়েন্দারাও অজ্ঞাতস্থান আবিষ্কারে সফল হয়নি। সে কারণে হয়তো তাদের ঘাড়েই দোষ চাপানো হলো যে, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা তাকে গুম করেছে। আন্তর্জাতিক মহলেও বিষয়টি সরকারের কাজ বলে প্রচারণা থাকতে থাকতেই মাটি ফুঁড়ে যেন আবির্ভূত হলেন সালাহউদ্দিন, বিএনপি-জামায়াত জোটের এই নেতা। ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়ে আচরণগত কারণে পুলিশ তাকে পাঠায় মানসিক হাসপাতালে। ভিসা ছাড়া অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে স্বাভাবিকভাবেই তিনি গ্রেফতারের তালিকাভুক্ত হলেন। কিভাবে সেখানে গেলেন, তা ভুলে গেলেও স্ত্রীর ফোন নাম্বারটিকে স্মরণে রাখতে পেরেছেন। আর তাই বলতেও পেরেছেন, বেঁচে আছি। রহস্য এখানে আরও নতুন গতি পায়। সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে নাশকতার দায়ে কয়েকটি মামলাও রয়েছে। সেই ভয়ে তিনি পালালেন কিনা, তা হয়তো জানা যাবে অচিরেই। সালাহউদ্দিনের ‘নিখোঁজ’ হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত জোট যে নোংরা রাজনীতি করতে চেয়েছিল, তা আর সম্ভব হলো না। টানা ৯২ দিন তান্ডব চালিয়ে ব্যর্থ হওয়ার মাঝখানে তাদের হাতে আর কোন অস্ত্র ছিল না। তাই এই ঘটনাকে নিয়ে নাশকতার পরিধি বাড়াতে চেয়েছিল। আন্দোলনে সবক্ষেত্রে ব্যর্থ বিএনপি সালাহউদ্দিনকে ‘গুম’ এর অভিযোগ করে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে ফেরানোর চেষ্টা করে অরাজকতার মাত্রা আরও বাড়াতে চেয়েছিল। সরকারী দল বলছে, সরকার ও প্রশাসনের বিরুদ্ধে ‘গুম’ এর যে অভিযোগ এনেছেন বিএনপি নেত্রী তা প্রত্যাহার করে নিয়ে জাতির কাছে ক্ষমা ও দুঃখ প্রার্থনা করা উচিত। সালাহউদ্দিনের অন্তর্ধানের সঙ্গে সরকার ও প্রশাসনের কোন ধরনের সম্পর্ক যে ছিল না, তা আজ জাতির সামনে পরিষ্কার হয়ে গেছে। আসল রহস্য ফাঁস হয়ে আসছে। দেশের মানুষের আজ প্রশ্ন, বিএনপি কেন গুমের অভিযোগ এনে রাজনৈতিক ইস্যু তৈরির চেষ্টা করেছিল? এতে সাধারণ মানুষ বিভ্রান্ত হয়েছে। কোন রাজনৈতিক দলের জন্যই এটা যথার্থ কোন কাজ নয়। জাতির সামনে বিএনপি-জামায়াতের আসল মুখোশ উন্মোচিত হয়ে গেছে। এর আগেও ইলিয়াস আলী, চৌধুরী আলমকে ‘গুম’ করা হয়েছে বলে গুজব তুলে আসছে। এখন কাজ হচ্ছে ভারত থেকে সালাহউদ্দিনকে ফেরত আনার ব্যবস্থা করে নেপথ্যের সকল তথ্য উদঘাটন করে তা জাতির সামনে প্রকাশ করা। মিথ্যাচার আর রহস্য রোমাঞ্চের রাজনীতিচর্চা বন্ধ করাও জরুরী।

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৫

১৫/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: