হালকা কুয়াশা, তাপমাত্রা ১৮.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

খালেদার আবেদনের রুলের শুনানি মুলতবি

প্রকাশিত : ১৪ মে ২০১৫, ১২:৪৯ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা নাইকো গ্যাটকো ও বড়পুকুরিয়া দুর্নীতি মামলা বাতিল চেয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার করা আবেদনের ওপর রুলের শুনানি বৃহস্পতিবার দুপুর দুটা পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার প্েক্ষর আইনজীবী বড়পুকুরিয়া মামলার চার্জ পড়ছেন। বুধবার বিচারপতি মোঃ নূরুজ্জামান ও বিচারপতি জাফর আহমেদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি শেষে এ আদেশ প্রদান করেন। এ সময় খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী তাকে সহযোগিতা করেন এ্যাডভোকেট জাকির হোসেন ভুইয়া ও ব্যারিস্টার ইহসানুর রহমান। দুদকের পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট মোহাম্মদ খুরশীদ আলম খান।

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলায় সরকারের ১৫৮ কোটি ৭১ লাখ টাকার ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়। একই বছরের ৫ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়। মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন খালেদা জিয়া। সর্বশেষ ৯ এপ্রিল হাইকোর্ট বড়পুকুরিয়া মামলার কার্যক্রম ছয় মাস স্থগিত করেন।

কানাডীয় কোম্পানি নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতিসাধনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুদক ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় মামলা করে। ২০০৮ সালের ৫ মে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়। এ মামলাতেও রুল জারি করে হাইকোর্ট।

চট্টগ্রাম বন্দর ও রাজধানীর কমলাপুরে কন্টেইনার টার্মিনালে কন্টেইনার উঠানামার বিষয়ে ঠিকাদার নিয়োগ নিয়ে এক হাজার কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগে মেসার্স গ্লোবাল এ্যাগ্রোট্রেড কোম্পানি (গ্যাটকো) লিমিটেডের বিরুদ্ধে ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুদক। এ মামলায় খালেদা জিয়াসহ ১৩ জনকে আসামি করা হয়। ২০০৮ সালের ১০ জুলাই ২৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন বিচারিক আদালত। ২০০৮ সালের ১৫ জুলাই হাইকোর্ট মামলার কার্যক্রম স্থগিত অথবা বাতিল প্রশ্নে রুল জারি করে।

প্রকাশিত : ১৪ মে ২০১৫, ১২:৪৯ এ. এম.

১৪/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: