রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বার্গম্যানের সাজায় উদ্বেগ জানানো ২৩ জনের বিষয়ে আদেশ ১০ জুন

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ব্রিটিশ নাগরিক ডেভিড বার্গম্যানের সাজায় উদ্বেগ জানিয়ে বিবৃতিদানকারী ৪৯ জনের মধ্যে ২৩ জনকে আদালত অবমাননার বিষয়ে আদেশের জন্য ১০ জুন দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে এই আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম। ট্রাইব্যুনালে হাজির হওয়া বিবৃতিদানকারী ১৫ জনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ও ব্যারিস্টার আখতার ইমাম। অন্যদিকে প্রসিকিউশনপক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। অন্যদিকে ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী, শিরিন হক ও শহীদুল আলমের পক্ষে শুনানি করেন শিরিন হক।

এদিকে বিবৃতিদানকারীদের মধ্যে একজন ট্রাইব্যুনালে স্বীকার করেছেন তাদের মধ্যে সমন্বয়হীনতা ছিল, তাঁরা তাঁদের দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছেন। অন্যদিকে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বলেছেন, বার্গম্যানের সাজার বিষয়ে এই বিবৃতি দেয়াটা ‘দায়িত্বহীন আচরণ’ হয়েছে। ২৩ বিবৃতিদানকারীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে জারি করা রুলের শুনানিকালে বৃহস্পতিবার শহিদুল আলম ট্রাইব্যুনালে এ কথা বলেছেন। রুল পাওয়া ২৩ নাগরিক হলেন, মাসুদ খান, সাংবাদিক ও লেখক আফসান চৌধুরী, অধিকারকর্মী হানা শামস আহমেদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আনু মোহাম্মাদ, সঙ্গীতশিল্পী আনুশেহ আনাদিল, সংস্কৃতিকর্মী লুবনা মারিয়াম, অধিকারকর্মী মুক্তাশ্রী চাকমা সাথী, এ্যাডভোকেট এ জিয়াউর রহমান, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নারী অধিকারকর্মী শিরিন হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক ড. সি আর আবরার, নারী গ্রন্থ প্রবর্তনার নির্বাহী পরিচালক ফরিদা আক্তার, অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির গবেষক ড. বিনা ডি কস্টা, নৃ-বিজ্ঞান গবেষক রেহনুমা আহমেদ, আলোকচিত্রী ড. শহীদুল আলম, সংস্কৃতিকর্মী লিসা গাজী, ড. জরিনা নাহার কবির, আলাল ও দুলাল ব্লগের সম্পাদক তিবরা আলী, লেখক শবনম নাদিয়া, লেখক মাহমুদ রহমান, নৃ-বিজ্ঞানী দেলোয়ার হোসেন, আলী আহম্মেদ জিয়াউদ্দিন ও চলচ্চিত্র নির্মাতা নাসরিন সিরাজ এ্যানি।

শুনানির সময় ট্রাইব্যুনাল বলেন, বার্গম্যানের সাজার বিষয়ে এই বিবৃতি দেয়াটা ‘দায়িত্বহীন আচরণ’ হয়েছে। বাংলা ও ইংরেজী দুটি ভাষায় এ বিবৃতি গণমাধ্যমে পাঠানো হয়েছে। কে কোন্্টা দেখে সম্মতি জানিয়েছেন আর কারা ইংরেজী থেকে অনুবাদ করেছেন নিশ্চিত করে বলতে পারেননি বিবৃতিদাতারা। আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে গত ১ এপ্রিল এ রুল জারি করেছিলেন ট্রাইব্যুনাল। গত ২৯ এপ্রিল ওই ২৩ জনের মধ্যে ২১ জন রুলের লিখিত জবাব দেন। ১৫ জন সশরীরে হাজির হয়ে ও বিদেশে থাকা বাকি ৮ জনের মধ্যে ৬ জন ডাকযোগে রুলের জবাব দেন। হাজির থাকা ১৫ জনের মধ্যে ১০ জনের পক্ষে ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ও ২ জনের পক্ষে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার আখতার ইমাম জবাব দাখিল করেন। বাকি ৩ জন জবাব দাখিল করে নিজেরাই শুনানি করবেন বলে জানান।

প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৫

১৫/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: